• ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
logo
৪৫৫ রানের লিডে দিন শেষ করল শ্রীলঙ্কা
ভালো শুরুর পর ফিরলেন জয়
সংক্ষিপ্ত স্কোর শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ১৫৯  ওভারে ৫৩১/১০, বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ১৩ ওভারে ৫১/১ রান   ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ  ১৬: ৩৫, মার্চ ৩১ চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৫৩১ রানে অলআউট হয়েছে লঙ্কানরা। বড় লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যাটিংয়ে নেমেছে টাইগাররা।   ৫৩১ রানে থামল শ্রীলঙ্কা ১৬: ১০, মার্চ ৩১ টাইগার বোলারদের হতাশায় ডুবিয়ে অবশেষে ৫৩১ রানে থামল শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস। সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে ৯২ রানে অপরাজিত থাকলেন কামিন্দু মেন্ডিস। পাহাড় সমান রানের চাপ মাথায় নিয়ে প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামবে স্বাগতিক দল।   অবশেষে উইকেট পেলেন মিরাজ ১৫: ৫৯, মার্চ ৩১ চট্টগ্রাম টেস্টে দুই দিনে ৪৫ ওভারের বেশি বল করেছেন মিরাজ। অবশেষে পেলেন কাঙ্ক্ষিত উইকেট। লাহিরু কুমারকে বোল্ড করেছেন তিনি।  ৯ উইকেটে শ্রীলঙ্কা ৫১৮।   ২ বছর পর বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫০০ রান ১৫: ৫২, মার্চ ৩১ দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৫০০ ছাড়াল সফরকারীরা। ফলে প্রায় দুই বছর ও ৯ টেস্ট পর বাংলাদেশের বিপক্ষে কোনো দল ৫০০ বা তার বেশি রান করল। সবশেষ ২০২২ সালের মে মাসে মিরপুরেই ৫০৬ রান করেছিল লঙ্কানরা। এবার চট্টগ্রামে এলো ৫০০ রান। ১৫৬ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৫১৬/৮   রান আউট বিশ্ব ১৫: ৩৫, মার্চ ৩১ সাকিবের গুড লেংথের বলটি স্কয়ার লেগে খেলেছিলেন ফার্নান্দো। এরপরই দ্রুত প্রান্ত বদলের চেষ্টা। তবে সার্কেল থেকে শান্তর দুর্দান্ত এক থ্রোয়ে উইকেট হারিয়েছে সফরকারীরা।  ১৫২ ওভারে ৪৯৭/৮   ক্যাচ ছাড়লেন হাসান ১৫: ২৫, মার্চ ৩১ ফিল্ডিং ব্যর্থতায় যেন বিশাল গল্প লিখছে বাংলাদেশ। এবার কামিন্দু মেন্ডিসের ক্যাচ মিস করেছেন হাসান মাহমুদ। ফলে ৬০ রানে বেঁচে গেলেন কামিন্দু। এ নিয়ে ষষ্ঠবার ক্যাচ ছাড়লো বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। ১৫০ ওভারে ৪৯২/৭   দ্বিতীয় সেশনে বাংলাদেশের প্রাপ্তি ২ উইকেট ১৪: ৫০, মার্চ ৩১ এই সেশনেও লঙ্কানদের দাপট। ৫ উইকেটে ৪১১ রানে মধ্যাহ্নবিরতিতে যাওয়া লঙ্কানরা ৭ উইকেটে ৪৭৬ রানে দ্বিতীয় সেশন শেষ করেছে। সিলেট টেস্টে দুই ইনিংসে সেঞ্চুরির পর চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসেও হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন কামিন্দু মেন্ডিস। তার সঙ্গে আছেন বিশ্ব ফার্নান্দো।   জুটি ভাঙলেন সাকিব ১৪: ৩৪, মার্চ ৩১  সাকিবের ঘূর্ণিতে লেগ-বিফোর হয়ে ফিরেছেন জয়সুরিয়া। রিভিউ নিয়ে বাঁচতে চেয়েছিলেন। তবে তাতেও শেষ রক্ষ হয়নি। ৪৭৬ রানে সপ্তম উইকেট হারাল শ্রীলঙ্কা।   এবার ক্যাচ ছাড়লেন লিটন ১৪: ২০, মার্চ ৩১  আরও একবার বাঁচলেন জায়াসুরিয়া। ব্যাট করতে নেমে ৬ রানেই জীবন পেয়েছিলেন। এবার উইকেটরক্ষক লিটন জীবন দিয়েছেন তাকে। তার ক্যাচ নিতে পারেননি লিটন। তাইজুলের টেনে করা ডেলিভারি অফ সাইডে খেলার চেষ্টা করেছিলেন জয়াসুরিয়া। তবে তা লাগে ব্যাটের ভেতরের কানায়। গ্লাভসে জমাতে পারেননি লিটন। এতে ২৪ রানে বেঁচে যান জায়াসুরিয়া।   