• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
বিশ্বকাপের ভাবনা থেকে বাদ পড়লেন যে দুই ওপেনার!
নিউজিল্যান্ড সিরিজে অনিশ্চিত বাবর আজম
বিশ্বকাপ ব্যর্থতায় অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর আবারও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব ফিরে পেয়েছেন বাবর আজম। নিউজিল্যান্ড সিরিজ দিয়ে শুরু হবে বাবরের দ্বিতীয় অধ্যায়। তবে এই সিরিজে বাবরকে বিশ্রামে রাখতে চান হেড কোচ আজহার মাহমুদ। বুধবার (১৭ এপ্রিল) গণমাধ্যমের সামনে এমনটিই বলেছেন পাকিস্তানের নতুন হেড কোচ। তিনি বলেন, আবর্তন কৌশলের অংশ হিসেবে বাবরকে বিশ্রাম দেয়া হতে পারে। তবে সিরিজের প্রথম থেকেই দলে থাকবেন শাহিন আফ্রিদি। বাবরকে বিশ্রামে পাঠানোর বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত নয় বলে জানিয়েছেন পাকিস্তান কোচ। অবস্থা বিবেচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।  আজহার বলেন, বাবর আজম বিশ্রামে থাকতে পারেন, তবে তা নির্ভর করবে পরিস্থিতির ওপর। সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় আমরা সব দিক দেখবো।’ এর আগে গুঞ্জন উঠে, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফিটনেস সমস্যার কারণে প্রথম দুটি ম্যাচে খেলতে পারবেন না শাহিন আফ্রিদি। তবে সেই গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন আজহার।  তিনি বলেন, শাহিন আফ্রিদি পুরোপুরি ফিট। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচ তিনি এড়িয়ে যেতে পারেন বলে খবর শুনেছি। তবে এটি গণমাধ্যম থেকে এসেছে এবং অবশ্যই এটি আমাদের কাছ থেকে আসেনি। এ ছাড়া ইমাদ ওয়াসিম ও মোহাম্মদ আমির অবসর ভেঙে পাকিস্তান দলের ফেরায় আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন আজহার। তিনি মনে করেন, পাকিস্তান দল এখন সবদিক থেকেই ভারসাম্যপূর্ণ। যে কারণে এই সিরিজ জয়ের আশা করছে পাকিস্তান।    
‘আইপিএল থেকে মোস্তাফিজের শেখার কিছু নেই, তার থেকেই সবাই শিখবে’
এশিয়া কাপ আয়োজন করতে পারবে না ভারত-পাকিস্তান!
ম্যাচ হেরে রেফারিকে কাঠগড়ায় তুললেন জাভি
এক ম্যাচে ৩১ গোল হজম করার অনুভূতি জানালেন গোলকিপার
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সাকে কাঁদিয়ে সেমিতে পিএসজি
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়াটার ফাইনালের প্রথম লেগে পিএসজির ঘরের মাঠে ৩-২ গোলে জিতেছিল বার্সেলোনা। তবে দ্বিতীয় লেগে সেই আত্মবিশ্বাস ধরে রাখতে পারেনি স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ঘরের মাঠে ফরাসি ক্লাবটির কাছে ৪-১ গোলের ব্যবধানে হেরেছে কাতালানরা। এতে বার্সেলোনাকে বিদায় করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে পিএসজি। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ঘরের মাঠে শুরুতে বার্সেলোনাকে এগিয়ে নেয় রাফিনিয়া। ২৮তম মিনিটে দারুণ সেভে ব্যবধান ধরে রাখেন মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন। বক্সের ভেতর থেকে এমবাপ্পের ডান পায়ের নিচু শট ফিরিয়ে দেন জার্মান গোলরক্ষক। পরের মিনিটেই বার্সেলোনার লাল কার্ডের ধাক্কা। বক্সের বাইরে বিপজ্জনক জায়গায় পিএসজির বারকোলাকে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন আরাউহো। মিনিট পাঁচেক পর রক্ষণে শক্তি বাড়াতে তরুণ ফরোয়ার্ড ইয়ামালকে তুলে ডিফেন্ডার ইনিগো মার্তিনেসকে নামান বার্সেলোনা কোচ জাভি। প্রতিপক্ষে এক জন কম থাকার সুযোগে চাপ বাড়ায় পিএসজি। ৪০তম মিনিটে তাদের ম্যাচে ফেরান দেম্বেলে। বাঁ দিক থেকে বারকোলার বাড়ানো বলে দূরের পোস্টে ডান পায়ের শটে গোলটি করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। ১-১ সমতায় থেকে বিরতিতে যায় দুই দল। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে গোল করতে মরিয়া হয়ে ওঠে সফরকারীরা। চাপ ধরে রেখে ৫৪তম মিনিটে আবার বার্সেলোনার জালে বল পাঠায় পিএসজি। বক্সের বাইরে থেকে জোরাল শটে গোলটি করেন ভিতিনিয়া। পরের মিনিটে অল্পের জন্য গোল পায়নি বার্সেলোনা। বক্সের বাইরে থেকে ইলকাই গিনদোয়ানের শট পোস্টের বাইরের দিকে লাগে। একটু পরই রেফারির একটি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে টাচলাইনে থাকা পানির বোতলে লাথি মারেন জাভি, কিছু একটা বলতে থাকেন রেফারিকে। বার্সেলোনা কোচকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। ৬১তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে স্কোরলাইন ৩-১ করেন এমবাপ্পে। জোয়াও কানসেলো বক্সে দেম্বেলেকে ফাউল করায় পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। দুই মিনিট পর প্রতিপক্ষের চ্যালেঞ্জে বক্সে পড়ে যাওয়ার পর পেনাল্টির আবেদন করেন গিনদোয়ান, তবে রেফারির সাড়া মেলেনি বরং রেফারির সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে হলুদ কার্ড দেখেন জার্মান মিডফিল্ডার। একই সঙ্গে ডাগআউটে বার্সেলোনার এক সাপোর্ট স্টাফ দেখেন লাল কার্ড। ম্যাচের বেশিরভাগ সময় নিষ্প্রভ থাকা রবের্ত লেভানদোভস্কি ৭৩তম মিনিটে গোল পেতে পারতেন। বক্সের বাইরে থেকে পোলিশ তারকার বাঁ পায়ের নিচু শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক জানলুইজি দোন্নারুম্মা। ৮৯তম মিনিটে ডাবল সেভ করেন টের স্টেগেন। মার্কো আসেন্সিওর শট ঠেকানোর পর এমবাপের প্রচেষ্টাও রুখে দেন তিনি। তবে বল ক্লিয়ার করতে পারেননি বার্সেলোনার ডিফেন্ডাররা। কাছ থেকে শটে ম্যাচের শেষ গোল করেন এমবাপ্পে। দুই লেগ মিলিয়ে বার্সেলোনাকে ৬-৪ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে সেমির টিকিট নিশ্চিত করেছে ফরাসি ক্লাবটি।
রাজস্থানকে ২ উইকেটের শ্বাসরুদ্ধকর জয় এনে দেন বাটলার
রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ম্যাচে বিরাট কোহলির সেঞ্চুরিকে ম্লান করে ৬ এপ্রিল নায়ক হয়েছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের জস বাটলার। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটালেন তিনি। এবার কলকাতা নাইট রাইডার্সের সুনিল নারিনের সেঞ্চুরিকে বিফল করে দিলেন বাটলার। নারিনের সেঞ্চুরির সুবাদে কলকাতার ৬ উইকেটে ২২৩ রান করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। জবাবে পাল্টা শতক হাঁকিয়ে রাজস্থানকে ২ উইকেটের শ্বাসরুদ্ধকর জয় এনে দেন বাটলার। ৬০ বলে করেন ১০৭ রানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি। প্রথমে ইডেন গার্ডেনসে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুর ঝড় তোলেন নারিন। রাজস্থানের বোলারদের তুলোধুনো করে ঝড়ো ব্যাটিং এ সেঞ্চুরি তুলে নেন ক্যারিবীয় এই ব্যাটার। ৫৬ বলে করেন ১০৯ রান। ১৩ বাউন্ডারির সঙ্গে মারেন ৬টি ছক্কা। এছাড়া আংক্রিস রঘুভানশী ১৮ বলে করেন ৩০ রান। যার ফলে ২২৩ রানের বড় স্কোর দাঁড়ায় কলকাতার। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ঝোড়ো ব্যাটিং করেন বাটলার। নিজের কবজায় রাখেন চলতি আইপিএলের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। ৯ বাউন্ডারি আর ৬ ছক্কার মারে ১০৭ রানের ইনিংসে ছিল তার। শেষ দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন রাজস্থান রয়্যালসের জস বাটলার। বাটলারকে সঙ্গে রিয়ান পরাগ পেয়েছেন ৩৪ রান ও রভমান পাওয়েল পেয়েছেন ২৬। 
৫০৪তম ম্যাচে নারাইনের প্রথম সেঞ্চুরি
