• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
আহত আ.লীগ নেতাকে চিকিৎসা দিতে দেরি করায় ডাক্তারকে মারধর
চাঁদপুরে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
চাঁদপুরে সুমাইয়া আক্তার নামে এক কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাতে শহরের নাজিরপাড়া এলাকার ইউসুফ ভিলার চতুর্থ তলার ভাড়া বাসার দরজা ভেঙে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। সুমাইয়া আক্তার চাঁদপুর সদর উপজেলার তরপুচন্ডী ইউনিয়নের কাঠেরপুল এলাকার নিপু কাজীর স্ত্রী। তিনি পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। স্বজনরা জানান, দুই বছর আগে চাঁদপুর সদর উপজেলার তরপুচন্ডী ইউনিয়নের কাঠেরপুল এলাকার শাহজাহান কাজীর ছেলে নিপু কাজীর সঙ্গে সুমাইয়া আক্তারের বিয়ে হয়। দীর্ঘদিন ধরে শাশুড়ির সঙ্গে তার বাগবিতন্ডা ও ঝগড়া বিবাদ চলছিল। সুমাইয়া তার চার বান্ধবীর সঙ্গে নাজিরপাড়ায় ফ্লাট বাসা ভাড়া করে পড়াশোনা করতেন। ঈদে সবাই বাড়িতে যান। দুদিন আগে শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে শাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া হলে তিনি নাজিরপাড়ায় ভাড়া বাসায় এসে অভিমান করে দরজা আটকে ফ্যানের সঙ্গে রশি লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে অভিযোগ সুমাইয়ার পরিবারের। ঘটনার পর বাড়ির মালিক সুমাইয়াদের ফ্ল্যাট থেকে দুর্গন্ধ পেলে ট্রিপল নাইনে ফোন করে পুলিশকে জানান। এরপর চাঁদপুর সদর মডেল থানা থেকে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে সুমাইয়ার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে। চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক মীর জানান, ‘মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাবে না।’
মাদক সেবন করে স্ত্রীকে মারধর, কারাগারে স্বামী 
চকরিয়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হামলা, নিহত ১
হাইমচরে ঘুরতে এসে বজ্রপাতে প্রাণ গেল যুবকের
পাউরুটি না পেয়ে কর্মচারীকে চড়-থাপ্পড়, প্রাণনাশের হুমকি
লক্ষ্মীপুরে হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু 
লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনায় চারদিন পর আহত ছাত্রলীগ নেতা এম সজীব মারা গেছেন।  মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত ২টার দিকে ঢাকার পপুলার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।  এর আগে শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের পাঁচপাড়া গ্রামের যৈদের পুকুরপাড়ে অতর্কিত হামলায় সজিবসহ ৪ জন আহত হয়। অভিযোগ রয়েছে তাদেরকে গুলিও করা হয়েছে।  সজীবের মৃত্যুর বিষয়টি চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুদ নিশ্চিত করেছেন।  সজিব চন্দ্রগঞ্জ কফিল উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন। তিনি চন্দ্রগঞ্জের পাঁচপাড়া গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে।  এ দিকে হামলার ঘটনায় সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাতে সজিবের মা বুলি বেগম বাদী হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক কাজী মামুনুর রশিদ বাবলু ও সদস্য সচিব তাজুল ইসলাম তাজু ভূঁইয়াসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছে। এতে ২০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।  এ ঘটনায় সোমবার চন্দ্রগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা তাজু ভূঁইয়াসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে তাদেরকে লক্ষ্মীপুর আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।  এজাহার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাতে চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন পাঁচপাড়া গ্রামের যৈদের পুকুরপাড় এলাকায় ছাত্রলীগ কর্মী সজীব, সাইফুল পাটোয়ারী, মো. রাফি ও সাইফুল ইসলাম জয়ের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় অভিযুক্তরা।  একপর্যায়ে সজীবকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। এ সময় তাকে বাঁচাতে গেলে অন্যদের ওপরও গুলি চালানোর অভিযোগ রয়েছে। পরে আহত অবস্থায় ওই চারজনকে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য সজীব, সাইফুল ও রাফিকে ঢাকায় প্রেরণ করে।
বাংলাদেশে পালিয়ে এলো বিজিপির আরও ১২ সদস্য
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত দিয়ে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) আরও ১২ সদস্য।  মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সকালে উপজেলার সদর ইউপির আষাঢ়তলী, জামছড়ি ও ঘুমধুম ইউপির রেজু সীমান্ত দিয়ে তারা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। জানা গেছে, দেশটির অভ্যন্তরে বিজিপি বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘাতে টিকতে না পেরে তারা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তাদেরকে নিরস্ত্রীকরণ করে নিজেদের তত্ত্বাবধানে রেখেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। বিজিবির গণসংযোগ কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ৮ নম্বর ওয়ার্ড জামছড়ি সীমান্ত দিয়ে ১০ বিজিপি সদস্য বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের বিজিবির তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে। এর আগে গত ১২ মার্চ বিজিপির ১৭৭ সদস্য পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিলেন। তাদের বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) হেফাজতে নেওয়া হয়েছিল।  
