Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

ইতিহাদে বসলো অ্যাগুয়েরোর সেই জাদুকরী মুহূর্তের স্ট্যাচু

ইতিহাদে বসলো অ্যাগুয়েরোর সেই জাদুকরী মুহূর্তের স্ট্যাচু
ছবি- সংগৃহীত

৪৪ বছরের আক্ষেপ ঘোচানোর অপেক্ষায় ম্যানচেস্টার সিটি। সময় মাত্র ১২০ সেকেন্ড। ঠিক তখনই কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্সের বিপক্ষে খেলার ৯৩ মিনিট ২০ সেকেন্ডের মাথায় গোল করে বসলেন ম্যানসিটির সার্জিও অ্যাগুয়েরো। ঐতিহাসিক সেই গোলে ৪৪ বছর পর প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিতে নেয় ম্যানসিটি।

সেই মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে এবং সার্জিও অ্যাগুয়েরোকে সম্মান জানাতে ম্যানসিটির ইতিহাদ স্টেডিয়ামে একটি স্থায়ী স্ট্যাচু বসিয়েছে ক্লাবটি। শুক্রবার অ্যাগুয়েরোর গোলের এক দশক পূর্তি উপলক্ষে স্ট্যাচুটি উন্মোচন করেছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। স্ট্যাচুটি হচ্ছে অ্যাগুয়েরোর সেই জাদুকরী মুহূর্তের গোল উদযাপনের দৃশ্য।

কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্সের বিপক্ষে সেই গোল এবং স্ট্যাচু উন্মোচন নিয়ে একটি ভিডিও শেয়ার করে ক্লাবটি। যেখানে ওই মুহূর্তকে ধারণ করা ধারাভাষ্য দিয়ে শুরু করা হয়। যেখানে বলা হয়, ‘এটা সে সময় যখন সব বদলে গিয়েছিল। এটা ম্যানচেস্টার সিটির ইতিহাসের গ্রেটেস্ট মোমেন্টস হয়ে থাকবে।’

একইসঙ্গে থাকে ধারাভাষ্যকার মার্টিন টাইলরের সেই বিখ্যাত উক্তি, ‘আমি শপথ করছি, আপনি এরকম কিছু আর কখনো দেখতে পাবেন না।’

এরপরই অ্যাগুয়েরোর এই স্ট্যাচু উন্মোচন নিয়ে ক্লাবটির চেয়ারম্যান খালদুন আল মুবারাক বলেন, ‘এই পোজ ছাড়া আপনি সার্জিওর জন্য অন্য কোনটি বেছে নিতে পারেন? আমাদের জন্য এটা বেছে নেওয়া কঠিন কিছু ছিল না। সে এই ক্লাবের একজন কিংবদন্তি। সে এটা ডিজার্ভ করে।’

নিজের স্ট্যাচু নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত অ্যাগুয়েরো বলেন, ‘দারুণ। তখন আমার বয়স ২৩ ছিল। সত্য বলতে আমার জন্য এটা অসাধারণ কিছু। এখানে খেলা দশ বছরে আমি অনেক ট্রফি জিতেছি এবং এই ক্লাবকে বিশ্বের মধ্যে অন্যতম সেরা ক্লাব হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে যা সাহায্য করেছে। ক্লাবের প্রতি কৃতজ্ঞতা, আমার ম্যানচেস্টার সিটির ফুটবল ক্যারিয়ারকে স্ট্যাচু দিয়ে এত সুন্দর স্বীকৃতি দেওয়ায়। এটা আমার জন্য বিশেষ কিছু।’

কিছুদিন আগেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে হল অব ফেমে জায়গা করে নেন আগুয়েরো। ম্যান সিটির হয়ে পাঁচটি প্রিমিয়ার লীগসহ মোট ১৫টি শিরোপা জিতেছেন তিনি। ক্লাবটির হয়ে সর্বোচ্চ ২৬০ গোলের মালিকও অ্যাগুয়েরো। ম্যানসিটি ছেড়ে বার্সেলোনায় নাম লেখা অ্যাগুয়েরো। তবে হৃদযন্ত্রের সমস্যার কারণে এক মৌসুম না খেলতেই ফুটবল থেকে অবসর নেন এই আর্জেন্টাইন।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS