• ঢাকা বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
logo
নেপালে ১৯ আরোহী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৫
বাংলাদেশে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তরের প্রতিক্রিয়া 
বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকালে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও সহিংসতার ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন। চলমান পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে দপ্তরটির পক্ষ থেকে।   যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগনের মুখপাত্র মেজর জেনারেল প্যাট রাইডার। এদিনের ব্রিফিংয়ে এক সাংবাদিক বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন এবং তাদের ওপর হামলা-সহিংসতার জেরে সৃষ্ট পরিস্থিতির বিষয়ে জানতে চান তার কাছে। ওই সাংবাদিকের প্রশ্ন ছিল, বাংলাদেশের ছাত্র বিক্ষোভকে কীভাবে পর্যবেক্ষণ করছে পেন্টাগন? আন্দোলনে শত শত মানুষ নিহত ও আরও হাজার হাজার মানুষ আহত হয়েছেন। ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং দেশব্যাপী কারফিউ জারি করা হয়েছে। জবাবে পেন্টাগনের মুখপাত্র মেজর জেনারেল প্যাট রাইডার বলেন, হ্যাঁ। অবশ্যই। অবশ্যই আমরা সেখানে (বাংলাদেশে) চলমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টে আমার সহকর্মীরা যা বলেছে, আমিও সেটির প্রতিধ্বনি করতে চাই। আমরা সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি এবং অবশ্যই আমরা অব্যাহত সহিংসতা দেখতে চাই না। তিনি বলেন, আমরা স্পষ্টতই সহিংসতার বৃদ্ধি দেখতে চাই না। আমরা অবশ্যই বাংলাদেশে শান্তি ও স্থিতিশীলতা এবং মানবাধিকার মেনে চলার বিষয়টি দেখতে চাই।
নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বাইডেন
ইথিওপিয়াতে ভয়াবহ ভূমিধস, নিহত ২২৯ 
বাংলাদেশ ভ্রমণে উচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ কানাডার
নিজ দেশের নাগরিকদের বাংলাদেশ ভ্রমণে সতর্ক করল যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া
আজ নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মবার্ষিকী
আজ ১৮ জুলাই, বর্ণবিরোধী আন্দোলনের পুরোধা নেলসন ম্যান্ডেলার ৯১তম জন্মদিন৷ জোহানেসবার্গে তার ভক্তরা দিনটি উদযাপন করছেন মহাসমারোহে৷ চেষ্টা করছেন তার মতো হওয়ার জন্য৷ শনিবার সকালটা ম্যান্ডেলা জোহানেসবার্গে তার পরিবারের সদস্যদের সাথে কাটান৷ এসময় তার বর্তমান স্ত্রী গ্রাসা মাচেল এবং সাবেক স্ত্রী উইনি ম্যাডিকিজেলা ম্যান্ডেলা উভয়েই তাকে সঙ্গ দেন৷ এছাড়া, ৯১তম জন্মবার্ষিকীতে তার বাসবভনে এসে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন দক্ষিণ আফ্রিকার বর্তমান প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমাসহ আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেসের নেতৃবৃন্দ৷ ম্যান্ডেলা তার জন্মদিনে মানুষকে ভালো কিছু করে সময় অতিবাহিত করার আহ্বান জানান৷ প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা ম্যান্ডেলার ৯১তম জন্ম বার্ষিকীতে ম্যান্ডেলার পদাংক অনুসরণের ইচ্ছা ব্যক্ত করেছেন৷ এই উপলক্ষ্যে এক বার্তায় জুমা বলেন, আপনি এখন অবসরে বেশ নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন যে, আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেসের মাধ্যমে দেশ এখন ভালোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে৷ আমরা সর্বদা আপনার উদাহরণ অনুসরণ করবো৷ শনিবার ম্যান্ডেলা দিবসের বার্তায় জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন নেলসন ম্যান্ডেলাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান৷ বান কি মুন নেলসন ম্যান্ডেলার ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ঐ বার্তায় ম্যান্ডেলাকে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ মূল্যবোধের এক জীবন্ত প্রতীক হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন৷ এই দিনের স্মরণে জাতিসংঘের উদ্যোগে একটি আন্তর্জাতিক দিবস পালনেরও আশা ব্যক্ত করেন বান কি মুন৷ নেলসন ম্যান্ডেলা ২৪ বছর বয়সে রাজনীতিতে আসার পর থেকে দীর্ঘ ৬৭ বছর মানব সেবায় রত আছেন৷ সমাজসেবায় তার এই ৬৭ বছরের কথা মাথায় রেখে ম্যান্ডেলার অনুরোধে শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বস্তরের মানুষ কমপক্ষে ৬৭ মিনিট সময় পরহিতকর কাজে ব্যয় করছেন৷ বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের জীবন্ত কিংবদন্তি ম্যান্ডেলা দীর্ঘ ২৭ বছর কারাগারে অতিবাহিত করেন৷ ১৯৯৩ সালে তিনি নোবেল শান্তি পুরস্কার লাভ করেন৷ ১৯৯৪ সালে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম বহুদলীয় গণতান্ত্রিক নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন৷ মাত্র এক মেয়াদে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনের পর ১৯৯৯ সালে তিনি ক্ষমতা থেকে সরে আসেন৷ এরপর থেকে ম্যান্ডেলা বিভিন্ন পর্যায়ে সেবামূলক কাজে রত আছেন৷ ম্যান্ডেলার প্রতিষ্ঠিত দাতা সংস্থাগুলো আজ তাদের বাৎসরিক কর্মসূচির উদ্বোধন করেছে৷ যার মধ্যে রয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় অন্ধদের সহায়তা করা, গৃহহীনদের কম্বল বিতরণ ছাড়াও এইডস আক্রান্ত এতিমদের সাহায্য করা৷ দক্ষিণ আফ্রিকায় নেওয়া অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে দরিদ্র শিশুদের জন্যে কাপড় সংগ্রহ এবং জোহানেসবার্গের কেন্দ্রস্থলে আগ্নিকাণ্ডের ফলে গৃহহীন মানুষদের জন্যে একটি ভবন নির্মাণ কর্মসূচি৷ এছাড়া, ম্যান্ডেলার এইডস ফাউন্ডেশনের জন্য অর্থ সংগ্রহে নিউ ইয়র্কে আজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশেষ কনসার্ট৷ সেখানে স্টেভি অন্ডার, এ্যালিসিয়া কিজ, এ্যারেথা ফ্রাংকলিন এবং ফ্রান্সের ফাস্ট লেডি কার্লা ব্রুনি সারকোজি অংশ নিচ্ছেন৷
ওমানে শিয়া মসজিদে বন্দুক হামলায় নিহত বেড়ে ৯, আইএসের দায় স্বীকার
মধ্যপ্রাচ্যের উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশ ওমানের রাজধানী মাস্কাটে শিয়া মসজিদে গত সোমবারের বন্দুক হামলায় নিহত বেড়ে ৯ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৮ জন। আহতদের মধ্যে ওমানসহ বিভিন্ন দেশেল নাগরিকরা রয়েছেন। আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। নিহতদের মধ্যে ৪ জন পাকিস্তান, একজন ভারতীয় এবং ওমান পুলিশের একজন কর্মকর্তা রয়েছেন।  এক প্রতিবেদনে রয়টার্স জানিয়েছে, সোমবার মাস্কাটের ওয়াদি আল কবির এলাকার আলী বিন আবি তালিব মসজিদে সোমবার এশার নামাজ চলাকালে হঠাৎ এলোপাতাড়ি গোলাগুলি শুরু হয়। ওমানে গতকাল মঙ্গলবার ছিল ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের বিশেষ দিন আশুরা। শিয়া মতাবলম্বী মুসলিমরা বিভিন্ন ধর্মীয় আচারের মাধ্যমে এই দিনটিকে স্মরণ করেন। সুন্নি ও ইবাদি মুসলিম অধ্যুষিত ওমানের সংখ্যালঘু শিয়া মুসলিমদের সবচেয়ে বড় উপাসনালয় মাস্কাটের আলী বিন আবি তালিব মসজিদ। আশুরার আগের রাত হওয়ায় মঙ্গলবার এশার নামাজের সময় আলী বিন আবি তালিব মসজিদে মুসল্লিদের সমাগম বেশি ছিল। সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার ভোর পর্যন্ত মসজিদটিতে পুলিশ এবং আইএসের বন্দুকধারীদের গোলাগুলি চলে। এ সময় আইএসের তিন হামলাকারী নিহত হন। এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে হামলার ভিডিও পোস্ট করে আইএস বলেছে, তাদের ‘সুইসাইড’ স্কোয়াডের তিন সদস্য এই হামলা চালিয়েছিল। এই হামলার প্রতিক্রিয়ায় দেশটিতে নিয়োজিত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত ইমরান আলী হাসপাতালে হতাহতদের পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘এটা খুবই অনাকাঙ্ক্ষিত একটি ঘটনা। ওমানের ইতিহাসে এমন ঘটনা কখনো ঘটেছে বলে আমাদের জানা নেই।’  
কোটা আন্দোলনে সহিংসতা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাল জাতিসংঘ
বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে চলমান আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা ও সহিংসতার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের পর এবার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে জাতিসংঘ।  প্রতিক্রিয়ায় কোটা আন্দোলনকারীদের প্রতি সমর্থন জানানোর পাশাপাশি সহিংস হামলা থেকে শিক্ষার্থীদের রক্ষার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছে সংস্থাটি।  