• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
বিশ্বকাপের ভাবনা থেকে বাদ পড়লেন যে দুই ওপেনার!
নিউজিল্যান্ড সিরিজে অনিশ্চিত বাবর আজম
বিশ্বকাপ ব্যর্থতায় অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর আবারও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব ফিরে পেয়েছেন বাবর আজম। নিউজিল্যান্ড সিরিজ দিয়ে শুরু হবে বাবরের দ্বিতীয় অধ্যায়। তবে এই সিরিজে বাবরকে বিশ্রামে রাখতে চান হেড কোচ আজহার মাহমুদ। বুধবার (১৭ এপ্রিল) গণমাধ্যমের সামনে এমনটিই বলেছেন পাকিস্তানের নতুন হেড কোচ। তিনি বলেন, আবর্তন কৌশলের অংশ হিসেবে বাবরকে বিশ্রাম দেয়া হতে পারে। তবে সিরিজের প্রথম থেকেই দলে থাকবেন শাহিন আফ্রিদি। বাবরকে বিশ্রামে পাঠানোর বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত নয় বলে জানিয়েছেন পাকিস্তান কোচ। অবস্থা বিবেচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।  আজহার বলেন, বাবর আজম বিশ্রামে থাকতে পারেন, তবে তা নির্ভর করবে পরিস্থিতির ওপর। সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় আমরা সব দিক দেখবো।’ এর আগে গুঞ্জন উঠে, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফিটনেস সমস্যার কারণে প্রথম দুটি ম্যাচে খেলতে পারবেন না শাহিন আফ্রিদি। তবে সেই গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন আজহার।  তিনি বলেন, শাহিন আফ্রিদি পুরোপুরি ফিট। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচ তিনি এড়িয়ে যেতে পারেন বলে খবর শুনেছি। তবে এটি গণমাধ্যম থেকে এসেছে এবং অবশ্যই এটি আমাদের কাছ থেকে আসেনি। এ ছাড়া ইমাদ ওয়াসিম ও মোহাম্মদ আমির অবসর ভেঙে পাকিস্তান দলের ফেরায় আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন আজহার। তিনি মনে করেন, পাকিস্তান দল এখন সবদিক থেকেই ভারসাম্যপূর্ণ। যে কারণে এই সিরিজ জয়ের আশা করছে পাকিস্তান।    
‘আইপিএল থেকে মোস্তাফিজের শেখার কিছু নেই, তার থেকেই সবাই শিখবে’
এশিয়া কাপ আয়োজন করতে পারবে না ভারত-পাকিস্তান!
রাজস্থানকে ২ উইকেটের শ্বাসরুদ্ধকর জয় এনে দেন বাটলার
ভারত সিরিজের জন্য বাংলাদেশের দল ঘোষণা
৫০৪তম ম্যাচে নারাইনের প্রথম সেঞ্চুরি
ক্যারিয়ারের ৫০৪তম ম্যাচে নিজের শতকের দেখা পেয়েছেন ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার সুনিল নারিন।  মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ইডেন গার্ডেনসে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ৫৬ বলে ১০৯ রানের বিধ্বংসী এক ইনিংস খেলেছেন তিনি। এদিন ৫৬ বলে ১০৯ রানের ইনিংসে ১৩টি চার আর ৬টি ছক্কা হাঁকান নারিন। রান করেছেন ১৮৭.৭৫ স্ট্রাইকরেটে। ইডেন গার্ডেনে কলকাতার কোনো ব্যাটারের এটিই প্রথম সেঞ্চুরি। নারিনের সেঞ্চুরিতে ভর করেই ৬ উইকেটে ২২৩ রানের পাহাড়সম সংগ্রহ গড়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। অর্থাৎ জিততে হলে রাজস্থান রয়্যালসকে করতে হবে ২২৪। মঙ্গলবার রাজস্থান রয়্যালসের আভেশ খান আর কুলদ্বীপ সেন নিয়েছেন দুটি করে উইকেট।  
বাংলাদেশের নতুন স্পিন কোচ পাকিস্তানের মুশতাক
