Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ২ মাঘ ১৪২৮
discover

সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন পরীমণি (ভিডিও)

সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন পরীমণি (ভিডিও)
ছবি: সংগৃহীত

ঢাকাই সিনেমার প্রতিবাদী অভিনেত্রী পরীমণি। একদিকে সিনেমা, অন্যদিকে ব্যক্তিজীবন- দুই জায়গায়ই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে তিনি। তবে এই তারকার ব্যক্তিজীবন নিয়ে নেটিজেনদের আগ্রহের মাত্রাটা একটু বেশিই বটে! তবে নিন্দুকের সমালোচনা ও কটূক্তিকে পায়ে মাড়িয়ে সাহসী পদক্ষেপে উড়ে চলেছেন পরী।

জন্মদিন পরীর কাছে বরাবরই স্পেশাল। প্রতিবছর বেশ ঘটা করেই দিনটি উদযাপন করেন তিনি। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। নেচে-গেয়ে নিজেকে ও প্রিয়জনদের মাতিয়ে রাখেন এই অভিনেত্রী। তার ব্যতিক্রমী পোশাক পার্টিতে আগত অতিথি ও নেটিজেনদের নজর কেড়েছে। সমালোচনা থেকে বাদ পড়েনি নাচের ছলে পরীর উড়ে বেড়ানো।

জন্মদিনে পরীমণির বিশেষ পোশাকে ধুমছে নাচ এবং সেই ভিডিও ভাইরাল হলে নেটিজেনদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়। কেউ পরীর সাম্প্রতিক কার্যক্রমকে ‘সাহসী’, ‘উচিত জবাব’ বলছেন। আবার কেউ একে বলছেন ‘বেলাল্লাপনা’। এমনকি জন্মদিনের পোশাক নিয়ে ট্রলের শিকার হয়েছেন এই চিত্রনায়িকা।

হার মানার মেয়ে নন পরী। আর তাই সব সমালোচনার কড়া জবাব দিয়েছেন তিনি। জন্মদিনের সন্ধ্যার নাচের ভিডিও নিয়ে সমালোচনার জবাব দিয়েছেন সকালের ভিডিও প্রকাশ করে। নিজের জীবনের বিশেষ দিনটির সকালে গাজীপুরের একটি এতিমখানায় শিশুদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন । তাদের সঙ্গে কেক কেটে, তাদেরকে গিফট দিয়ে আনন্দের জোয়ার বইয়ে দেন এই অভিনেত্রী।

পরীর সেই ভিডিওতে দেখা যায়, এতিম শিশুদের লাল শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে লাল চুড়ি পরেছেন পরী। এতিম শিশুদের মাথায় বাহারি রঙের টুপি, মুখে মিষ্টি হাসি। সবার সঙ্গে তাল মিলিয়ে নায়িকাও মাথায় পরেছেন জন্মদিনের সাদা টুপি। লাল-সাদা রঙের পাঁচটি কেক কেটে শিশুদের মুখে তুলে দিচ্ছেন তিনি। কেক কাটার সময় হ্যাপি বার্থডে গানে পরীমণিকে শুভেচ্ছা জানায় শিশুরা।

জবাবের এখানেই শেষ নয়। একটু পেছনে ফিরে তাকালেই দেখা যায়, গত বছর পরীর জন্মদিনের আয়োজনে ময়ূরের আদলে নির্মিত হয়েছিল পুরো মঞ্চ। নায়িকার পোশাকেও ছিলো ময়ূরের ছোঁয়া। সেই আয়োজনে আগত সাংবাদিকদের কাছে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করার সময় ইংরেজিতে ময়ূরকে 'পিকক' বলতে গিয়ে ভুল করে 'ককপিট' উচ্চারণ করেন। সেটি নিয়েও আলোচনা কম হয়নি। আর তাই এবারের আয়োজনে বিমানের ককপিটের আদলে সাজানো হয়েছিল পরীর জন্মদিনের মূল মঞ্চ। ওপরে লাইট বসানো ইংরেজিতে লেখা 'ফ্লাই উইথ পরীমণি' অর্থাৎ 'পরীমণির সঙ্গে ওড়ো'। জন্মদিনের রাতে বিমানবালার বেশে ককপিটে আসেন পরীমণি।

এবারের জন্মদিনের পুরো অনুষ্ঠানে ছিল অভিনবত্ব। আমন্ত্রণপত্রেও ছিল সৃজনশীলতার ছাপ। বিমানের বোডিং পাসের আদলেই তৈরি করা হয়েছিল সেই নিমন্ত্রণপত্র। তাতে স্পষ্ট করেই সেখানে লেখা ছিল ‘বিশুদ্ধ হৃদয়ে’র কাছের বন্ধুরাই অনুষ্ঠানে যেতে পারবেন।

সাহস এবং প্রতিবাদের ভাষা বিস্ময়কর। এর চেয়ে মধুর প্রতিশোধ আর হয় না। মাদক মামলায় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তির পর পরীর পরনে ছিল সাদা টিশার্ট এবং মাথায় সাদা পাগড়ির মতো করে জড়ানো একটি কাপড়। জামিনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে কারাগার থেকে বেরিয়ে একটি ছাদ খোলা গাড়িতে উঠে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে হাত নাড়েন তিনি। পরী তার হাতের তালুতে মেহেদির রঙে লিখেছিলেন- ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’। লেখাটির নিচে তিনি এঁকেছিলেন হাতের মধ্যাঙ্গুল প্রদর্শনের একটি চিহ্ন। পরবর্তীতে আদালতে হাজিরা দিতে গেলেও তার হাতের তালুতে মেহেদীর রঙে নতুন লেখা নজরে আসে। এগুলো অবশ্যই পরীর প্রতিবাদী বার্তা ছিল।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘গুনিন’ সিনেমার শুটিং করছেন পরীমণি। এ ছাড়াও এই মুহূর্তে বেশ কয়েকটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়ে আছেন পরী। গুনিনের পর প্রীতিলতা, বায়োপিক, অন্তরালে এবং মা’সহ আরও বেশ কিছু সিনেমার শুটিং শুরু করার কথা রয়েছে তার।

এনএস/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS