• ঢাকা বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
logo
৮ দিনের রিমান্ডে ইমরান-বুশরা
নিষিদ্ধ হতে চলেছে ইমরান খানের দল পিটিআই
পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী আতাউল্লাহ তারার জানিয়েছেন, দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফকে (পিটিআই) নিষিদ্ধ করতে চলেছে সরকার। একইসঙ্গে ইমরান এবং প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির বিরুদ্ধে সংবিধানের ৬ অনুচ্ছেদের আওতায় দেশদ্রোহের মামলাও হবে। সোমবার (১৫ জুলাই) রাজধানী ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।  আতাউল্লাহ তারার বলেন, ‘পিটিআই পাকিস্তানে অবৈধ উৎস থেকে বিদেশি তহবিল পাচ্ছে- এমন অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এবং গত বছর সামরিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিশানা করে পিটিআই সমর্থকদের দাঙ্গা-হাঙ্গামার ভিত্তিতে দলটিকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘পিটিআই এবং পাকিস্তান সহাবস্থান করতে পারে না। ফেডারেল সরকার পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ কে নিষিদ্ধ করতে মামলা করবে। প্রয়োজনে বিষয়টি মন্ত্রিসভা এবং সুপ্রিম কোর্টে যাবে।’ গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে পার্লামেন্টের জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে নিষিদ্ধ থাকায় স্বতন্ত্র হিসেবে অংশ নিয়েছিলেন পিটিআই নেতারা। তারা পার্লামেন্টে সবচেয়ে বেশি আসনে জয় পেলেও দল না থাকায় সংরক্ষিত ৭০টি আসনের ভাগ পাবে না বলে জানিয়েছিল দেশটির নির্বাচন কমিশন। তবে শুক্রবার এক আদেশে পিটিআই পার্লামেন্টে ২৩ টি সংরক্ষিত আসন পাওয়ার যোগ্য বলে ঘোষণা দেয় পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে পিটিআই জাতীয় পরিষদে একক বৃহত্তম দল হিসেবে আবির্ভূত হওয়ার পট প্রস্তুত হয় এবং সরকারের ওপর চাপ বাড়ে। এরপরই পিটিআইকে নিষিদ্ধ করার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের ঘোষণা এলো। 
অবৈধ বিয়ের মামলায় খালাস পেলেন ইমরান খান ও বুশরা বিবি
পাকিস্তান পার্লামেন্টে সংরক্ষিত আসন পাচ্ছে ইমরানের দল
কারাগারের টয়লেট ভেঙে পালালেন ৩ কয়েদি
দুর্নীতি মামলায় জামিন পেলেন ইমরান খানের স্ত্রী বুশরা
তীব্র গরমে পাকিস্তানে ছয় দিনে ৫৬৮ জনের মৃত্যু
পাকিস্তানে তীব্র গরমে গত ছয় দিনে ৫৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে একদিনেই (মঙ্গলবার) ১৪১ জনের মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। এতে বলা হয়, পাকিস্তানের করাচি শহরে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে গেছে। তবে উচ্চ আর্দ্রতার কারণে ৪৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস অনুভব হচ্ছে। গত চার দিনে হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ২৬৭ জন ভর্তি হয়েছেন, যাদের অধিকাংশের বয়স ৬০ থেকে ৭০। করাচির সিভিল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের প্রধান ডা. ইমরান সারওয়ার শেখ জানান, যারা হাসপাতালে আসছেন তাদের বমি, ডায়রিয়া এবং উচ্চমাত্রায় জ্বরসহ নানা উপসর্গ রয়েছে। তাদের অনেকেই বাইরে কাজ করছিল। দেশটির বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এমনটা হচ্ছে। এটি সারা বিশ্বে ঘটছে। ইউরোপেও ঘটছে। করাচির এই তীব্র তাপপ্রবাহ আগামী সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। এদিকে পাকিস্তানের প্রতিবেশী দেশগুলোতেও সাম্প্রতিক সময়ে তীব্র গরম অনুভূত হচ্ছে। ভারতের রাজধানী দিল্লিও ‘অভূতপূর্ব’ তাপপ্রবাহ প্রত্যক্ষ করে চলেছে। গত মে মাস থেকে সেখানে প্রতিদিনের তাপমাত্রাই ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে।  
ঈদে অতিরিক্ত খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি ১২০০ পাকিস্তানি
পাকিস্তানের পাঞ্জাব এবং খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে ঈদুল আজহায় কোরবানির পর অতিরিক্ত খাবার খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১২০০ মানুষ। এর মধ্যে শুধু পেশোয়ারেই অসুস্থ হয়েছেন ৬১০ জন।  মঙ্গলবার (১৮ জুন) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঈদের পরদিন পেশোয়ারের লেডি রিডিং হাসপাতালে পাকস্থলী ও অন্ত্রের রোগ নিয়ে ভর্তি হয়েছেন ৬১০ জন। তাদের মধ্যে বেশিরভাগই অতিরিক্ত খাবার এবং মাংস খাওয়ার কারণে অসুস্থ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালটির মুখপাত্র মোহাম্মদ অসিম। এছাড়া পশুর দ্বারা আক্রান্ত হয়ে অনেকেই হাসপাতালে এসেছিলেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ঈদে অতিরিক্ত আমোদ-ফূর্তি করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়ে আরও ৫০০ জনের মতো ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালে। এদিকে পাঞ্জাব প্রদেশের ছয়টি বড় হাসপাতালে ঈদের ছুটির সময় ২ হাজার ২০০ জন ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৮০ জন পরিপাক তন্ত্রের সমস্যা, ডায়রিয়া এবং পেটের ব্যথা নিয়ে এসেছিলেন। সেইসঙ্গে লাহোরের জিন্নাহ হাসপাতালে ১৩০ জন এবং সার্ভিসেস হাসপাতাল, গঙ্গা রাম ও মায়ো হাসপাতালে ১০০ জন করে রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। ঈদের সময় অতিরিক্ত খাবার বর্জন করার জন্য জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।
ছাগলের মুখে প্লাস্টিকের দাঁত লাগিয়ে বিক্রি, অতঃপর...
প্লাস্টিকের দাঁত লাগিয়ে কোরবানির পশুর হাটে বিক্রি হচ্ছে ছাগল। বিষয়টি ধরে ফেলেন ক্রেতা। পরে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় ছাগল বিক্রেতাকে।   সম্প্রতি পাকিস্তানের করাচিতে ঘটেছে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম এআরওয়াই নিউজের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে (ভাইরাল) পড়েছে। এতে দেখা যায়, এক ক্রেতা একটি ছাগলের মুখ থেকে প্লাস্টিকের দাঁত খুলে আনছেন। পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ছাগল বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা সাতটি ছাগল জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তার বিক্রেতা পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে পশু বিক্রি করতে হায়দ্রাবাদ ও করাচিতে আসেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ব্যক্তি দোষ স্বীকার করেছেন। জিজ্ঞাসাবাদে আটক ব্যবসায়ী জানান, তার বাড়ি সিন্ধু প্রদেশে। তিনি ঈদুল আজহার জন্য পশু বিক্রি করতে করাচিতে এসেছিলেন। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করছে পুলিশ।
পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর গাড়িতে হামলা, ক্যাপ্টেনসহ নিহত ৭
পাকিস্তানে খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশে সেনাবাহিনীর গাড়িতে আইইডি (ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) দিয়ে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। এতে কেপ্টেনসহ দেশটির ৭ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন।  সোমবার (১০ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন এবং জিও নিউজ। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় রোববার খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশের লাকি মারওয়াতে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে দেশটির সেনাবাহিনীর একজন ক্যাপ্টেনসহ সাত সদস্য নিহত হন। এছাড়াও ওই প্রদেশের বাজাউরে নিরাপত্তা চেকপোস্টে অতর্কিত হামলা প্রতিহত করার কথা জানিয়েছে পুলিশ। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িটি কাচি কামার এলাকায় যাওয়ার পথে পাঞ্জাবের মিয়ানওয়ালি জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা সুলতানখেল গ্রামের কাছে হামলার শিকার হয়। পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর ইন্টার সার্ভিস পাবলিক রিলেশনসের (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে জানানো হয়, লাকি মারওয়াত জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়িতে একটি ইম্প্রোভাইজড বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরিত হয়েছে। দেশটির সেনাবাহিনীর মিডিয়া উইং আরও জানিয়েছে, এতে কাসুরের বাসিন্দা ক্যাপ্টেন মুহাম্মদ ফারাজ ইলিয়াস, সুবেদার মেজর মুহাম্মদ নাজির, ল্যান্স নায়েক মুহাম্মদ আনোয়ার, ল্যান্স নায়েক হুসেন আলী, মুলতানের সিপাহী আসাদুল্লাহ, গিলগিটের সিপাহী মনজুর হুসেন এবং রাওয়ালপিন্ডি জেলার সিপাহী রশিদ মেহমুদ নিহত হন।    
জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে পাকিস্তানসহ ৫ দেশ