বাঁচলেন কামিন্দু ১৪: ১০, মার্চ ৩১ মিরাজের অফ স্ট্যাম্পের বাইরের টসড-আপ ডেলিভারি রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলতে চেয়েছিলেন কামিন্দু মেন্ডিস। তবে এতে পরাস্ত হন এই ব্যাটার। আর লিটনের হাতে বল যেতেই জোরালো আবেদনে সাড়া দেন আম্পায়ার। সময়ক্ষেপণ না করেই রিভিউ নেন কামিন্দু।  রিপ্লেতে দেখা যায়, ব্যাট ও বলের দূরত্ব অনেকটাই স্পষ্ট। এতে বদলে যায় আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত। বেঁচে যান কামিন্দু। ১৩৫ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৪৫৯/৬   অবিশ্বাস্য ক্যাচ মিস ১৩: ০৯, মার্চ ৩১ আরও একটি সুযোগ তৈরি করেছিলেন খালেদ। কিন্তু বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণে সেটিও হাতছাড়া হলো। ৬ রানের মাথায় জীবন পেলেন প্রবাথ জয়াসুরিয়া। ইনিংসের ১২১তম ওভারে খালেদের বলে প্রথম স্লিপে ক্যাচ তুলেছিলেন জয়াসুরিয়া। বাতাসে ভাসমান সেই ক্যাচ মুঠোবন্দি করতে পারেননি শান্ত। তবে শান্ত একা না, স্লিপে দাঁড়ানো তিনজনেই ক্যাচটি মিস করেছেন। শান্তর হাত থেকে ছুটে যাওয়া বল মুহূর্তেই লাফিয়ে দিপুর কাছে গিয়েছিল। সেখান থেকে হাত ছুঁয়ে বল জাকিরের কাছেও গিয়েছিল। তবে কেউই বলটি তালুবন্দি করতে পারেননি।   ধনাঞ্জয়াকে ফেরালেন খালেদ ১২: ৫৪, মার্চ ৩১ মধ্যাহ্নবিরতি থেকে ফিরেই সাফল্য পেয়েছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনের প্রথম ওভারেই ড্রেসিং রুমে ফিরেছেন ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। খালেদের লেগ স্ট্যাম্পের ওপরের ডেলিভারি কিছুটা ভুল করেই ব্যাট চালিয়ে বসেন ধনাঞ্জয়া। তবে বল আঘাত লাগে প্যাডে, আর জোরালো আবেদনে আম্পায়ারও সাড়া দেন। রিভিউ নিলেও তাতে লাভ হয়নি। আম্পায়ার্স কলে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয়েছে তাকে। ৬ চার ও ২ ছক্কায় ১১১ বলে ৭০ রান করে ফিরলেন এই ব্যাটার  ১২০ ওভারে ৪১৭/৬   বড় সংগ্রহের আভাস দিয়ে মধ্যাহ্নবিরতিতে শ্রীলঙ্কা ১২: ১০, মার্চ ৩১ চট্টগ্রাম শহরে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হলেও জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে নির্ধারিত সময়েই মাঠে গড়ায় দ্বিতীয় দিনের খেলা। ধারণা করা হচ্ছিল, বৈরী আবহাওয়ার সুযোগ কাজে লাগিয়ে দ্রুত উইকেট তুলে নেবেন টাইগার পেসাররা। কিন্তু হয়েছে উল্টো। দিনের প্রথম সেশনে একটি সাফল্য পেয়েছে বাংলাদেশ, তা-ও সাকিবের হাত ধরে। হাফ-সেঞ্চুরি করা চান্ডিমালকে ৫৯ রানে থামিয়েছেন সাকিব। ইনিংসের ১০৬তম ওভারে সাকিবের বলে কট বিহাইন্ড হন এই ব্যাটার। লিটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে খেলেন ১০৪ বলে ৫৯ রানের ইনিংস। লঙ্কানদের সংগ্রহ ৪০০ ছাড়িয়ে নিয়ে গেছেন অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। ৪ উইকেটে ৩১৪ রান নিয়ে দিন শুরু করা শ্রীলঙ্কা ৫ উইকেটে ৪১১ রান নিয়ে মধ্যাহ্নভোজে গেছে। ধনাঞ্জয়া ৭০ রান ও কামিন্দু মেন্ডিস ১৭ রানে অপরাজিত আছেন।  ১১৮ ওভারে ৪১১/৫   ব্রেক-থ্রু এনে দিলেন সাকিব ১১:২১, মার্চ ৩১ দ্বিতীয় দিনের শুরুতে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। তার অফ স্ট্যাম্পের বাইরের ফুল লেংথ ডেলিভারিতে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন চান্দিমাল। লিটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে ১০৪ বলে তার ব্যাট থেকে এসেছে ৫৯ রান।   