নোয়াখালীতে ছাত্রলীগের মিলনমেলা অনুষ্ঠিত
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ছাত্রলীগের সাবেক-বর্তমান নেতাকর্মীদের মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  সোমবার (১৫ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বামনী ডিগ্রি কলেজ প্রাঙ্গণে রামপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।  রামপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সামছুল আলম রাব্বির সভাপতিত্বে মিলনমেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা। উৎসবের উদ্বোধন করেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মির্জা মাশরুল কাদের তাশিক।  এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদল, মিলনমেলা উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সিরাজিস সালেকিন রিমন, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গোলাম শরীফ চৌধুরী পিপল, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফখরুল ইসলাম রাহাত প্রমুখ।   উল্লেখ্য, স্বাধীনতা পরবর্তী রামপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ৫ শতাধিক সাবেক-বর্তমান নেতৃবৃন্দের এ মিলনমেলা অংশ গ্রহণ করেন। এ সময় বক্তারা ছাত্রলীগের পূর্ববর্তী কমিটির স্মৃতিচারণ করে। মিলনমেলায় জাতীয় ও স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।         
বান্দরবানে আরও ১ কুকি-চিন সদস্য কারাগারে
বান্দরবানে হাও লিয়ান বম (৬৭) নামের সন্দেহভাজন আরও এক কুকি-চিন সদস্যকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে বান্দরবানের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে বিচারক মাইসুমা সুলতানা তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। হাও লিয়ান বান্দরবান সদরের লাইমিপাড়া এলাকার ঙুনৎিলর বমের ছেলে। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন আদালতের জিআরও বিশ্বজিত সিংহ। তিনি জানান, রুমায় ব্যাংক ডাকাতি, মসজিদে হামলা, ব্যাংক ম্যানেজারকে অপহরণ, টাকা-অস্ত্র লুটের ঘটনায় আরও একজনকে আদালতে হাজির করা হয়। লিয়ান বম নামে ওই ব্যক্তিকে আদালতে হাজির করা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মাইসুমা সুলতানা।  উল্লেখ্য, রুমা-থানচিতে একই ঘটনায় ৬৩ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।
বাঘাইছড়িতে পিকআপ উল্টে নারী নিহত
রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে যাত্রীবাহী পিকআপ উল্টে গিয়ে এক নারী নিহত হয়েছেন। তার নাম জিকু চাকমা। সোমবার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে বাঘাইছড়ির কচুছড়ি নামক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফেরদৌস মোহাম্মদ। তিনি বলেন, খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি বিহারপাড়া এলাকা থেকে পিকআপযোগে ২০-২২ জন নারী-পুরুষ দুপুর ১টায় বাঘাইছড়ি ইউনিয়নের মিলনপুর ভাবনা কুঠির বিহারে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগদান করে বিকাল ৫টায় অনুষ্ঠান শেষে মহালছড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। সীমান্ত সড়কের কচুছড়ি নামক এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পিকআপ উল্টে দুর্ঘটনা ঘটে বলে আমরা জানতে পারি। পিকআপে থাকা প্রত্যেকেই আহত হয়েছেন। যাত্রীদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি আরও বলেন, এ দুর্ঘটনায় জিকু চাকমা নামের একজন মারা গেছেন। তার মরদেহ খাগড়াছড়িতে পাঠানো হয়েছে।
মসজিদের বারান্দায় যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ
কক্সবাজারের টেকনাফের মসজিদের বারান্দা থেকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় আব্দুল্লাহ (৩৫) নামের এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (১৫ এপ্রিল) ভোর ৫টায় উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের পশ্চিম মহেশখালীয়া পাড়ার উম্মে হামজা জামে মসজিদের বারান্দা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত আবদুল্লাহ একই ইউপির ৯নং ওয়ার্ডের মহেশখালীয়া পাড়ার সফর আহাম্মদের ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শীদের থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, ফজরের নামাজ পড়তে মুসল্লিরা মসজিদে গেলে বারান্দায় লুঙ্গি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে স্থানীয় ইউপি সদস্য পৌঁছে পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। এরপর সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ বিষয়ে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শাহাদাত সিরাজী বলেন, আবদুল্লাহ দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মানসিক ভারসাম্যহীনভাবে চলাফেরা করতেন। এবং তিনি মাদকাসক্ত ছিলেন। তার থাকার নির্দিষ্ট কোনো জায়গা ছিলনা। আবদুল্লাহর পূর্ব পুরুষরা এই এলাকার বাসিন্দা হলেও তারা দীর্ঘ ৪৫ বছর পূর্বে দেশ ছেড়ে সৌদি আরব চলে যান। বর্তমানে তার এক আত্মীয় এই এলাকায় আছে এবং স্থানীয় ইউপি সদদ্যের উপস্থিতিতে তারাই মরদেহ শনাক্ত করেছেন। তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি- মানসিক ভারসাম্যহীন ও মাদকাসক্ত হওয়ার কারণে তিনি গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে মরদেহের ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।