• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
স্বামীর সঙ্গে মুড়ি খাওয়া নিয়ে ঝগড়া, গৃহবধূর আত্মহত্যা
ঈদে মেয়ে ও জামাইকে কাপড় দিতে না পেরে আত্মহত্যা
ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদে মেয়ে জামাইকে কাপড় ও সেমাই কিনে দিতে না পারায় জাহানারা বেগম (৬৫) নামে এক নারী আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ভোরে জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের ছাগলডাঙ্গী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত জাহানারা বেগম ওই গ্রামের মো. বজির উদ্দিনের স্ত্রী। জানা গেছে, অভাবের কারণে ঈদুল ফিতরে মেয়ে ও মেয়ের জামাইকে নতুন কাপড় কিনে দিতে পারেননি জাহানারা। এ নিয়ে সোমবার রাতে স্বামী বজির উদ্দীনের সঙ্গে তার সঙ্গে ঝগড়া হয়। এরপর গভীর রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন। জাহানারার বড় ছেলে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সংসারে অভাবের কারণে ঈদে জামাই, মেয়ে ও নাতিদের নতুন কাপড় দিতে পারেননি মা। এ জন্য একাধিকবার আফসোস করেছেন তিনি। গত রোববার মেয়েকে বলেই ফেলেছিলেন, এমন জীবন রাখবো না। আজ তাই করলেন। বালিয়াডাঙ্গী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ কবীর বলেন, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের ছাগলডাঙ্গী গ্রাম থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ না থাকায় জাহানারা বেগমের লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।  
হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ৭০০ টন আলু আমদানি
হিলিতে চালের দাম বেশি, বিপাকে সাধারণ ক্রেতা
পাটগ্রামে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু
হিলিতে যাত্রীবাহী বাস থেকে এক কেজি কোকেন জব্দ
বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু 
ঈদুল ফিতর ও বাংলা নববর্ষের ছুটি শেষে সচল হয়েছে পঞ্চগড়ের চারদেশীয় বাংলাবান্ধা স্থলন্দর।  সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল থেকে বন্দরটির পণ্য আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সচল হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কুদরত ই খুদা মিলন। তিনি বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতর, শবে কদর ও বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে চতুর্দেশীয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর (বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান, নেপাল) বাংলাদেশের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপ ও বন্দর সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৮ এপ্রিল থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ রাখা ছিল। সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল থেকে স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম চালু হয়েছে। বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের শুল্ক স্টেশনের কর্মকর্তারা জানান, ঈদ উদযাপন উপলক্ষে স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও বন্দর সংশ্লিষ্ট সকল সেবা প্রদান অব্যাহত ছিল। বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের ব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঈদ ও বাংলা নববর্ষের ছুটি শেষে আজ সকাল থেকে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সচল হয়েছে।
হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু
ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে টানা ৬ দিন বন্ধ থাকার পর সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু হয়েছে।  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাহিলি সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোয়িয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জামিল হোসেন চলন্ত। তিনি বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে পাঁচ দিন এবং পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে একদিন মোট ৬ দিন বন্ধ থাকার পর আজ সকাল থেকে ভারত থেকে পণ্য আমদানি শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ থেকেও পণ্য রপ্তানি হচ্ছে।  এ বিষয়ে হিলি পানামা পোর্টের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন বলেন, পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেড সব সময় বন্দরের ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করে থাকে। আমরা বিশেষ করে পচনশীল পণ্যগুলো দ্রুত খালাস করতে আমদানিকারকদের সহযোগিতা করি। সোমবার সকাল ১১টা থেকে পণ্য আমদানি শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে ফিরেছে বন্দরের কর্মচাঞ্চল্যতা। 
কলেজে বিয়ে, মাঠে খাওয়া-দাওয়া
দিনাজপুরে বিরামপুর মহিলা কলেজের শ্রেণিকক্ষে বিয়ে করে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন নববিবাহিত এক দম্পতি। রোববার (১৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় আরিফুল-আঁখি দম্পতির বিয়ের অনুষ্ঠান কলেজে সম্পন্ন করা হয়।  জানা যায়, বর আরিফুল ইসলাম রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার শ্যামবাসেরপাড়া গ্রামের মোমিনুল ইসলামের ছেলে। আর কনে বিরামপুর পৌর শহরের পূর্ব জগন্নাথপুর মহল্লার আজাহার আলীর মেয়ে ফাতেমা বিনতে আজাহার ওরফে আঁখি। বিয়ে শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বরযাত্রীরা কনেকে গাড়িতে করে পীরগঞ্জে রওনা দেন। স্থানীয়রা জানান, বিরামপুর মহিলা কলেজের ১০১ নম্বর শ্রেণিকক্ষে বিয়ের মঞ্চ তৈরি করা হয়। যে মঞ্চে বর ও কনে বসেছিলেন। কলেজের মাঠে বরযাত্রী ও কনে পক্ষের অতিথিদের জন্য খাওয়াদাওয়ার আয়োজন করা হয়। যদিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শ্রেণিকক্ষ ও মাঠ কেন বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ব্যবহার করা হলো সেই বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি বর ও কনে পক্ষের কেউ। এ বিষয়ে কথা হয় বিরামপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মেজবাউল হকের সঙ্গে।  