• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
চাঁদপুরে জামায়াতের পিছুটান
ফরিদপুরে বাস-পিকআপ সংঘর্ষ, নিহত বেড়ে ১৫
ফরিদপুরের কানাইপুরে বাস ও পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে পপি বেগম (২৫) নামে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কানাইপুরে অ্যাবলুম ক্যাফেটেরিয়ার সামনে ঢাকা থেকে মাগুরাগামী ইউনিক পরিবহন ও আলফাডঙ্গা থেকে ফরিদপুর শহরের দিকে আসা পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘনাস্থলেই ১১ জন মারা যান। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও তিনজন মারা যায়।  পপি বেগম ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার রূপাপাত ইউনিয়নের কুমাইল গ্রামের বাসিন্দা ইকবাল শেখের (২৫) স্ত্রী। জানা যায়, পিকআপে ইকবালের সঙ্গে পপি এবং তাদের দেড় বছর বয়সী ছেলে ইরফানও ছিল। দুর্ঘটনায় এরা তিনজনই আহত হন। ইকবাল গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান। আর পপি আক্তার আজ বুধবার সকাল ৬টার দিকে ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। শিশু ইরফান বর্তমানে ফরিদপুরে চিকিৎসাধীন আছে। করিমপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাহউদ্দিন চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আজ সকালেই মৃতের স্বজনরা মরদেহ নিয়ে গেছেন। এ নিয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল মিলিয়ে মোট ১৫ জনের প্রাণহানি হলো।
পালিয়ে এলেন মিয়ানমারের আরও ৪৬ সীমান্তরক্ষী
ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত বেড়ে ১৪
মাছ ধরতে গিয়ে পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু 
কুষ্টিয়ায় ভাই-বোনসহ ৩ শিশুর ডুবে মৃত্যু
চুয়াডাঙ্গায় মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ দশমিক ৭ ডিগ্রি
চুয়াডাঙ্গায় তীব্র তাপপ্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। সব রেকর্ড ভেঙে এ জেলার তাপমাত্রা দাঁড়িয়েছে ৪০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। তাপপ্রবাহ বইছে তীব্র আকারের। টানা তাপদাহে অতিষ্ঠ সীমান্তবর্তী জেলার মানুষ। অসহ্য গরমে ওষ্ঠাগত হয়ে উঠেছে প্রাণীকূল। বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় চুয়াডাঙ্গা জেলার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা চলতি মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। এ সময় বাতাসের আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ২২ শতাংশ। গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় চুয়াডাঙ্গায় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  প্রচণ্ড তাপদাহে ব্যহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। সেই সঙ্গে বাতাসের আর্দ্রতা বেশি থাকায় অনুভূত হচ্ছে ভ্যাপসা গরম। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে সূর্যের তাপ। তীব্র প্রখরতায় উত্তাপ ছড়ায় চারপাশে। নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষেরা পড়েছেন চরম বিপাকে। নির্মাণশ্রমিক, কৃষিশ্রমিক, ইজিবাইকচালক ও ভ্যানরিকশাচালকদের গরমে নাভিশ্বাস উঠেছে।  চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জামিনুর রহমান বলেন, চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে চলছে। এ অবস্থা আরও কিছুদিন চলতে পারে। তবে এখনই বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই।
হিলিতে অতিরিক্ত গরমে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা
দিনাজপুরের হিলিসহ সারাদেশই প্রচণ্ড দাবদাহে পুড়ছে। প্রখর রোদের পাশাপাশি ভ্যাপসা গরমে স্বস্তি মিলেছে না কোথাও। ছোট-বড় সবাই গরমে কাবু হচ্ছে। অনেক সময় নিজেদের অজান্তেই দূষিত পানি ঢুকে যাচ্ছে পেটে, আর দেখা দিচ্ছে ডায়রিয়া। বিশেষ করে শিশুরা এই রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে।  হাকিমপুর (হিলি) হাসপাতালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সাধারণ সময়ের তুলনায় এখন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে আসা রোগীদের অধিকাংশই শিশু। প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ জন রোগী ভর্তি হচ্ছে। চিকিৎসকরা নিয়মিত চিকিৎসা দিচ্ছেন।  চিকিৎসা নিতে আসা মনোতোষ কুমার শাহ বলেন, আমার মায়ের হঠাৎ মাথাব্যথা ও পেটব্যথা শুরু হয়। পরে মা’কে নিয়ে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এসেছি এবং ডাইরিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি করালাম। ডাক্তার প্রথম অবস্থাতে স্যালাইন দিয়েছে। আগের থেকে এখন অনেকটাই সুস্থ।  হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি থাকা আরজেনা বেগম বলেন, মেয়েকে নিয়ে গত দুদিন আগে দিনাজপুর বাবার বাসা থেকে হিলিতে শ্বশুরবাড়িতে আসছি। অতিরিক্ত গরমের কারণে মেয়ের ডায়রিয়া দেখা দিয়েছে। যার জন্য হাসপাতালে ভর্তি আছি। এখন পর্যন্ত তিনটি স্যালাইন দিয়েছে। আগের থেকে মেয়ে এখন সুস্থ।  হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ইলতুতমিশ আকন্দ বলেন, সারা দেশ প্রচণ্ড দাবদাহের মধ্যে রয়েছে। ছোট থেকে বড় সবাই গরমে কাবু হচ্ছে। আর তাতে শরীরে পানির চাহিদা বেড়ে যাচ্ছে। এর ফলে পানির মাধ্যমে ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়ছে। সাধারণ সময়ের তুলনায় এখন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে আসা রোগীদের বেশিরভাগই শিশু। ঈদের দিন রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও বর্তমানে রোগীর সংখ্যা স্বাভাবিক রয়েছে। তবে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ জন ডায়রিয়া রোগী আসছে চিকিৎসা নিতে। কেউ কেউ হাসপাতালেই ভর্তি হচ্ছেন, আবার কেউ চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে যাচ্ছেন।  এদিকে দিনাজপুর আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, গতকাল সন্ধ্যা ৬ টায় ৩৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। সেই সঙ্গে বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৬৬ শতাংশ। তবে বুধবার এখন পর্যন্ত আবহাওয়া অফিস কোনো বার্তা দেয়নি। 
ছাত্রলীগ নেতার অন্তরঙ্গ ভিডিও ভাইরাল, কমিটি বিলুপ্ত
সম্প্রতি বরগুনার তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর সঙ্গে এক নারীর অন্তরঙ্গ ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনার পরপরই উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।    মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল কবির রেজা ও সাধারণ সম্পাদক তৌশিকুর রহমান ইমরান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার (১২ এপ্রিল) তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর সঙ্গে এক নারীর অন্তরঙ্গ ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। ভিডিওতে মিঠুকে ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাতে দেখা গেছে। এ ঘটনায় তৃণমূল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। আরও জানা যায়, এ ঘটনায় উপজেলায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। পরে তালতলী উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ড. কামরুজ্জামান বাচ্চু মিয়া তালতলী থানায় গত ১২ এপ্রিল পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় বর্তমানে ওই নারী জেলহাজতে রয়েছেন। এ ব্যাপারে কথা বলতে যোগাযোগ করা হয় তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর সঙ্গে। কিন্তু বারবার কল দেওয়ার পরেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। পরে কথা হয় বরগুনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল কবির রেজার সঙ্গে। তিনি ভিডিও ভাইরালের বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে।
যশোর অঞ্চলে তাপমাত্রা উঠতে পারে ৪২ ডিগ্রি
