• ঢাকা সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ইসলাম অবমাননার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত খ্রিস্টান নারীর মুক্তিতে উত্তাল পাকিস্তান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০২ নভেম্বর ২০১৮, ২০:২১ | আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০১৮, ২০:২৪
ছবি: ডয়চে ভেলে

পাকিস্তানে ইসলাম অবমাননার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত খ্রিস্টান নারী আসিয়া বিবিকে গত বুধবার বেকসুর খালাস দিয়েছিলেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। এদিন রায় ঘোষণার পরপরই উত্তাল হয়ে ওঠে পাকিস্তান।

শুক্রবার টানা তৃতীয়দিনের মতো ইসলামাবাদ, লাহোর ও করাচিসহ প্রধান শহরগুলোর সড়ক অবরোধ করে আসিয়া বিবির মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে বিক্ষোভ হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম জিওটিভি। এছাড়া বেশকিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

পাকিস্তানে আইন অনুসারে, ধর্ম অবমাননার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। কিন্তু বুধবার সুপ্রিম কোর্ট আট বছর আগে মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসিয়া বিবিকে বেকসুর খালাসের নির্দেশ দেন। আসিয়ার আপিলের রায় পড়ে শোনান সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার।

এতে বলা হয়, নিম্ন আদালত ও হাইকোর্টের রায় পরিবর্তন করে তাকে বেকসুর খালাস দেয়া হচ্ছে। তার দণ্ড প্রত্যাহার করা হলো।

এই রায়ের পর কয়েক হাজার পাকিস্তানি ইসলামাবাদ, করাচি, রাওয়ালপিন্ডির প্রধান প্রধান সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করে। টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তা আটকে দেয়া হয়। সংবাদ মাধ্যম ও পুলিশের ওপরও হামলার ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবারও আসিয়া বিবির মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে বিক্ষোভ হয়।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের জুনে শেখপুরা এলাকায় ফল পাড়তে গিয়ে প্রতিবেশী নারীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় চার সন্তানের জননী আসিয়া বিবির। তাদের অভিযোগ, মহানবী হজরত মুহাম্মদকে (সা.) অপমান করেছেন আসিয়া।

এই অভিযোগে ২০১০ সালে আসিয়া বিবিকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। গত ৮ বছর ধরে তিনি জেলে ছিলেন। বারবার নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন তিনি। তার দাবি, তিনি খ্রিস্টান বলে তার হাতে পানি খেতে অস্বীকার করেন প্রতিবেশীরা।

আরও পড়ুন :

কে/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়