তিনি বলেন, ‘কনে আমাদের কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী। কলেজে ওই মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান করার জন্য মেয়ের বাবা আমাকে অনুরোধ করেছিলেন। এখন তো কলেজে ঈদের ছুটি। তাই বিয়ের জন্য কলেজের মাঠ ও কক্ষটি ব্যবহার করতে দেওয়া হয়েছে।’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিয়ের আসর বসানোর প্রসঙ্গে বিরামপুর মহিলা কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সোহেল রানা জানান, কলেজের শ্রেণিকক্ষ ও কলেজ চত্বরের ভেতরে বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছে, এমন তথ্য তার কাছে নেই।  তবে তিনি সাফ জানিয়ে দেন, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করার কোনো সুযোগ নেই।’ এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও নুজহাত তাসনীম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করা নীতিগতভাবে ঠিক নয়। কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরে খোঁজ নিয়ে বিষয়টি দেখব।’
হিলি স্থলবন্দর দিয়ে সোমবার থেকে আমদানি-রপ্তানি শুরু
ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে টানা ছয়দিন বন্ধ থাকার পর সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু হবে।  বাংলাহিলি সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোয়িয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জামিল হোসেন চলন্ত এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে পাঁচ দিন এবং পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে একদিন বন্ধ থাকার পর সোমবার সকাল থেকে ভারত থেকে পণ্য আমদানি শুরু হবে। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ থেকেও পণ্য রপ্তানি হবে। হিলি পানামা পোর্টের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন বলেন, পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেড সব সময় বন্দরের ব্যবসায়ীদের সহযোগীতা করে থাকেন। আমরা বিশেষ করে পচনশীল পণ্যগুলো দ্রুত খালাস করতে আমদানিকারকদের সহযোগিতা করি। সোমবার বন্দরের কর্মচাঞ্চল্যতা ফিরবে।
হিলি সীমান্তে বাংলা নববর্ষ পালিত
“মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা, অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা”- কবিগুরুর এই উক্তিকে মনে রেখে পুরাতনকে মুছে ফেলে নতুনকে গ্রহণ করতে দিনাজপুরের হিলি সীমান্তে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে বাংলা নববর্ষ ১৪৩১।  রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে বর্ষবরণ উপলক্ষে হিলি সীমান্তের হাকিমপুর উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণে করে একই স্থানে এসে শেষ হয়।  শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বর মঞ্চে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত রায়ের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথমে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ হারুন।  আরও উপস্থিত ছিলেন হাকিমপুর-হিলি পৌরসভার মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত, ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনুর রেজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারুল নাহার, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজেনা বেগম, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুলাল হোসেন, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সামছুল আলম, উপজেলা আ. লীগের সহসভাপতি সোহরাব হোসেন প্রতাপ, সহকারী শিক্ষা অফিসার হারুন অর রশিদ, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার গোলাম রব্বানী, প্রেস ক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বুলুসহ অনেকে। বর্ষবরণ উপলক্ষ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার বিতরণ করা হয়। বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে স্থানীয় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে চিত্রাংকন ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে হাকিমপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে নাগরদোলা, ঘোড়ার গাড়ি ও বিভিন্ন রকমের দোকান বসায় সব বয়সের ছেলে মেয়েরা আনন্দমুখর পরিবেশে নববর্ষ উদযাপন করেছেন। অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা লিপি আরা।
গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নারী নিহত
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে প্রাইভেটকারের সঙ্গে সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে সিএনজি আরোহী এক নারী যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সিএনজির আরও ৩ যাত্রী আহত হয়েছেন।  রোববার (১৪ এপ্রিল) বেলা ১১টায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের কুন্দেরপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নারীর পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। আহতদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, রোববার বেলা ১১টায় বগুড়ামুখী একটি প্রাইভেটকার কুন্দেরপাড়া এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই সিএনজি আরোহী এক নারী যাত্রী নিহত হন। আর আহত হন আরও ৩ যাত্রী।   দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবর রহমান। তিনি বলেন, আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বগুড়ায় পাঠানো হয়েছে। প্রাইভেট কার ও সিএনজি হাইওয়ে থানায় আটক রাখা হয়েছে। নিহত নারী যাত্রীর পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।