বাংলাদেশ জাতীয় দলের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক লেগ স্পিনার ও বিশ্বকাপজয়ী মুশতাক আহমেদ। জানা গেছে, তিনি এই মাসের শেষের দিকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রস্তুতি ক্যাম্পের আগে দলের সাথে যোগ দেবেন এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং যুক্তরাষ্ট্রে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সাথে কাজ করবেন। মুশতাক আহমেদ বলেন, স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অংশ হতে পারাটা আমার জন্য অনেক গর্বের। আমি এই ভূমিকার জন্য উন্মুখ এবং আমার অভিজ্ঞতা খেলোয়ারদের দিতে চাই, কারণ তারা খুব কোচযোগ্য এবং আমি সবসময় বিশ্বাস করি যে তারা বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক দলগুলির মধ্যে একটি। তারা যে কাউকে হারাতে পারে কারণ তাদের সামর্থ্য, সম্পদ এবং প্রতিভা রয়েছে। আমি চেষ্টা করব তাদের মধ্যে সেই বিশ্বাস জাগিয়ে তুলতে। দলের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি খুবই উচ্ছ্বসিত।  প্রসঙ্গত, ২০০৮ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের এবং ২০১৮ ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিন বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন ৫৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।  
যেসব মাইলফলক স্পর্শ করলো হায়দ্রাবাদ-বেঙ্গালুরু ম্যাচ
চলতি আইপিএলের ৩০তম ম্যাচে হায়দ্রাবাদের মুখোমুখি হয়েছিল বেঙ্গালুরু। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৫৪৯ রান আইপিএলের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এবং সেই সঙ্গে এক ম্যাচে ৮১টি বাউন্ডারির মাইলফলকও স্পর্শ করেছে এদিন। তবে শেষ পর্যন্ত ২৫ রানে হেরে গেছেন বিরাট কোহলিরা। প্রথম ইনিংসে আইপিএলের ইতিহাসে রেকর্ড সর্বোচ্চ ২৮৭ রান করে হায়দ্রাবাদ। ৪৯ বলে ৯টি চার আর ৮টি ছক্কায় সেঞ্চুরি করেন অস্ট্রেলিয়ান তারকা ট্রাভিস হেড। ৩১ বলে ৬৭ রান করেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান হেইনরিচ ক্লাসেন। মাত্র ১০ বলে ৩৭* রান করেন আবদুল সামাদ। ১৭ বলে ৩২ রান করেন এইডেন মার্করাম। বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেটে ২৬২ রান করে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। দলের হয়ে ৩৫ বলে ৫টি চার আর ৭টি ছক্কায় ৮৩ রান করেন দীনেশ কার্তিক। ২৮ বলে ৭টি চার আর ৪টি ছক্কায় ৬২ রান করেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি। ২০ বলে ৪২ রান করে ফেরেন সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি।  এই ম্যাচে ৪০ ওভারে দুই দল মিলে ৩৮টি ছক্কা আর ৪৩টি চার মিলে টি-টোয়েন্টিতে রেকর্ড ৮১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৪৯ রান করে; যা আইপিএলের ইতিহাসে রেকর্ড। এর আগে আসরের অষ্টম ম্যাচে হায়দ্রাবাদের রাজিব গান্ধী স্টেডিয়ামে হায়দ্রাবাদের মুখোমুখি হয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। সেই ম্যাচে দুই দল মিলে ৩৮টি ছক্কার বিশ্বরেকর্ড গড়ে ৫২৩ রান করে;যা টি-টোয়েন্টিতে কোনো ম্যাচ সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ছিল। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ছক্কার আগের রেকর্ডটি হয়েছিল আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগে। ২০১৮ সালে বালখ লেজেন্ডস ও কাবুল জাওয়ানানের ম্যাচে হয়েছিল ৩৭টি ছক্কা। আর আইপিএলে এক ম্যাচে আগে সবচেয়ে বেশি ছক্কা ছিল ৩৩টি। আইপিএলে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ৬৯টি বাউন্ডারির রেকর্ডও হয়েছে হায়দ্রাবাদ-মুম্বাইয়ের ম্যাচটিতে। এই ম্যাচে বাউন্ডারি হয়েছে ৬৯টি। এর আগে ২০১০ সালে চেন্নাই ও রাজস্থানের ম্যাচটিতেও হয়েছিল সমান সংখ্যক বাউন্ডারি। তবে সোমবার হায়দ্রাবাদ-বেঙ্গালুরু ম্যাচে ৮১টি বাউন্ডারির বিশ্ব রেকর্ড হয়। চার-ছক্কা থেকে আইপিএলে সবচেয়ে বেশি রান হয়েছে এই ম্যাচে ৪০০ রান। এর আগে গত ১৭ মার্চ হায়দ্রাবাদ-মুম্বাই ম্যাচে বাউন্ডারি থেকে আসে ৩৫২ রান। 
বেঙ্গালুরুকে বেচে দেওয়ার আহ্বান জানালেন ভূপতি
চলতি আইপিএলে হারের বৃত্তে আটকে পড়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। এখন পর্যন্ত সাত ম্যাচ খেলে ৬টিতেই হেরে গেছেন বিরাট কোহলি-ফাফ ডু প্লেসিসরা। এর মধ্যে শেষ পাঁচ ম্যাচের সবকয়টিতেই হারের মুখ দেখতে হয়েছে তাদের। এ নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন সমর্থকরা।  ভারতের সাবেক টেনিস তারকা ও ডাবলসে ১১টি গ্র্যান্ডস্ল্যামজয়ী মহেশ ভূপতি তো বিরক্ত হয়ে বেঙ্গালুরুকে বেচে দেওয়ার আহ্বান পর্যন্ত জানিয়েছেন। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পোস্টে এমন মন্তব্য করেনে তিনি।  পোস্টে ভূপতি লিখেছেন, বিসিসিআইয়ের উচিত ক্রিকেট, আইপিএল, সমর্থক ও খেলোয়াড়দের স্বার্থে আরসিবিকে অন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজির হাতে তুলে দেওয়া। যে মালিক অন্য দলগুলোর মতো একটি স্পোর্টস ফ্র্যাঞ্চাইজি গড়ে তুলবে। বেঙ্গালুরুর জার্সিতে এবারও খেলছেন ভারতের অন্যতম সেরা ব্যাটার বিরাট কোহলি। আছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ফাফ ডু প্লেসিসের মতো বিধ্বংসী ব্যাটারও। বোলিং বিভাগও কাগজে-কলমে বেশ শক্তিশালী। কিন্তু মাঠের খেলায় চিত্রটা ভিন্ন। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে বেশ উজ্জ্বল হলেও দলগত সাফল্য অধরাই থেকে গেছে তাদের।  দলটির এমন অবস্থা দেখে ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্লেষক মাইকেল ভন বলেন, ক্রিকেট যে একা খেলা যায় না, বেঙ্গালুরুই তার প্রমাণ। কেউ চাইলে সেরা ক্রিকেটারদের কিনতেই পারে। কিন্তু সেটা করলেই যে ম্যাচ জেতা যায় না, বেঙ্গালুরু তা প্রমাণ করে দিয়েছে।
তামিমের ভুল ধরিয়ে দেওয়ার যোগ্যতা আছে কি কোচদের?
বাংলাদেশ ক্রিকেটে এই মুহূর্তে মেরুর একপ্রান্তে দাঁড়িয়ে বিসিবি এবং অপর প্রান্তে তামিম ইকবাল খান। দু’পক্ষ যেন কোনোভাবেই এক হতে পারছে না। জাতীয় দলে ফিরতে বেশ কয়েকটি শর্ত দিয়ে রেখেছেন তামিম। অন্যদিকে তামিমকে ফেরাতে সবকিছু পরিবর্তন করবে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গত বছর আফগানিস্তান সিরিজের মাঝপথে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছিলেন তামিম। তবে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে অবসর ভেঙে ক্রিকেটে ফেরেন দেশসেরা এই ওপেনার। এরপর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পান তিনি। এরপর ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে দ্বন্দ্বের কারণে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়েন তামিম; যা নিয়ে ব্যাপক সামালোচনার শিকার হতে হয় বিসিবিকে। এর মধ্যেই চাপা পড়ে যায় তামিমের হঠাৎ করে অবসর নেওয়ার রহস্য। বিষয়টি এখনও পরিষ্কার করেনি কোনো পক্ষই। বিশ্বকাপের দল থেকে তামিমের বাদ পড়ার মূল কারণ, আফগানিস্তান ম্যাচে এই ওপেনারকে নিচের দিকে ব্যাট করার প্রস্তাব দেওয়া হয়; যা কোনোভাবেই মানতে পারেননি তিনি। মূলত আফগান পেসার ফারুকীর বলে শুরুতেই উইকেট না দেওয়ার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে তামিমকে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়।   