ধনাঞ্জয়ার ফিফটি ১১:১৯, মার্চ ৩১ চট্টগ্রামেও সিলেট টেস্টের ছন্দ জিইয়ে রাখলেন সিলভা। টানা তৃতীয়বারের মতো খেললেন পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস। টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৪তম ফিফটি ছুঁতে ৭০ বল লেগেছে তার। বাংলাদেশের বিপক্ষে এটি তার দ্বিতীয় অর্ধশতক। ১০৫ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৩৭৫/৪     চান্দিমালের হাফ-সেঞ্চুরি ১১:০৪, মার্চ ৩১ সিলেট টেস্টের ব্যর্থতা মুছে চট্টগ্রাম টেস্টে রানের দেখা পেয়েছেন চান্দিমাল। ৮৭ বলে তুলে নেন ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি। টাইগারদের বিপক্ষে এটি তার চতুর্থ ফিফটি। এর সঙ্গে পাঁচটি সেঞ্চুরিও আছে। সব মিলিয়ে তার ক্যারিয়ারের ২৬তম ফিফটি এটি। দিনের শুরুতেই উইকেট থেকে কিছুটা সহায়তা পেয়েছেন চান্দিমাল। খালেদ ও হাসানের অন্তত তিনবার ব্যাটের কানায় লেগেছে বল। তবে তা বিপদ ঘটনার মতো জায়গায় পৌঁছায়নি। অন্যপ্রান্তে ফিফটি ছোঁয়ার অপেক্ষায় ডি সিলভা। ৬৬ বলে ৪৭ রানে অপরাজিত লঙ্কান অধিনায়ক। ১০৩ ওভারে ৩৬৯/৪     চান্দিমাল-ধনাঞ্জয়ার জুটিতে পঞ্চাশ ১০:৪১, মার্চ ৩১ দ্বিতীয় দিনের শুরুর ৩০ মিনিটেও হতাশ বাংলাদেশ। ভাগ্যও সহায় হয়নি লাল-সবুজ শিবিরের। তবে ভাগ্যের ছোঁয়া কাজে লাগিয়ে পঞ্চাশ রানের জুটি গড়েছেন ডি সিলভা ও চান্দিমাল। ৯৭ ওভার শেষে সফরকারীদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩৪০ রান। দিনের প্রথম ৭ ওভারে ২৬ রান তুলেছেন এই জুটি।     দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু ১০: ০৫, মার্চ ৩১ চট্টগ্রামে এখনও মেঘ আছে। তবে বৃষ্টি না থাকায় নির্ধারিত সময়েই শুরু হয়েছে টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা। পেসার খালেদ আহমেদ প্রথম ওভারটি করেছেন। তিনটি স্লিপ নিয়ে বল করছেন তিনি।     বড় লক্ষ্য শ্রীলঙ্কার ১০: ০৪, মার্চ ৩১ দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর আগে মেন্ডিসের ভাষ্য, আমরা ভালো অবস্থানে আছি। এই পিচে যদি ৪৫০ থেকে ৫০০ রান করতে পারি, তাহলে ভালো হবে। আমাদের তিন পেসার আছে। গত ম্যাচে বোলাররা ভালো বোলিং করেছে। উইকেটে কিছু টার্ন আছে। তাই বোলারদের জন্যও ভালো সুযোগ আছে।     রান-পাহাড়ে চাপা পড়ার শঙ্কা ১০: ০২, মার্চ ৩১ চট্টগ্রাম টেস্টে প্রথম দিন জুড়ে দাপট দেখিয়েছে সফরকারীরা। বড় স্কোরের ভিত গড়ে ৪ উইকেট ৩১৪ রান তুলে নিয়েছে লঙ্কানরা। অন্যদিকে লঙ্কানদের দ্রুত অলআউটের অভিযানে নামবে বাংলাদেশ। প্রথম দিনে পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস খেলেছেন সফরকারীদের তিন ব্যাটার। সেঞ্চুরির খুব কাছে গিয়ে ফেরেন দিমুথ কারুনারাত্নে (৮৬) ও কুসাল মেন্ডিস (৯৩)। চান্দিমাল ৩৪ ও ধানাঞ্জয়া ১৫ রানে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন।     শ্রীলঙ্কা সংক্ষিপ্ত স্কোর (প্রথম দিন শেষে ): ১০: ০১, মার্চ ৩১ শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস : ৯০ ওভারে (মাদুশকা ৫৭, কারুনারাত্নে ৮৬, কুসাল ৯৩, ম্যাথিউস ২৩, চান্দিমাল ৩৪*, ধানাঞ্জয়া ১৫*; খালেদ ১০-১-৪১-০, হাসান ১৭-৫-৬৪-২, সাকিব ১৮-২-৬০-১, মিরাজ ২৮-৪-৯৫-০, তাইজুল ১৭-৪-৪৮-০) বিস্তারিত : চট্টগ্রামে প্রথম দিনে ক্যাচ মিসের মাশুল গুনলো টাইগাররা   চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনে স্বাগতম ০৯: ৪৭, মার্চ ৩১ চট্টগ্রাম শহরে সকালে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। এখনও আকাশজুড়ে কালো মেঘ রয়েছে। চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিনে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩১৪ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিনের মতো স্বাগতম।  
জুটি ভাঙলেন সাকিব
নিশাঙ্কা ও আসালাঙ্কার ব্যাটিং নৈপুণ্যে সিরিজ সমতায় লঙ্কানরা
মুশফিক ও শান্তর দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে দিলো বাংলাদেশ
রিশাদ-তাসকিন ঝড় সামলে সিরিজ জিতলো শ্রীলঙ্কা
আট উইকেটের জয়ে সিরিজ সমতায় ফিরলো বাংলাদেশ
  টাইগারদের আট উইকেটের জয় হৃদয় কিছুটা ধীর গতিতে ব্যাট করলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নিজের রূপ বদলায় শান্ত। শেষ পর্যন্ত হৃদয়ের ২৫ বলে ৩২ রান এবং শান্তর ৩৮ বলে ৫৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংসে ভর করে আট উইকেট ও ১১ বল হাতে থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় টাইগাররা।     শান্ত-হৃদয় জুটি লিটনের আউটের পর তাওহীদ হৃদয়কে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন নাজমুল হাসান শান্ত। দুজনের নিয়ন্ত্রিত ব্যাটিংয়ে জয়ের পথে এগোতে থাকে টাইগাররা।   সৌম্যর পর লিটনের বিদায় সৌম্যর বিদায়ের পর বেশিক্ষণ পিচে থাকতে পারেনি লিটনও। ২৪ বলে ৩৬ রান করে পাথিরানার দ্বিতীয় শিকার হন এই টাইগার ওপেনার।   ভালো শুরু পর সৌম্যর বিদায় ভালো শুরু করলেও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি সৌম্য সরকার। ২২ বলে ২৬ রান করে পাথিরানাকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ আউট হন এই বাঁহাতি ব্যাটার।     পাওয়ার প্লেতে উইকেট না হারিয়ে ফিফটি জবাব দিতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে দুই টাইগার ওপেনার লিটন কুমার দাস ও সৌম্য সরকার। দুজনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে পাওয়ার প্লেতে উইকেট না হারিয়ে ৬৩ রান তোলে বাংলাদেশ।   ১৬৬ রানের লক্ষ্য পেল টাইগাররা সপ্তম উইকেটে দাসুন শানাকাকে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। শেষ পর্যন্ত শানাকার ১৮ বলে ২০ রান এবং ম্যাথিউসের ২১ বলে অপরাজিত ৩২ রানে ভর করে ১৬৫ রানের লড়াকু পুঁজি পায় শ্রীলঙ্কা।   আসালাঙ্কাকে ফেরালেন মাহেদী সামারাবিক্রমার বিদায়ের পর ব্যাট চালাতে থাকেন চারিথ আসালাঙ্কা। তবে ১৪ বলে ২৮ রান করে মাহেদীর বলে বোল্ড আউট হন এই বাঁহাতি ব্যাটার।   মোস্তাফিজের প্রথম শিকার চারিথ আশালাঙ্কাকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন সাদিরা সামারাবিক্রমা। তবে ইনিংস বড় করতে পারেন তিনি। ১১ বলে ৭ রান করে মোস্তাফিজের প্রথম শিকার হন এই লঙ্কান ব্যাটার।   কুশলের পর কামিন্দুর বিদায় কুশলের বিদায়ের পর পিচের বেশিক্ষণ টিকতে পারেনি কামিন্দুও। ১০তম ওভারের তৃতীয় বলে রিশাদকে বিশাল ছক্কা হাঁকান কামিন্দু মেন্ডিস। পরের বলেই রান আউটে কাটা পড়েন তিনি। ২৭ বলে ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন এই বাঁহাতি ব্যাটার।   কুশল মেন্ডিসকে ফেরালেন সৌম্য কামিন্দু কিছু ধীরে ব্যাটিং করলেও দ্রুত রান তুলতে থাকেন কুশল মেন্ডিস। তবে এই ডান হাতি ব্যাটারকে সাজঘরে ফেরান সৌম্য সরকার। ২২ বলে ৩৬ রান করে ক্যাচ আউট হন তিনি।   পাওয়া প্লেতেই ৪৯ রান সফরকারীদের ফার্নান্দো শূন্য হাতে ফিরলেও কামিন্দু মেন্ডিসকে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন আরেক ওপেনার কুশল মেন্ডিস। দুজনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে পাওয়ার প্লেতে এক উইকেট হারিয়ে পাওয়া প্লেতে ৪৯ রান তুলতে পারে লঙ্কানরা।   তাসকিনের প্রথম আঘাত  ইনিংসের প্রথম ওভারেই দুর্দান্ত শুরু করেন টাইগার পেসার শরিফুল ইসলাম। টানা ছয় বল ডট দিয়ে মেইডিন ওভার করেন এই বাঁহাতি পেসার। পরের ওভারের তৃতীয় বলে অভিষ্কা ফার্নান্দোকে ফিরিয়ে ভালো শুরু করে তাসকিন।     