logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

প্রস্তুতি ম্যাচে রানে ফিরলেন রিয়াদ ও সাব্বির

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:২৯ | আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২১
নিউজিল্যান্ড সফরে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ একাদশ ও নিউজিল্যান্ড একাদশ। ওয়ানডে দলের সদস্যরা সবাই না থাকায় টেস্ট স্কোয়াডের মুমিনুল হককে নিয়েই নেমে পড়ে বাংলাদেশ। প্রস্তুতি ম্যাচে সুখকর খবর হল রানে ফিরেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান।

bestelectronics
লিঙ্কনে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে স্বাগতিকদের আমন্ত্রণে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা সুখকর হয়নি বাংলাদেশের। শেষ পর্যন্ত ৪৬.১ ওভারে ২৪৭ রানে অলআউট হয়ে যায় সফরকারীরা। 

টস হেরে ইনিংসের গোড়া পত্তনে নামেন লিটন ও মুমিনুল। দলীয় চতুর্থ ওভারেই ফেরত যান তিনি। তার বিদায়ের কিছুক্ষণের মধ্যেই ফেরত যান আরেক ওপেনার লিটন দাস। শুরুর ধাক্কা সামলে উঠার আগেই দ্রুতই ফিরে যান সৌম্য ও মিঠুন। ৩১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে খেই হারায় বাংলাদেশ। 

পঞ্চম উইকেটে মুশফিকের সঙ্গে জুটি বাধেন রিয়াদ। দুজন মিলে এ ১০৮ রানের জুটি গড়ে বড় কিছুর আভাস দেন। উভয়েই হাফ সেঞ্চুরির দেখা পান। ৮ চারের সাহায্যে ৪৬ বলে অর্ধশতক তুলে নেন মুশফিক। তার অর্ধশতক পূর্ণের কিছুক্ষণ পর অর্ধশতকের দেখা পান রিয়াদও। ৬৬ বল মোকাবেলায় ৭ চারে কাঙ্ক্ষিত মাইলফলকের দেখা পান তিনি। 

কিন্তু মুশফিক ৬২ রান করে দলীয় ১৩৯ রানে ফিরে যান। পরে সাব্বিরকে নিয়ে ইনিংস মজবুত করার মিশনে নামেন রিয়াদ। দুজন মিলে ভালই এগুচ্ছিলেন কিন্তু ৮৮ বলে ৭২ রানের ইনিংস খেলে লং শট খেলতে গিয়ে থার্ডম্যানে ক্যাচ দিয়ে দলীয় ১৭৪ রানে ফেরেন রিয়াদ। 

এরপর দ্রুতই মিরাজ ফিরে যান। অপরপ্রান্তে একা লড়ে যেতে থাকেন সাব্বির। ৪১ বলে ৪০ রানের ইনিংস খেলে তিনিও আউট হয়ে গেলে বড় সংগ্রহের চেষ্টায় ধাক্কা খায় সফরকারীরা।

শেষ দিকে নাঈম ১৭, মুস্তাফিজ ১২ রান করলে ২৪৭ রান করতে সক্ষম হয় লাল-সবুজের জার্সিধারীরা। 

স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে ম্যাকপিক ৩৮ রানের বিনিময়ে সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট লাভ করেন।

উল্লেখ্য নেপিয়ারে আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে বাংলাদেশের প্রথম ওয়ানডে। ১৬ ও ২০ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডে।

বাংলাদেশ একাদশ: ৪৬.১ ওভারে ২৪৭/১০ (লিটন ৩, মুমিনুল ৬, সৌম্য ১, মুশফিক ৬২, মাহমুদুল্লাহ ৭২, সাব্বির ৪০, মিরাজ ৭, নাঈম ১৭*, শফিউল ৪, মুস্তাফিজ ১২, ম্যাকপিক ৪/৩৮)

এএ/এমকে

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়