সবশেষ আফগানিস্তান ম্যাচগুলোতে ফারুকীর বলে দ্রুত উইকেট বিলিয়ে দিয়েছেন তামিম। অন্যদিকে সবশেষ এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওপেনিংয়ে দুর্দান্ত ভাবে ফারুকীদের সামাল দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তাই বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে মিরাজকে দিয়েই শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল টাইগার ম্যানেজমেন্ট। তবে এই সিদ্ধান্ত তামিমকে জানানো হলেও বিশ্বকাপ থেকেই সরে দাঁড়ান তিনি। তাই তামিমের এমন অপেশাদার আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। অন্যদিকে ১৭ বছর ধরে ওপেন করা একজন ব্যাটারকে নিচে ব্যাট করার প্রস্তাব দেওয়াটা কতটা যুক্তিসম্মত তা নিয়েও প্রশ্ন আছে। তবে একজন ক্রিকেটার যখন বার বার ব্যর্থ হচ্ছে, সেখানে দলের স্বার্থে তাকে নিয়ে ভিন্ন পরিকল্পনা করতেই পারে টিম ম্যানেজমেন্ট, কোচ এবং অধিনায়ক। এর আগে ২০২১ সালে তৎকালীন হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো তামিম ইকবালের টি-টোয়েন্টির স্ট্রাইকরেট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। যার পরই বেঁকে বসেন এই বাঁহাতি ওপেনার। বার বার আলোচনা করেও তামিমকে টি-টোয়েন্টি দলে ফেরাতে পারেননি বিসিবি বস নাজমুল হাসান পাপন। এরপর ২০২২ সালে ব্যাটে রান পাওয়ার কারণে তামিমকে চারে ব্যাট করার পরামর্শ দিয়েছিলেন ব্যাটিং কোচ জেমি সিডেন্স। তবে এই অজি কোচের ভাবনাকে স্টুপিড বলে মন্তব্য করেছিলেন তামিম। ফলে প্রশ্ন ওঠে কোনো ক্রিকেটার যদি ব্যর্থ হয় তাহলে তাকে নিয়ে কি কোনো পরিকল্পনা বা মন্তব্য করতে পারবে না টিম ম্যানেজমেন্ট বা কোচ। প্রশ্ন ওঠে কোচদের পরামর্শ গুলোকে ইতিবাচকভাবে নেওয়ার ইচ্ছাশক্তি কতটুকু রয়েছে ক্রিকেটারদের মধ্যে। তাদের পরামর্শ দাতা হিসেবেই তো কোটি কোটি টাকা খরচ করে কোচ নিয়োগ দেয় বিসিবি। সবকিছু পিছনে ফেলে তামিম ইকবালকে দলে ফেরাতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে শর্ত আর নানা জটিলতায় সেই সম্ভবনাও দিন দিন কমে আসছে। এদিকে আসন্ন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিকে কেন্দ্র করে আগে থেকেই পরিকল্পনা সাজাতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। তাই দলের প্রয়োজনে তামিমের দলে ফেরার সুষ্ঠ সমাধান দরকার খুব তাড়াতাড়ি। অন্যদিকে এতো নাটকীয়তার পর দলে ফেরাটাও অনেক চাপের হবে তামিমের জন্য। দীর্ঘ দিন জাতীয় দলের বাইরে থাকার পর ব্যাট হাতে কতটা অবদান রাখতে পারবে সেটাও চিন্তার কারণ হতে পারে এই বাঁহাতি ওপেনারের। ২০২৩ সালে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার আগে ১১ ইনিংসে মাত্র একটিতে ফিফটি তুলতে পারেন দেশসেরা এই ওপেনার। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ৮২ বলে ৬২ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। তবে বিপিএল দিয়ে দুর্দান্তভাবে কাম ব্যাক করেন তিনি। ডিপিএলেও ব্যাট হাতে রান পাচ্ছেন তিনি। তাই বলা যায় বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়ার পর নিজেকে ভালোভাবেই প্রস্তুত করেছেন দেশসেরা এই ওপেনার।
হাথুরুসিংহের ঢাকায় ফেরা নিয়ে যা জানাল বিসিবি