বাংলাদেশ একাদশ লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), সৌম্য সরকার, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), তাওহীদ হৃদয়, জাকের আলী অনিক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শেখ মেহেদী হাসান, রিশাদ হোসেন, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান।   শ্রীলঙ্কা একাদশ আভিষ্কা ফার্নান্দো, কুশল মেন্ডিস, কামিন্দু মেন্ডিস, সাদিরা সামারাবিক্রমা, চারিথ আসালঙ্কা (অধিনায়ক), অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, দাসুন শানাক্কা, মাহিশ থিকশানা, দিলশান মাদুশানা, বিনুরা ফার্নান্দো ও মাথিশা পাথিরানা।   টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। ঘুরে দাঁড়ানো ম্যাচে টস জিতে শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছে টাইগাররা।    
আহার ও শিহাবের ব্যাটিং নৈপুণ্যে আইরিশদের হারাল যুবারা
  শিহাবের ফিফটি ২১:২২, জানুয়ারি ২২ আহার আমিন ও শিহাব জেমসের নিয়ন্ত্রিত ব্যাটিংয়ে জয়ের পথে এগিয়ে যেতে থাকে যুবারা। শেষ পর্যন্ত আমিনের ৬৩ বলে ৪৫ রান এবং শিহাবে ৫৪ বলে অপরাজিত ৫৫ রানে ভর করে ১৯ বল ও ৬ উইকেট হাতে থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় লাল-সবুজের প্রতিধিনিরা।     আমিন ও শিহাবের জুটি ২০:৫০, জানুয়ারি ২২ দলীয় ১৩০ রানের চার ব্যাটারকে হারিয়ে বাংলাদেশ যখন কিছুটা চাপে রয়েছে। তখন দলকে এগিয়ে নেওয়ার কাজটা করেন আহার আমিন ও শিহাব জেমস।   রিজওয়ান ও আরিফুলের বিদায় ২০:২৩, জানুয়ারি ২২ দুই ওপেনারের বিদায়ের পর টাইগার শিবিরে হাল ধরেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। তবে ইনিংস বড় করতে পারেনি কেউই। ২৩ বলে ১৩ রান করে আরিফুল ইসলাম আউট হলে, ২১ রান করে তাকে সঙ্গ দেন মোহাম্মদ রিজওয়ান।     সিদ্দিকের পর শিবলির বিদায় ১৯:৪১, জানুয়ারি ২২ সিদ্দিকের বিদায়ের পর লেগ বিফোরে শিকার হন টাইগার ওপেনার আশিকুর রহমান শিবলি। ৬০ বলে ৪৪ রান করে আউট হন তিনি। এতে প্রতিষ্ঠিত দুই ব্যাটারকে হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ।   সিদ্দিকের বিদায় ১৯:২৫, জানুয়ারি ২২ বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শিবলির সঙ্গে দুর্দান্ত জুটি পড়েন আদিল বিন সিদ্দিক। তবে ফিফটি পূরণ করতে পারেননি এই ব্যাটার। ৬৩ বলে ৩৬ রান করে আউট হন তিনি।   শিবলি-আদিলে এগোচ্ছে বাংলাদেশ ১৮:৫০, জানুয়ারি ২২ ২৩৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বেশ ভালোভাবেই দলীয় রানের চাকা এগিয়ে নিচ্ছেন দুই ওপেনার শিবলি ও আদিল। এই দুই ব্যাটারে ভর করে ৯ ওভারেই দলীয় ৫০ রান পেরিয়ে গেছে লাল-সবুজেরা। ১৩ ওভার শেষে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৬১ রান তুলে ফেলেছে যুবারা।   হিল্টনের সেঞ্চুরির আক্ষেপ ১৭:৩০, ২২ জানুয়ারি শেষ দিকে ১০ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেছেন কিয়ান হিল্টন। তার ১১১ বলে ৮৯ রানে ভর করে ৭ উইকেট ২৩৪ রানের বড় পুঁজি পায় আয়ারল্যান্ড।   রাব্বির ব্রেকথ্রু ১৬:৪৮, ২২ জানুয়ারি হিল্টনকে সঙ্গ দিয়ে রান তুলতে থাকেন স্কট ম্যাকবেথ। তবে ফিফটি পূরনের আক্ষেপ নিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। ৫৯ বলে ৩৪ রান করা এই ব্যাটারকে আউট করে বাংলাদেশকে খেলায় ফেরান মাহফুজুর রহমান রাব্বি।   হিল্টনের ফিফটি ১৬:২৫, ২২ জানুয়ারি ৯৫ রানে চার ব্যাটারকে হারিয়ে চাপে পড়লেও, আইরিশ শিবিরে হাল ধরেন কিয়ান হিল্টন। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন স্কোট ম্যাকবেথ। ৭৬ বলে ফিফটি তুলে নেন হিল্টন।   রাফির পর জীবনের উইকেট উদযাপন ১৫:৫৫, ২২ জানুয়ারি রাফির উইকেট উদযাপনের দিনে ফিলিপ্পুসকে ফিরিয়ে ভাগ বসান পারভেজ জীবন। ২৯ বলে ১৩ রান করে আউট হন এই আইরিশ অধিনায়ক। এতে দলীয় ৯৫ রানে চার উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে আয়ারল্যান্ড।   উইকেটের মিছিলে রাফি ১৫:২৬, জানুয়ারি ২২ অন্য ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার অধ্যায়ে একপ্রান্ত আগলে রেখে আইরিশদের রানের চাকা সচল রেখেছিলেন ওপেনার নেইল। তবে এবার তাকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখিয়েছেন রাফি। টাইগার এই পেসারের বলে বোল্ড হয়ে ব্যক্তিগত ২৭ রানে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার।   মারুফের পর জীবনের উইকেট ১৪:৫৫, জানুয়ারি ২২ প্রথম পাওয়ার প্লে শেষে আইরিশদের সংগ্রহ ছিল ১ উইকেটে ৪৫ রান। বাংলাদেশি বোলাররা মাঝে কিছুটা সময় চেপে ধরলেও ঠিকই রানের চাকা সচল রেখেছিল তারা। তবে ইনিংসের ১১তম ওভারে আক্রমণে এসেই উইকেটে নাম লিখিয়েছেন জীবন। আইরিশদের টপ-অর্ডার ব্যাটার গ্যাভিন রাউলস্টনকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখিয়েছেন তিনি। ১২ বলে মাত্র ৫ রানে ফিরেছেন এই ব্যাটার।    আইরিশ শিবিরে মারুফের আঘাত ১৪:৪৫, জানুয়ারি ২২ শুরুর দিকেই আইরিশদের চেপে ধরে বাংলাদেশি বোলাররা। ইনিংসের প্রথম ওভারে কোনো রানই নিতে পারেননি আইরিশ দুই ওপেনার। তবে দ্বিতীয় ওভারেই মারুফ মৃধার বলে চার হাঁকান ওপেনার রায়ান হান্টার। এর পরের ওভারে জোড়া বাউন্ডারি খুঁজে নেন নেইল। ক্রমেই থিতু হওয়ার বার্তা দিচ্ছিলেন এই দুই ব্যাটার। তবে ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারেই রায়ানকে ফেরান মারুফ। রিজওয়ানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ১৫ বলে ৯ রানে ফেরেন এই ওপেনার।   ৫ ওভারে আইরিশদের সংগ্রহ ২৪ ১৪:২৬, জানুয়ারি ২২ বাংলাদেশের বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৫ ওভার শেষে ২৪ রান তুলেছে আইরিশ যুবারা। শুরুর দিকে কিছুটা চাপে থাকলেও ইনিংসের তৃতীয় ওভার থেকেই রানের গতি ফেরানোর চেষ্টা করছে দলটি।   একাদশ ১৩:৪৫, জানুয়ারি ২২ বাংলাদেশ একাদশ : মাহফুজুর রহমান রাব্বি (অধিনায়ক), আহরার আমিন (সহ-অধিনায়ক) আশিকুর রহমান শিবলি, দিল বিন সিদ্দিক, মোহাম্মদ রিজওয়ান, আরিফুল ইসলাম, শিহাব জেমস, শেখ পারভেজ জীবন, মোহাম্মদ রাফি উজ্জামান রাফি, রোহানাত দৌল্লাহ বর্ষণ ও মারুফ মৃধা। আয়ারল্যান্ড একাদশ  : জর্ডান নিল, রায়ান হান্টার, গ্যাভিন রাউলস্টন, কিয়ান হিলটন, ফিলিপাস লে রক্স, স্কট ম্যাকবেথ, জন ম্যাকন্যালি, কারসন ম্যাককুলো, অলিভার রিলি, রুবেন উইলসন, ম্যাথু ওয়েল্ডন   টস ১৩:৩৫, জানুয়ারি ২২ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছে বাংলাদেশ। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে জুনিয়র টাইগাররা। পরবর্তী পর্বে যেতে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই বাংলাদেশের কাছে। দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনে গ্রুপ পর্বের বাঁধা টপকে সুপার সিক্সে টিকে থাকার লড়াইয়ে টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ।   স্বাগতম ১৩:৩৫, জানুয়ারি ২২ সবাইকে স্বাগতম আরটিভির লাইভ স্কোর আপডেটে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে কিছুক্ষণ পর মাঠে নামবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায় মাঠে নামবে টাইগার যুবারা।  