বাংলাদেশে চলমান ঘটনাপ্রবাহ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে জাতিসংঘ বলছে, মানুষের শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করার অধিকার আছে এবং সরকারকে সেই অধিকার রক্ষা করতে হবে। বুধবার (১৭ জুলাই) জাতিসংঘের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক। এদিনের ব্রিফিংয়ে এক সাংবাদিক স্টিফেন ডুজারিকের সামনে প্রশ্ন রাখেন, বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে তথাকথিত কোটা পদ্ধতির পরিবর্তে মেধাভিত্তিক নিয়োগ ব্যবস্থার দাবিতে দেশব্যাপী বিক্ষোভ চলছে। সরকারের সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীগ ও পুলিশ আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। হামলায় শিক্ষার্থীসহ ছয়জন নিহত হয়েছেন। জাতিসংঘের মহাসচিব কি এই পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত আছেন? জবাবে ডুজারিক বলেন, হ্যাঁ। আমরা বাংলাদেশে চলমান পরিস্থিতি সম্পর্কে খুব ভালোভাবে অবগত আছি। আমরা উদ্বেগের সঙ্গে সার্বক্ষণিক পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছি। জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র আরও বলেন, আমি মনে করি- বাংলাদেশে হোক বা বিশ্বের অন্য কোথাও, মানুষের শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করার অধিকার রয়েছে এবং যেকোনো ধরনের হুমকি বা সহিংসতা থেকে শিক্ষার্থীদের রক্ষা করার জন্য আমরা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই। বিশেষ করে যুবক বা শিশু বা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মতো যাদের অতিরিক্ত সুরক্ষার প্রয়োজন হতে পারে, যেন তারা শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ করতে পারে। প্রসঙ্গত, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে দেড় সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সবশেষ গত রোববার এ আন্দোলন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর এক প্রতিক্রিয়ার প্রেক্ষিতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে আন্দোলনকারীরা। রোববার রাত থেকে তীব্র প্রতিবাদ শুরু করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরদিন সোমবার দুপুর থেকে আবারও বিক্ষোভ শুরু হলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংস্কারপন্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় ছাত্রলীগ। বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত থেমে থেমে চলা সংঘর্ষে তিন শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হন। রাত ১০টার পর আন্দোলনকারীরা নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন এবং সারা দেশের সব পর্যায়ের শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষকে তাদের সমর্থনে রাস্তায় নামার আহ্বান জানান। এরপর মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে রাজধানীর ১৫ থেকে ২০টি স্থানে একযোগে সড়ক অবরোধ শুরু করেন বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। অবরোধে গোটা রাজধানী অচল হয়ে পড়ে। পাশাপাশি চট্টগ্রাম, রাজশাহী, রংপুর, বগুড়াসহ দেশের প্রায় সর্বত্র শিক্ষার্থীরা সড়কে নেমে আসেন। দুপুরের পর থেকে ঢাকার সায়েন্সল্যাব ও চানখারপুল এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন স্থানে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগ ও পুলিশের সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রংপুরে ছয়জন নিহত হয়েছেন। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পরে রাজধানী ঢাকাসহ চার জেলায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়।  
কোটা সংস্কার আন্দোলন / দুজন নিহতের অভিযোগ, বিভ্রান্ত মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর
কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেছেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে যেকোনো সহিংসতার নিন্দা জানাই। এই ছাত্র সহিংসতায় যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তাদের নিয়ে আমরা চিন্তিত।’  সোমবার (১৫ জুলাই) মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার এসব কথা বলেছেন। ম্যাথিউ মিলার বলেন, মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশ যেকোনো বিকাশমান গণতন্ত্রের অপরিহার্য অংশ। আমরা ঢাকা এবং বাংলাদেশের আশেপাশে ব্যাপক ছাত্র বিক্ষোভের রিপোর্ট পর্যবেক্ষণ করছি যাতে, হামলা, দুজন নিহত এবং শত শত আহত হওয়ার খবর রয়েছে। যদিও বর্তমান ছাত্র বিক্ষোভের সময় কোনো মৃত্যুর বিষয়ে বাংলাদেশের মিডিয়া বা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছ থেকে কোনো রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। এটি সামাজিকমাধ্যমে ছড়ানো গুজব কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। এর আগে, সোমবার কোটাবিরোধী আন্দোলনকে রাষ্ট্র ও সরকারবিরোধী আন্দোলনে পরিণত করার চেষ্টা চলছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ  বলেছেন, তরুণ শিক্ষার্থীদের আবেগকে কাজে লাগিয়ে সরকার কাউকে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেবে না।  পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার দেশে ‍বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে দেবে না। এই সরকার খুবই শক্তিশালী। তরুণ শিক্ষার্থীদের আবেগ নিয়ে খেলা করে কোনো রাজনৈতিক অপশক্তিকে দেশকে অস্থিতিশীল করতে দেওয়া হবে না। তিনি আরও বলেন, রোববার রাতে কোটা আন্দোলনের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রবিরোধী স্লোগান দেওয়া হয়। ১৯৭১ সালে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীনতা লাভ করেছে। এখানে রাজাকারদের পক্ষে স্লোগান দেওয়া রাষ্ট্রবিরোধী। এটা পরিষ্কার যে বিএনপি ও জামায়াতসহ রাজনৈতিক অপশক্তি কোটা আন্দোলনে ঢুকে পড়েছে, যারা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায় এবং তাদের কিছু ভাড়া করা লোক এতে নেতৃত্ব দিচ্ছে।
কানে ব্যান্ডেজ বেঁধে দলীয় সভায় ট্রাম্প
রিপাবলিকানদের কনভেনশনে কানে ব্যান্ডেজ বেঁধে মঞ্চে ওঠেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। সোমবার সকাল নয়টায় আরএনসি-তে বেসবল গ্রাউন্ডে পৌঁছান ট্রাম্প। সেখানেই রিপাবলিকানদের কনভেনশন চলছিল। এ সময় কনভেনশনে নিজের ভাইস প্রেসিডেন্ট জেডি ভ্যানসের নাম ঘোষণা করেন তিনি।  এর আগে, রোববারের সমাবেশে তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। গুলি ট্রাম্পের কান ঘেঁসে বেরিয়ে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে সমাবেশ থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এদিন দর্শকদের উদ্দেশ্যে হাত মুঠো করে জয়ের অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে দেখা যায় ট্রাম্পকে। মঞ্চ থেকে ঘোষণা করা হয়, ট্রাম্প দেশের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ছিলেন এবং সম্ভাব্য ৪৭তম প্রেসিডেন্ট। বাইডেনের আহ্বান এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জানিয়েছেন, আগামী সেপ্টেম্বরে ট্রাম্পের সঙ্গে দ্বিতীয়বার বিতর্কে অংশ নিতে চান তিনি। এনবিসি চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেছেন বাইডেন। সম্প্রতি ট্রাম্পের সঙ্গে সিএনএন চ্যানেলে প্রথম বিতর্কসভায় যোগ দিয়েছিলেন বাইডেন। আর সেই সভা ঘিরে বিতর্কের ঝড় উঠেছে। বাইডেন শারীরিকভাবে কতটা সুস্থ, তা নিয়ে খোদ ডেমোক্র্যাটদের মধ্য থেকেই প্রশ্ন উঠেছে। অভিযোগ, বাইডেন ওই বিতর্কসভায় সব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি। কথা বলতে বলতে তিনি ঘুমিয়ে পড়ছিলেন। শুধু তা-ই নয়, তাকে দিশেহারা দেখাচ্ছিল। বাইডেন অবশ্য দাবি করেছেন, তিনি লম্বা সফর থেকে ফিরে ওই সভায় যোগ দিয়েছিলেন। তা-ই তার ঘুম পাচ্ছিল। অনেকগুলি টাইম জোন পার করে তিনি সেখানে পৌঁছেছিলেন। কিন্তু বিতর্ক তার পিছু ছাড়ছে না। ডনাল্ড ট্রাম্প নিজের সভায় অভিনয় করে দেখাচ্ছেন, বাইডেন সেদিন কতটা দিশেহারা ছিলেন। এই পরিস্থিতির মধ্যেবাইডেন এদিন জানিয়েছেন, এক কোটি ৪০ লাখ ডেমোক্র্যায়াট তাকে ভোট দিয়েছেন প্রাইমারিতে। সুতরাং এমন ভাবার কারণ নেই যে তার প্রতি মানুষের সমর্থন নেই। বাইডেনকে এদিনের সাক্ষাৎকারে প্রশ্ন করা হয়, তিনি ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্কের রেকর্ডিং দেখেছেন কি না। বাইডেন জানিয়েছেন, পুরোটা না দেখলেও কিছু কিছু অংশ তিনি দেখেছেন।
বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটা সংস্কার আন্দোলন
টানা বেশ কয়েক দিন ধরে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। এতদিন এই আন্দোলন শান্তিপূর্ণভাবে চললেও সোমবার (১৫ জুলাই) ছাত্রলীগ হামলা চালালে তা সহিংসতায় রূপ নেয়। ঢাকা, জাহাঙ্গীরনগর, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়সহ আরও বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ আন্দোলন নিয়ে শুরু থেকে বাংলাদেশি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার হয়ে আসলেও গতকাল সোমবার সহিংস রূপ ধারণ করলে বিশ্ব গণমাধ্যম জোর দিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ শুরু করে। সোমবার (১৫ জুলাই) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনার পরপরই ‘সরকারি চাকরিতে কোটার প্রতিবাদে আহত অন্তত ১০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করেছে আলজাজিরা। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটির খবরে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগপন্থী ও সরকারি চাকরিতে কোটাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সহিংস সংঘর্ষে অন্তত ১০০ জন আহত হয়েছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, সরকারি চাকরিকে কোটা পদ্ধতির অবসানের দাবিতে আন্দোলনকারী ও ক্ষমতাসীন দলের অনুগতদের মধ্যে সংঘর্ষে সোমবার সারা বাংলাদেশে ১০০ জনের বেশি শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থাটি। গত জানুয়ারির নির্বাচনে জয়ী হয়ে টানা চতুর্থ মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর এবারই প্রথমবারের মতো বড় ধরনের বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ঢাকাসহ সারাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজার হাজার কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী এবং আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠনের সদস্যরা সংঘর্ষে জড়িয়েছেন। এ সময় তারা একে অন্যের ওপর ঢিল ছোড়া, লাঠিসোঁটা ও লোহার রড নিয়ে চড়াও হয়েছে। এতে বেশ কয়েকটি ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীরা আহত হয়েছে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তারপরও দাবি আদায়ে সারাদেশে মিছিল ও বিক্ষোভ অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। এদিকে, চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে পাঁচ দিন আগে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম বিবিসি। সেখানে বলা হয়, বাংলাদেশের হাজার হাজার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন। তারা বলছেন, বর্তমান কোটা ব্যবস্থা বৈষম্যমূলক এবং তা সংস্কার করে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের দাবি করছেন তারা। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা নিয়ে প্রতিবেদন করেছে তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু। বার্তা সংস্থাটি বলছে, সোমবার বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সরকারি চাকরিতে কোটা নিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ক্ষমতাসীন দলের অনুগত বিক্ষোভকারীদের পাল্টাপাল্টিতে শত শত মানুষ আহত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের প্রতিবাদে হাজার হাজার শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে জড়ো হলে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি ইউনিটের কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেছেন, ২৫০ জন শিক্ষার্থী চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের মধ্যে ১১ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  এ ছাড়া জাহাঙ্গীরনগর, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেটসহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেও সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। ঢাকার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও এ বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন। কোটা আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আসিফ মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের হামলায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।  তবে ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন দাবি করেছেন, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের হামলায় তাদের শতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।
জম্মু-কাশ্মীরে গোলাগুলিতে ভারতীয় মেজরসহ চার সেনা নিহত
ভারতের জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গোলাগুলিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক মেজরসহ চার সেনা নিহত হয়েছেন। সোমবার (১৫ জুলাই) জম্মু-কাশ্মীরের দোদা জেলায় গোলাগুলির এ ঘটনাটি ঘটে। খবর এনডিটিভির। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি জানায়, সন্ত্রাসীদের উপস্থিতির সুনির্দিষ্ট তথ্য পেয়ে দোদা জেলার দেসায় সোমবার যৌথ অভিযান চালায় ভারতের সেনাবাহিনী ও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ। রাত ৯টার দিকে যৌথ বাহিনী সন্ত্রাসীদের মুখোমুখি হলে তুমুল গোলাগুলি শুরু হয়। গত সপ্তাহেও জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়ায় অভিযান চালাতে গিয়ে নিহত হয়েছেন পাঁচজন সেনা। প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ অঞ্চলে অভিযানে গিয়ে গত ৩২ মাসে ৪৮ ভারতীয় সেনা প্রাণ হারিয়েছেন।