কয়েক দিন আগেই গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয় আর ঢাকায় ফিরছেন না জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অল্প সময়ের মধ্যে ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ে বিষয়টি। তবে হাথুরুসিংহে ঢাকায় না-ফেরার গুঞ্জনটি সত্য নয় বলে জানিয়েছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ। জিম্বাবুয়ে সিরিজকে সামনে রেখে ২১ এপ্রিল ঢাকায় ফিরবেন জাতীয় দলের বিদেশি কোচিং স্টাফরা। ডিপিএলের একাধিক ম্যাচ দেখে চট্টগ্রামের ম্যাচ ভেন্যুতে যাবেন তারা।  বিসিবির সূত্রে জানা গেছে, ঢাকায় ফিরে ২৬ এপ্রিল থেকে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ক্যাম্প শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে হাথুরুসিংহের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩ মে থেকে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। সেখানে তিনটি ম্যাচ খেলে ঢাকায় ফিরবে দুই দল। মিরপুরে হবে শেষ দুই ম্যাচ।  হাথুরু ইস্যুতে অভিযোগও করেছে বিসিবি। তারা বলছে এই কোচকে নিয়ে গুঞ্জনের শেষ নেই। এই পরিস্থিতি তৈরির পেছনে কয়েকজন পরিচালক পরোক্ষে ইন্ধন জোগাতে পারেন বলে মনে করা হয়। হাথুরুসিংহে সরাসরি বিসিবি সভাপতির নির্দেশনা মতো কাজ করেন।  বোর্ড সভাপতির পরামর্শ নিয়েই ক্রিকেটারদের ছুটি দেওয়া, সহকর্মীদের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন হাথুরু। জাতীয় দলের প্রধান কোচের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ থাকলেও প্রকাশ্যে কেউই কথা বলেন না।
বিশ্বকাপের দেড় মাস আগে হতাশার গল্প শোনালেন শান্ত
চলতি বছরের জুন-জুলাইয়ে মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বৈশ্বিক এই আসরকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই অংশগ্রহণকারী দেশগুলো নিজেদের পরিকল্পনা সাজাতে ব্যস্ত সময় পার করছে। তবে বিশ্বকাপের আগেই হতাশার গল্প শোনালেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।  মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাজধানীর গুলশানে একটি অনুষ্ঠানে আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে বেশি প্রত্যাশা না রাখার অনুরোধ করেন তিনি। তিনি বলেন, প্রতি বছর দেখি, বিশ্বকাপের আগে এগুলো নিয়ে অনেক কথা হয়। প্রত্যাশা থাকে এটা করব, সেটা করব।  ‘আমার একটা অনুরোধ থাকবে আপনাদের কাছে। এই প্রত্যাশা খুব একটা করার দরকার নেই। এই প্রত্যাশা সবার মনের মধ্যে থাক। আপনারা জানেন বাংলাদেশ দল কী চায়, আমরা খেলোয়াড়রাও জানি বাংলাদেশকে কতদূর নিয়ে যেতে চায়।’ শান্ত বলেন, যে দলটা খেলবে তারা ১২০ ভাগ দিবে প্রতিটি ম্যাচ জেতার জন্য। এই নিশ্চয়তা দিতে পারি। প্রতিটি ম্যাচ জেতার জন্য খেলবে। প্রতিটি ম্যাচ আমরা যখন খেলি, তখন অনেক আশা নিয়েই খেলি। এবার বেশ প্রত্যাশা করছি, আমার অনুরোধ থাকবে এই বিষয় নিয়ে আমরা যেন মাতামাতি না করি। আইপিএলে দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছে মোস্তাফিজ। তবে জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য পুরো আসরে খেলা হচ্ছে না তার। মোস্তাফিজকে নিয়ে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘আমি যেটা বলতে চাই, যখন মোস্তাফিজ বাংলাদেশের হয়ে খেলে তখন ওর আগ্রহটা আরও বেশি থাকে। ওটা তো বাইরে একটা লিগ খেলছে। অবশ্যই ওখানে ওর কমিটমেন্ট আছে।  ‘তার কমিটমেন্ট ওখানে সে শো করে (দেখায়)। ও যখন বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলে, প্রত্যেকটা বল যখন ও করে, তখন চিন্তা করে যে দেশের বা দলের কীভাবে উপকার হয়।’