ভারতের কাছে হেরে বিশ্বকাপ মিশন শুরু বাংলাদেশের
ভারতের কাছে ৮৪ রানে হারল যুবারা ২১:৩৫, ২০ জানুয়ারি ৪৬তম ওভারে শেষ বলে মারুফ মৃধা বোল্ড হলে ১৬৭ রানে অলআউট হয় টাইগার যুবারা। এতে ৮৪ রানে জয় পায় ভারত। ফলে তার দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করল বাংলাদেশ। টাইগারদের উইকেট মিছিল ২১:২৮, ২০ জানুয়ারি ফিফটি পূরণের পর পিচে বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেননি শিহাব। ৭৭ বলে ৫৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই টাইগার ব্যাটার। এরপর উইকেট মিছিল শুরু করে রোহানত দৌল্লাহ বর্ষণ (০) ও ইকবাল হোসেন ইমন। শিহাবের লড়াকু ফিফটি ২১:০৫, ২০ জানুয়ারি আরিফুলের বিদায়ের পর ব্যাটিংয়ে আসেন মাহফুজুর রহমান রব্বি। মলিয়ার বলে ক্যাচ তুলে দেন এই টাইগার অধিনায়ক। ১১ বল খেলে মাত্র ৪ রান করেন তিনি। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে ৭৫ বলে ফিফটি তুলে নেন শিহাব জেমস। ফিফটির আক্ষেপ নিয়ে ফিরলেন আরিফুল ২০:৪৫, ২০ জানুয়ারি দলীয় ৫০ রানে চার উইকেট হারালে, টাইগার শিবিরে হাল ধরেন আরিফুল ইসলাম ও শিহাব জেমস। দুজনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ব্যাটিং বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠে বাংলাদেশ। তবে ফিফটি পূরণ করতে পারেনি আরিফুল। ৪১ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। আমিনের বিদায় ১৯:৫৩, ২০ জানুয়ারি টাইগারদের ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে নিজের উইকেট রক্ষার করতে পারেনি আহার আমিনও। ১৫ বলে ৫ রান করে লেগ বিফোরে কাটা পড়েন এই বাঁহাতি ব্যাটার। ফলে ভারতের বিপক্ষে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ।   থিতু হতে পারল না শিবলিও ১৯:১৪, ২০ জানুয়ারি এদিন ব্যাট হাতে পিচে থিতু হতে পারেনি এশিয়া কাপে দুর্দান্ত ব্যাট করা আশিকুর রহমান শিবলি। শুরুতে দেখে শুনে খেললেও ৩৫ বলে ১৪ রান পান্ডের বলে বোল্ড আউট হন তিনি। জিসানের পর রিজওয়ানের বিদায় ১৯:০২, ২০ জানুয়ারি জিসানের বিদায়ের পর এদিন শূন্য হাতে ফেরেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। দলীয় ৩৯ রানে উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে টাইগাররা।   ১৪ রান করে ফিরল জিসান ১৮:৫৫, ২০ জানুয়ারি জবাবে ব্যাটিংয়ে ভালো শুরু করেছিল দুই টারগার ওপেনার আশিকুর রহমান শিবলি ও জিসান আলম। তবে ইনিংস বড় করতে পারেননি জিসান। ১৭ বলে ১৪ রান করে আউট হন তিনি। বাংলাদেশকে ২৫২ রানের লক্ষ্য দিলো ভারত ১৭:৪৫, জানুয়ারি ২০ শুরুটা নড়বড়ে হলেও ওপেনার আরশান ও সাহারানের জুটিতে বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৫১ রান তুলেছে ভারতীয় শিবির। লাল-সবুজের হয়ে মারুফ মৃধার শিকার ৫ উইকেট।     মারুফ মৃধার চতুর্থ শিকার ১৭:৩২, জানুয়ারি ২০ অবীনেশ আউট হলে, ৪২ বলে ২৩ রান করে তাকে সঙ্গ দেন মলিয়া। এবারও মারুফের বলে বোকা ধরা পড়েন এই ভারতীয় ব্যাটার। সেই সঙ্গে নিজের চতুর্থ উইকেট তুলে নেন মারুফ।  মারুফ মৃধার তৃতীয় শিকার  ১৭:১৫, জানুয়ারি ২০ সাহারানের বিদায়ের পর প্রিয়ানশু মলিয়াকে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন আরেভেলি অবনীশ। তবে ইনিংস বড় করতে পারেননি অবনীশও। ১৭ বলে ২৩ করে মারুফ মৃধার বলে ক্যাচ আউট হন তিনি।  