কয়েক দিনের টানা তাপদাহের কারণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে মানুষ। তার ওপর আরও খারাপ খবর দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন, আগামী ২০ এপ্রিলের পরে তাপদাহ আরও বাড়তে পারে। এমনকি ২৩ এপ্রিল থেকে যশোর-কুষ্টিয়া এবং পাবনা-ঈশ্বরদী এলাকায় তাপমাত্রা বেড়ে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠতে পারে। আপাতত আবহাওয়া অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।  বুধবার (১৭ এপ্রিল) যশোরে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি। একাধিক আবহাওয়াবিদ বলেন, এপ্রিল এমনিতেই উষ্ণতম মাস। এ মাসে পর্যাপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। তবে নদী অববাহিকা থেকে জলীয়বাষ্প এসে বিচ্ছিন্নভাবে বৃষ্টির কারণে কোথাও তাপমাত্রা কমতে পারে। আবার কোথাও বাড়তে পারে। তবে তাপমাত্রা খুব একটা পরিবর্তন হবে না বলে মনে করছেন তারা।  এদিকে ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জনজীবন। এতকিছুর পরও জীবিকার জন্য বের হচ্ছেন খেটে খাওয়া মানুষ। তাদের ভোগান্তি বেড়েছে কয়েক গুণ। তীব্র গরমে মানুষ বাইরে বেশিক্ষণ কাজ করতে পারছেন না। সকাল ১০টার পর থেকে রোদে তেতে উঠছে চারপাশ। তাপদাহের কারণে বিপাকে পড়েছে যশোরসহ বিভিন্ন জেলার নিম্ন আয়ের মানুষ। তারা বলছেন, প্রচণ্ড তাপদাহের কারণে রাস্তায় বের হওয়া যাচ্ছে না। কাজ করতে ভীষণ কষ্ট হচ্ছে। আবার পেটের দায়ে কাজ না করেও উপায় নেই। চিকিৎসকরা বলছেন, গরমে শিশুরা বেশি অসুস্থ হচ্ছে। এ অবস্থায় শিশুদের নিয়ে বাইরে না যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। তাপপ্রবাহে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধরা। যশোর অঞ্চলের অনেক জায়গায় টিউবওয়েলে পানি উঠছে না। পানি নিয়ে এক প্রকার সংগ্রাম শুরু হয়েছে। যা মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা। তার ওপর লোডশেডিং অবস্থাকে ভয়াবহ করে তুলেছে।
দ্রুত সময়ের মধ্যে মুজিবনগরে স্থলবন্দর হবে : জনপ্রশাসনমন্ত্রী 
ঐতিহাসিক মুজিবনগরে স্থলবন্দরের কাজ দ্রুত সময়ের মধ্যেই শেষ হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, স্থলবন্দরের জন্য আমাদের এপারে যেমনি সড়ক নির্মাণ করা হয়েছে ওই দিকেও (ভারতের অংশে) রাস্তা নির্মাণের কাজ চলছে।  বুধবার (১৭ এপ্রিল) সকালে মুজিবনগর দিবসের অনুষ্ঠানে ঐতিহাসিক মুজিবনগর আম্রকাননে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি। জনপ্রশাসনমন্ত্রী বলেন, একটি স্থলবন্দর হতে গেলে দুই অংশের (বাংলাদেশ-ভারত) রাস্তাঘাট ঠিক করতে হয়। সেক্ষেত্রে আমরাও বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। আমরা মুজিবনগর-দর্শনা সড়কটি প্রশস্ত করেছি। এখান থেকে অন্যান্য সংযোগ সড়কগুলোর ডিপিপি কার্যক্রম চলমান আছে। স্থলবন্দরের জন্য দুদেশেরই কার্যক্রম চলমান রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, দ্বিপাক্ষিক কার্যক্রম বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে শিগগিরই স্থলবন্দর চালু হবে।’ এর আগে মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জনপ্রশাসনম্ত্রী ও মেহেরপুর জলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন। এরপর আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগ দেন তিনি। 
মোরেলগঞ্জে স্টিলব্রিজের সঙ্গে আটকে গেলো বাস, যাত্রীদের দুর্ভোগ 
সাইনবোর্ড-বগী আঞ্চলিক মহাসড়কের বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ স্টিলব্রিজের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একটি দূরপাল্লার পরিবহন আটকে গেছে।  বুধবার (১৭ এপ্রিল) ভোরে ঢাকা থেকে শরণখোলাগামী জিএমএস পরিবহনের গাড়িটি এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।  সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঘটনার পর থেকে মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলা থেকে খুলনা, ঢাকা ও চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া ঈদযাত্রার ৭০-৮০টি পরিবহন আটকে রয়েছে। এতে ঈদের ছুটি শেষে ঘরে ফেরা কমপক্ষে ৩ হাজার যাত্রী দুর্ভোগে পড়েছেন। অনেকে ফিরে গেছেন। বুধবার সকাল ৮টার দিকে বিভিন্ন কোম্পানি কিছু বাড়তি গাড়ি জোগাড় করে যাত্রীদের পৌঁছে দেওয়ার কাজ শুরু করেছে।  এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সামসুদ্দীন বলেন, রাতে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। গাড়িতে কোন যাত্রী ছিলোনা। গাড়ি রেখে এর চালক, সকলে পালিয়ে গেছেন।