ক্যারিয়ারের ৫০৪তম ম্যাচে নিজের শতকের দেখা পেয়েছেন ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার সুনিল নারিন।  মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ইডেন গার্ডেনসে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ৫৬ বলে ১০৯ রানের বিধ্বংসী এক ইনিংস খেলেছেন তিনি। এদিন ৫৬ বলে ১০৯ রানের ইনিংসে ১৩টি চার আর ৬টি ছক্কা হাঁকান নারিন। রান করেছেন ১৮৭.৭৫ স্ট্রাইকরেটে। ইডেন গার্ডেনে কলকাতার কোনো ব্যাটারের এটিই প্রথম সেঞ্চুরি। নারিনের সেঞ্চুরিতে ভর করেই ৬ উইকেটে ২২৩ রানের পাহাড়সম সংগ্রহ গড়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। অর্থাৎ জিততে হলে রাজস্থান রয়্যালসকে করতে হবে ২২৪। মঙ্গলবার রাজস্থান রয়্যালসের আভেশ খান আর কুলদ্বীপ সেন নিয়েছেন দুটি করে উইকেট।  
ভারত সিরিজের জন্য বাংলাদেশের দল ঘোষণা
চলতি মাসেই পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসছে ভারতীয় নারী ক্রিকেট দল। সিরিজটির জন্য দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করে বিসিবি। সিরিজটির জন্য নতুন করে দলে ডাক পেয়েছেন হাবিবা ইসলাম পিংকি। সিলেটে অনুষ্ঠিত সিরিজটি খেলতে আগামী ২৩ এপ্রিল বাংলাদেশে এসে পৌঁছাবে ভারত দল। এরপর ২৮ এপ্রিল প্রথম টি-টোয়েন্টি দিয়ে লড়াই শুরু হবে। সিরিজের প্রথম দুটি ও শেষ ম্যাচটি দিবারাত্রির হলেও  তৃতীয় ও চতুর্থ ম্যাচ দুটি বেলা ২টায় শুরু হবে। বাংলাদেশ স্কোয়াড : নিগার সুলতানা জ্যোতি (অধিনায়ক), নাহিদা আক্তার, মারুফা আক্তার, মর্শিদা খাতুন, সোবহানা মুস্তারি, স্বর্ণা আক্তার, রিতু মনি, সুলতানা আক্তার, রাবেয়া খান, ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণা, শরিফা খাতুন, দিলারা আক্তার, ফাহিমা খাতুন, রুবায়া হায়দার ঝিলিক, হাবিবা ইসলাম পিংকি। অতিরিক্ত– সুমাইয়া আক্তার, নিশিতা আক্তার।  
যেসব মাইলফলক স্পর্শ করলো হায়দ্রাবাদ-বেঙ্গালুরু ম্যাচ
চলতি আইপিএলের ৩০তম ম্যাচে হায়দ্রাবাদের মুখোমুখি হয়েছিল বেঙ্গালুরু। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৫৪৯ রান আইপিএলের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এবং সেই সঙ্গে এক ম্যাচে ৮১টি বাউন্ডারির মাইলফলকও স্পর্শ করেছে এদিন। তবে শেষ পর্যন্ত ২৫ রানে হেরে গেছেন বিরাট কোহলিরা। প্রথম ইনিংসে আইপিএলের ইতিহাসে রেকর্ড সর্বোচ্চ ২৮৭ রান করে হায়দ্রাবাদ। ৪৯ বলে ৯টি চার আর ৮টি ছক্কায় সেঞ্চুরি করেন অস্ট্রেলিয়ান তারকা ট্রাভিস হেড। ৩১ বলে ৬৭ রান করেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান হেইনরিচ ক্লাসেন। মাত্র ১০ বলে ৩৭* রান করেন আবদুল সামাদ। ১৭ বলে ৩২ রান করেন এইডেন মার্করাম। বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেটে ২৬২ রান করে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। দলের হয়ে ৩৫ বলে ৫টি চার আর ৭টি ছক্কায় ৮৩ রান করেন দীনেশ কার্তিক। ২৮ বলে ৭টি চার আর ৪টি ছক্কায় ৬২ রান করেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি। ২০ বলে ৪২ রান করে ফেরেন সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি।  এই ম্যাচে ৪০ ওভারে দুই দল মিলে ৩৮টি ছক্কা আর ৪৩টি চার মিলে টি-টোয়েন্টিতে রেকর্ড ৮১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৪৯ রান করে; যা আইপিএলের ইতিহাসে রেকর্ড। এর আগে আসরের অষ্টম ম্যাচে হায়দ্রাবাদের রাজিব গান্ধী স্টেডিয়ামে হায়দ্রাবাদের মুখোমুখি হয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। সেই ম্যাচে দুই দল মিলে ৩৮টি ছক্কার বিশ্বরেকর্ড গড়ে ৫২৩ রান করে;যা টি-টোয়েন্টিতে কোনো ম্যাচ সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ছিল। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ছক্কার আগের রেকর্ডটি হয়েছিল আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগে। ২০১৮ সালে বালখ লেজেন্ডস ও কাবুল জাওয়ানানের ম্যাচে হয়েছিল ৩৭টি ছক্কা। আর আইপিএলে এক ম্যাচে আগে সবচেয়ে বেশি ছক্কা ছিল ৩৩টি। আইপিএলে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ৬৯টি বাউন্ডারির রেকর্ডও হয়েছে হায়দ্রাবাদ-মুম্বাইয়ের ম্যাচটিতে। এই ম্যাচে বাউন্ডারি হয়েছে ৬৯টি। এর আগে ২০১০ সালে চেন্নাই ও রাজস্থানের ম্যাচটিতেও হয়েছিল সমান সংখ্যক বাউন্ডারি। তবে সোমবার হায়দ্রাবাদ-বেঙ্গালুরু ম্যাচে ৮১টি বাউন্ডারির বিশ্ব রেকর্ড হয়। চার-ছক্কা থেকে আইপিএলে সবচেয়ে বেশি রান হয়েছে এই ম্যাচে ৪০০ রান। এর আগে গত ১৭ মার্চ হায়দ্রাবাদ-মুম্বাই ম্যাচে বাউন্ডারি থেকে আসে ৩৫২ রান। 
বাংলাদেশের নতুন স্পিন কোচ পাকিস্তানের মুশতাক
বাংলাদেশ জাতীয় দলের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক লেগ স্পিনার ও বিশ্বকাপজয়ী মুশতাক আহমেদ। জানা গেছে, তিনি এই মাসের শেষের দিকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রস্তুতি ক্যাম্পের আগে দলের সাথে যোগ দেবেন এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং যুক্তরাষ্ট্রে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সাথে কাজ করবেন। মুশতাক আহমেদ বলেন, স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অংশ হতে পারাটা আমার জন্য অনেক গর্বের। আমি এই ভূমিকার জন্য উন্মুখ এবং আমার অভিজ্ঞতা খেলোয়ারদের দিতে চাই, কারণ তারা খুব কোচযোগ্য এবং আমি সবসময় বিশ্বাস করি যে তারা বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক দলগুলির মধ্যে একটি। তারা যে কাউকে হারাতে পারে কারণ তাদের সামর্থ্য, সম্পদ এবং প্রতিভা রয়েছে। আমি চেষ্টা করব তাদের মধ্যে সেই বিশ্বাস জাগিয়ে তুলতে। দলের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি খুবই উচ্ছ্বসিত।  প্রসঙ্গত, ২০০৮ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের এবং ২০১৮ ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিন বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন ৫৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।  
বেঙ্গালুরুকে বেচে দেওয়ার আহ্বান জানালেন ভূপতি
চলতি আইপিএলে হারের বৃত্তে আটকে পড়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। এখন পর্যন্ত সাত ম্যাচ খেলে ৬টিতেই হেরে গেছেন বিরাট কোহলি-ফাফ ডু প্লেসিসরা। এর মধ্যে শেষ পাঁচ ম্যাচের সবকয়টিতেই হারের মুখ দেখতে হয়েছে তাদের। এ নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন সমর্থকরা।  ভারতের সাবেক টেনিস তারকা ও ডাবলসে ১১টি গ্র্যান্ডস্ল্যামজয়ী মহেশ ভূপতি তো বিরক্ত হয়ে বেঙ্গালুরুকে বেচে দেওয়ার আহ্বান পর্যন্ত জানিয়েছেন। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পোস্টে এমন মন্তব্য করেনে তিনি।  পোস্টে ভূপতি লিখেছেন, বিসিসিআইয়ের উচিত ক্রিকেট, আইপিএল, সমর্থক ও খেলোয়াড়দের স্বার্থে আরসিবিকে অন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজির হাতে তুলে দেওয়া। যে মালিক অন্য দলগুলোর মতো একটি স্পোর্টস ফ্র্যাঞ্চাইজি গড়ে তুলবে। বেঙ্গালুরুর জার্সিতে এবারও খেলছেন ভারতের অন্যতম সেরা ব্যাটার বিরাট কোহলি। আছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ফাফ ডু প্লেসিসের মতো বিধ্বংসী ব্যাটারও। বোলিং বিভাগও কাগজে-কলমে বেশ শক্তিশালী। কিন্তু মাঠের খেলায় চিত্রটা ভিন্ন। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে বেশ উজ্জ্বল হলেও দলগত সাফল্য অধরাই থেকে গেছে তাদের।  দলটির এমন অবস্থা দেখে ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্লেষক মাইকেল ভন বলেন, ক্রিকেট যে একা খেলা যায় না, বেঙ্গালুরুই তার প্রমাণ। কেউ চাইলে সেরা ক্রিকেটারদের কিনতেই পারে। কিন্তু সেটা করলেই যে ম্যাচ জেতা যায় না, বেঙ্গালুরু তা প্রমাণ করে দিয়েছে।