ফিরলেন সাহারানেও ১৬:১৫, জানুয়ারি ২০ ওপেনার আরশাদকে যোগ সঙ্গ দিয়ে দলের রানের চাকা সচল রেখেছিলেন সাহারান। তবে হাফ-সেঞ্চুরির পর সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়লেন টপ-অর্ডার এই ব্যাটার। ইনিংসের ৩৯তম ওভারে রাব্বির বলে বর্ষণের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৪ বাউন্ডারিতে ৬৪ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন এই ব্যাটার।    ফিরলেন আরশাদ ১৬:১৫, জানুয়ারি ২০ একপ্রান্ত আগলে রেখে দলীয় রানের চাকা সচল রেখেছিলেন ভারতীয় ওপেনার আরশাদ। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে নিজের ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরিও তুলেন নেন তিনি। লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের জন্য ক্রমেই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছিলেন এই ওপেনার। তবে শেষ পর্যন্ত ভারতীয় ইনিংসের ১৫০ পেরিয়ে যাওয়ার আগেই সাজঘরে ফিরেছেন তিনি। ব্যক্তিগত ৭৬ রানে রিজওয়ানের বলে বর্ষণের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ওপেনার।    সাহারানের হাফ-সেঞ্চুরি ১৬:১৫, জানুয়ারি ২০ আরশাদের পর নিজের ব্যক্তিগত ৫০ রান পূর্ণ করেছেন সাহারানে। ৪ বাউন্ডারিতে ৬৯ বলে ফিফটি করেছেন তিনি।   ১০০ পার ভারতের ১৫:৫০, জানুয়ারি ২০ ৩০ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা ভারতকে টেনে নিচ্ছেন ওপেনার আরশাদ ও টপ-অর্ডার ব্যাটার সাহারানে। এই জুটিতেই দলীয় ১০০ পেরিয়েছে ভারত। একপ্রান্ত আগলে রেখে হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন আরশাদ। তাকে যোগ সং দিচ্ছেন সাহারানে।  এই প্রতিবেদন প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২৪ ওভার শেষ ভারতের সংগ্রহ ১১৭ রান। ৫৮ রানে আরশাদ এবং ৩৮ রানে সাহারানে ক্রিজে আছেন।      আরশাদ-সাহারানে লড়াইয়ে ভারত ১৫:২২, জানুয়ারি ২০ ৩১ রানেই দুই উইকেট হারায় ভারত। এরপর সেখান থেকে দলকে টেনে নিচ্ছেন ওপেনার আরশাদ ও টপ-অর্ডার ব্যাটার সাহারানে। প্রথম পাওয়ার প্লেতে ৪৫ রান তুলে ভারত।  এই প্রতিবেদন প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৬ ওভার শেষ ভারতের সংগ্রহ ৭৩ রান। ৩৭ রানে আরশাদ এবং ২০ রানে সাহারানে ক্রিজে আছেন।      মারুফের জোড়া আঘাত  ১৪:৫৫, জানুয়ারি ২০ মারুফ মৃধার আগুনে বোলিংয়ে ৮ ওভারের মধ্যেই জোড়া উইকেট হারিয়েছে যুব বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। কুরকার্নির পর মুশিরের উইকেটও তুলে নিয়েছেন তিনি। এতে ৩১ রানেই দুই উইকেট হারিয়েছে ভারত। শিবলির হাতে ক্যাচ দিয়ে ৩ রানে ফিরেছেন ভারতীয় টপ-অর্ডার এই ব্যাটার।   ভারতীয় শিবিরে মারুফের আঘাত  ১৪:৩৫, জানুয়ারি ২০ বিশ্বকাপে শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতে বিপক্ষে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। দাপট দেখিয়ে ইনিংসের চতুর্থ ওভারেই ভারতীয় ওপেনার আশিস কুলকারনির উইকেট তুলে নিয়েছেন মারুফ। শিবলির হাতে ক্যাচ দিয়ে ১৭ বলে মাত্র ৭ রানে ফিরেছেন এই ওপেনার।   একাদশ ১৩:৩৯, জানুয়ারি ২০ বাংলাদেশ একাদশ- শিবলী, জিসান, রিজওয়ান, আরিফুল, আহরার, জেমস, মাহফুজুর, জীবন, বর্ষণ, এমন, মারুফ ভারত একাদশ- আদর্শ, কুলকার্নি, সাহারান (সি), মুশির, ধস, মোলিয়া, অবনীশ (উক), অভিষেক, লিম্বানি, তিওয়ারি, পান্ডে     টস ১৩:৩৫, জানুয়ারি ২০ টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ।   স্বাগতম ১৩:১৫, জানুয়ারি ২০ সবাইকে স্বাগতম আরটিভির লাইভ স্কোর আপডেটে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কিছুক্ষণ পর মাঠে নামবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায় মাঠে নামবে টাইগার যুবারা।