• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
ময়মনসিংহে ছুরিকাঘাতে শ্রমিক খুন
ময়মনসিংহে ২ বাসের সংঘর্ষ : নিহতদের পরিচয় মিলেছে  
ময়মনসিংহের তারাকান্দায় বেপরোয়া গতির কারণে ২ বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এক বাস হেলপার ও এক নারী যাত্রী নিহত হয়েছেন। সেই সঙ্গে আহত হয়েছেন অন্তত আরও ২৫ যাত্রী।   মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ময়মনসিংহ তারাকান্দা সড়কের কোদালধর বাজারের রামচন্দ্রপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন দুর্ঘটনাকবলিত রাজ সুপার বাসের হেলপার শেরপুর জেলার সদর উপজেলার রাজভল্লবপুর গ্রামের আক্তার আলীর ছেলে মো. শহিদ মিয়া (২৬) এবং নকলা উপজেলার মৃত আব্দুর রশিদের মেয়ে সুইটি আক্তার (২০)।  এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন তারাকান্দা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াজেদ আলী।  প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে ওসি বলেন, শেরপুর থেকে ঢাকাগামী ইভা পরিবহনের একটি বাস বেপরোয়া গতিতে ময়মনসিংহ-শেরপুর সড়কের ঘটনাস্থল এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা বেপরোয়া গতির রাজ সুপার বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে রাজ সুপার বাসের হেলপার শহিদ মিয়া ও ইভা পরিবহনের যাত্রী সুইটি আক্তার ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ ঘটনায় আহত হন অন্তত ২৫ জন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, দুই বাসের সংঘর্ষের ঘটনায় মমেক হাসপাতালে অন্তত ১২ জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ‍্যে ৬ জনকে ভর্তি করা হয়েছে এবং বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও এ ঘটনায় আহত আরও ১৩ থেকে ১৪ জনকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয় বলে জানান ওসি ওয়াজেদ আলী।  তিনি আরও বলেন, নিহতদের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে ময়নাতদন্তের জন‍্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।  এ দিকে দুর্ঘটনা কবলিত সড়কে বর্তমানে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে বলেও জানান ওসি।
ময়মনসিংহে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
খতনার সময় শিশুর পুুরুষাঙ্গ কেটে ফেলল হাজাম, ঢামেকে ভর্তি
প্রেমিকার বিয়ে ঠিক হওয়ায় যুবকের আত্মহত্যা
২৭ বছর পর বাড়ি ফিরলেন হারিয়ে যাওয়া শাহীদা
সোমেশ্বরী নদীতে নিখোঁজ তরুণের মরদেহ উদ্ধার
নেত্রকোণার দুর্গাপুরে বেড়াতে এসে সোমেশ্বরী নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ আবির হাসানের (২০) মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবুরিরা।  রোববার (১৪ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।  এর আগে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই তরুণ নিখোঁজ হন। দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শফিকুল ইসলাম শফিক বিষয়টি নিশ্চিত করেন।  নিখোঁজ আবির গাজীপুরের কেওড়াবাজার এলাকার ফেরদৌস মিয়ার ছেলে।  স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর থেকে শনিবার দুর্গাপুরে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন আবির। পরে রোববার দুপুরে বন্ধুদের সঙ্গে কুল্লাগড়া ইউনিয়নের বরইকান্দি নামক স্থানের সোমেশ্বরী নদীতে গোসলে নেমে তিনি নিখোঁজ হন।  পরে স্থানীয়রা দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শফিকুল ইসলাম শফিকের তত্ত্বাবধানে ময়মনসিংহ থেকে আসা ডুবুরি দল উদ্ধার কার্যক্রম চালিয়ে সন্ধ্যার পর ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ১০০ ফুট দূরে বালুর নিচ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।  এ বিষয়ে দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, ‘খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে আমাদের একটি টিম। তারপর ময়মনসিংহের ডুবুরি দলকে খবর দেওয়া হয়। তারা আসলে উদ্ধার কাজ শুরু হয়। দীর্ঘ সময় চেষ্টা চালিয়ে অবশেষে সন্ধ্যায় মরদেহ উদ্ধারে সক্ষম হয়েছি।’
টাকা কমানোয় এ বছর ৮৪ হাজার মুসল্লি হজ পালন করবেন : ধর্মমন্ত্রী
ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, গত বছর হজে যেতে রেইটটা বেশি ছিল। সব মহলের দাবির প্রেক্ষিতে এ বছর হজের প্যাকেজে এক লাখ দুই হাজার টাকা কমানো হয়েছে। তাই এ বছর বাংলাদেশ থেকে সর্বোচ্চ ৮৪ হাজার হাজী হজব্রত পালন করতে যাবেন।  শনিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুরে শেরপুরের ঝিনাইগাতীর মালিঝিকান্দা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭৫ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, হাজীদের হয়রানি বন্ধ করার জন্য শুধু বাংলাদেশে ইমিগ্রেশনের কাজ সম্পন্ন করা হবে। এরপর যাতায়াতে আর কোনো সমস্যা হবে না। আগে হজের জন্য সুনির্দিষ্ট নীতিমালা ছিল না, আমরা তা করেছি। যে কারণে গত দুই বছর হজব্রত পালন নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি।  তিনি আরও বলেন, মাদরাসা শিক্ষা নিয়েও সুন্দর নীতিমালা করার জন্য সরকার চিন্তাভাবনা করছে।  এ সময় মালিঝিকান্দা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭৫ বছর পূর্তি ও পুনর্মিলনী কমিটির আহ্বায়ক বিপিডিসি’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার মো. আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শেরপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য এডিএম শহিদুল ইসলাম, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব মো. আবদুস সামাদ, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখরসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।
রাস্তা পারাপারের সময় ট্রাক চাপায় আইনজীবী নিহত
জামালপুরের বকশীগঞ্জে রাস্তা পার হওয়ার সময় ট্রাকের চাপায় গোলাম মোস্তফা আজাদ (৬০) নামে এক আইনজীবীর মৃত্যু হয়েছে।  শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাত ৮ টার দিকে বকশীগঞ্জ পৌর শহরের মালিবাগ মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গোলাম মোস্তফা আজাদ উপজেলার ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ কামালপুর গ্রামের মৃত সোনা মিয়া চেয়ারম্যানের ছেলে। তিনি শেরপুর জেলা জজ কোর্টে আইনজীবী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। স্থানীয় সূত্র জানায়, পৌর শহরে ব্যক্তিগত কাজ শেষে পৌর শহরের উত্তর বাজার এলাকার নিজ বাসায় ফিরছিলেন আইনজীবী আজাদ। এসময় তিনি মালিবাগ মোড় পার হতে গেলে বিপরীত দিক আসা একটি ট্রাক তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাকসহ চালক গোলাপ মিয়াকে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে আটক করেছেন। বকশীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খান জানান,  ট্রাকের চাপায় আইনজীবী নিহতের ঘটনায় আইনগত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।
নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে নদীতে ডুবে ২ ভাইয়ের মৃত্যু 
জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় ঈদে নানার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে যমুনা নদীতে ডুবে মিনহাজ (৯) ও মিনাল (৭) নামে ২ ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে।  শনিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুরের দিকে উপজেলার যমুনার দুর্গম চরাঞ্চল সাপধরী ইউনিয়নের চরশিশুয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।  নিহত ২ সহোদর মিনহাজ ও মিনাল ওই উপজেলার বেলগাছা ইউনিয়নের জারুতলা এলাকার আজহার আলীর ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার উপজেলা বেলগাছা ইউনিয়নের জারুল তলা এলাকা থেকে মা চায়না আক্তার ২ ছেলে ও স্বামী আজহার আলীকে সঙ্গে নিয়ে চরশিশুয়া গ্রামে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান। রোববার দুপুরে বাড়ির পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া যমুনার শাখা নদীর পানিতে স্থানীয় ছেলে-মেয়েদের সঙ্গে মিনহাজ ও মিনাল মাছ ধরতে যান। সাঁতার না জানায় মাছ ধরার কোনো এক সময় নিখোঁজ হয়ে যান ২ সহোদর ভাই। পরে এলাকাবাসী অনেক খোঁজাখুঁজির পর দুই ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার করেন। সাপধরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ আলম মণ্ডল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মা-বাবার সঙ্গে ঈদের পরের দিন নানার বাড়িতে এসেছিল ২ ভাই।  ইসলামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন তালুকদার জানান, সহোদর ২ ভাইয়ের পানিতে ডুবে মৃত্যুর একটি সংবাদ পেয়েছি। তারা মা-বাবার সঙ্গে শনিবার নানার বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল।  তিনি আরও বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহতদের বাবার বাড়ি যমুনার পূর্বপাড় জারুলতলা এলাকায়। যে এলাকায় ঘটনা ঘটেছে সেটি দুর্গম চরাঞ্চল। 
ঈদে স্ত্রীকে মাংস কিনে খাওয়াতে না পারায় চিঠি লিখে আত্মহত্যা
জামালপুরে ঈদের দিন স্ত্রীকে মাংস কিনে খাওয়াতে না পেরে স্বামী হাসান আলী (২৬) নামের এক যুবক চিঠি লিখে আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকালে জেলার বকশিগঞ্জে উপজেলার বগারচর ইউনিয়নের বান্দের পাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাজমিস্ত্রী রহাসান আলী ওই এলাকার রহমত আলীর ছেলে। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) রাতে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে যান হাসান আলী। শুক্রবার স্ত্রী আফরোজা বেগমকে শ্বশুর বাড়ি থেকে আনার কথা ছিল। সকাল  ১১টা পর্যন্ত তিনি শ্বশুর বাড়িতে না যাওয়ায় আফরোজা বেগম নিজেই বাড়ি চলে এস দেখেন ঘরের দরজা বন্ধ। এ সময় ঘরের বেড়ার ফাঁক দিয়ে আফরোজা দেখেন তার স্বামী আড়ার সঙ্গে ঝুলছেন। তার চিৎকারকে স্থানীয় লোকজন এসে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করেন। চিঠিতে হাসান আলী লিখেছে, ‘মা-বাবা তোমরা ক্ষমা করে দিও। আমি মরার পরে আমার বউ বাচ্চাকে দেখে রেখো। আমি জানি আমার বউ আমার সাথে রাগ করছে। ঈদে সবাই গুছ (গোস্ত) খাইছে, কিন্তু আমি বউকে গুছ খাওয়াইতে পারি নাই। আমি আমার বউয়ের মুখ ঈদের দিন বেজার (মন খারাপ) দেখছি। যদি পারো আমাকে ক্ষমা করে দিও। আফরোজাকে আমি অনেক ভালবাসি, তাকে ও আমার সন্তানকে দেখে রেখো। স্ত্রীর উদ্দেশে তিনি লেখেন, আফরোজা তোমার জীবন স্বাধীন করে দিলাম। তোমার জীবনে কেউ নাই। বকশিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খান বলেন, পরিবারের আপত্তি না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
স্ত্রীকে মাংস কিনে দিতে না পারায় যুবকের আত্মহত্যা
জামালপুরের বকশীগঞ্জে স্ত্রীকে মাংস কিনে দিতে না পারায় আত্মহত্যা করেছেন হাসান আলী (২৬) নামে এক যুবক। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকালে উপজেলার বগারচর ইউনিয়নের বান্দের পাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  হাসান আলী বান্দের পাড় গ্রামের রহমত আলীর ছেলে। স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, হাসান আলী প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে যান। আজ শ্বশুরবাড়ি থেকে স্ত্রী আফরোজা বেগমকে নিজবাড়িতে আনার কথা ছিল হাসানের। বেলা ১১টা পর্যন্ত শ্বশুরবাড়িতে না যাওয়ায় তার স্ত্রী আফরোজা বেগম পাশের গ্রাম জোলা পাড়া থেকে স্বামী হাসানের বাড়িতে যান এবং ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পান। এ সময় তিনি ঘরের বেড়ার ফাঁক দিয়ে হাসান আলীকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন। তার ডাকচিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হলে  ঘটনাস্থলে এসে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।  এ সময় মরদেহের পাশে একটি চিঠি পেয়েছে বলে জানায় পুলিশ। পুলিশ আরও জানায়, ওই চিঠিতে হাসান আলী তার স্ত্রী আফরোজা বেগমকে অনেক ভালোবাসেন এবং তাকে দেখে রাখার জন্য নিজ বাবা-মার প্রতি অনুরোধ করেন। পাশাপাশি নিজের স্ত্রীকে মাংস কিনে দিতে না-পারায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে উল্লেখ করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বকশীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খান। তিনি জানান, পরিবারের আপত্তি না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।