পাকিস্তানসহ পাঁচটি দেশ জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হয়েছে। দুই বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছে দেশগুলো। ২০২৫ সালের প্রথম দিন থেকে দায়িত্ব পালন করবে এই পাঁচ রাষ্ট্র। পাকিস্তান বাদে নির্বাচিত দেশগুলা হচ্ছে– সোমালিয়া, পানামা, ডেনমার্ক ও গ্রিস। দেশগুলো জাপান, ইকুয়েডর, মাল্টা, মোজাম্বিক ও সুইজারল্যান্ডের স্থলাভিষিক্ত হলো। এশিয়া আসনে জাপানের স্থলাভিষিক্ত হয়েছে পাকিস্তান। এশিয়া আসনে জাপানের স্থলাভিষিক্ত হয়েছে পাকিস্তান।  শুক্রবার (৭ জুন) এমনটা জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি।  মঙ্গলবার ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে নতুন সদস্য নির্বাচনে ভোটাভুটি হয়। ডেনমার্ক পায় ১৮৪ ভোট, পানামা ১৮৩ ভোট, গ্রিস ও পাকিস্তান ১৮২ ভোট এবং সোমালিয়া পেয়েছে ১৭৯ ভোট। নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য হলো যুক্তরাজ্য, চীন, ফ্রান্স, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র; যাদের ভেটো ক্ষমতা রয়েছে। বাকি ১০ অস্থায়ী সদস্য ভোটাভুটিতে দুই বছরের জন্য নির্বাচিত হয়।
সাইফার মামলায় ইমরান খানের বেকসুর খালাস
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রতিষ্ঠাতা ইমরান খান অবশেষে সাইফার মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন। এ ছাড়া একই মামলা থেকে পিটিআইর ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মাহমুদ কুরেশীকেও অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সোমবার (৩ জুন) প্রধান বিচারপতি আমির ফারুক ও বিচারপতি মিয়াঙ্গুল হাসান আওরঙ্গজেবের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন। সাইফার মামলায় সাজার বিরুদ্ধে আপিলের সংক্ষিপ্ত রায়ে সাজা বাতিল করে তাদের বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। রায়ের সময় ইসলামাবাদ হাইকোর্টে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া ইমরান খানের বোন এবং শাহ মাহমুদ কুরেশির স্ত্রী ও কন্যারাও আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায়ের পর পিটিআই চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার গোহর বলেন, পাকিস্তান ও পাকিস্তানের ২৫ কোটি মানুষের জন্য আজ একটি খুশির দিন। একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ও ভিত্তিহীন মামলার অবসান হয়েছে। সালফার মামলায় খালাস পেলেও ইমরান খান ও কুরেশীকে জেলেই থাকতে হবে। কারণ, ইসলামি শরিয়াহ আইন লঙ্ঘন করে বিয়ে করার অভিযোগে করা মামলায় ইমরান খান ও তার স্ত্রী বুশরা বিবিকে অভিযুক্ত করা হয়। অন্যদিকে মাহমুদ কুরেশীকে ৯ মে দাঙ্গার মামলায় দোষী সাব্যস্ত করেন দেশটির আদালত।  উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ইমরান খান ও কুরেশীকে সাইফার মামলায় ১০ বছরের জন্য কারাদণ্ড দেওয়া হয়।  সূত্র: খবর ডন, জিও নিউজ
পাকিস্তানে টায়ার ফেটে খাদে যাত্রীবাহী বাস, নিহত ২৮
পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে একটি যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নারী-শিশুসহ কমপক্ষে ২৮ জন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ২২ জন। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বুধবার (২৯ মে) সকালে বাসটি গোয়াদর থেকে কোয়েটার দিকে যাচ্ছিল। এ সময় বেলুচিস্তান প্রদেশের ওয়াশুকে বাসটি উল্টে খাদে পড়লে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে। দেশটির সংবাদমাধ্যম ডন বলছে, হতাহতদের মধ্যে নারী ও শিশু রয়েছেন। উদ্ধারকারী ও লেভিস কর্মকর্তাদের মতে, দুর্ঘটনায় আহত অন্তত ২২ জনকে বাসিমার সিভিল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। যাত্রীবাহী বাসের টায়ার ফেটে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে উদ্ধারকারী কর্মকর্তারা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ শোক প্রকাশ করেছেন এবং নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেছেন। একইসঙ্গে আহতদের সহায়তা দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। বেলুচিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী সরফরাজ বুগতিও ভয়াবহ এই দুর্ঘটনায় প্রাণহানির জন্য শোক প্রকাশ করেছেন এবং আহতদের জন্য প্রার্থনা করেছেন। এর আগে চলতি মে মাসে একই ধরনের দুর্ঘটনায় পাঞ্জাবের খুশব জেলায় একটি ট্রাক খাদে পড়ে যাওয়ায় একই পরিবারের ১৩ জন নিহত এবং আরও নয়জন আহত হয়েছিলেন। খুশাবের পাঞ্জ পীর মানওয়ান রোডে ব্রেক ফেল করার কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটে।