logo
  • ঢাকা বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

অর্থ আর স্বাচ্ছন্দ্যের জীবন পেয়ে দেশে ফিরতে নারাজ রোহিঙ্গারা! (ভিডিও)

শাহীন শাহ, টেকনাফ
|  ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১১:২৬ | আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:২৫
কক্সবাজারের আশ্রিত ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাদের সেবায় নিয়োজিত রয়েছে বেশ কিছু বেসরকারি সংস্থা। অভিযোগ আছে এনজিও চাকরি দেবার ক্ষেত্রে স্থানীয়দের বাদ দিয়ে অগ্রাধিকার দিচ্ছে রোহিঙ্গাদের। অন্যদিকে, রোহিঙ্গারা হাতের নাগালে অর্থ আর স্বাচ্ছন্দ্যের জীবন পেয়ে দেশে ফিরতে নারাজ। 

মিয়ানমারে সৃষ্ট সহিংসতায় ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর লাখ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছে জেলার উখিয়া ও টেকনাফে। আশ্রিত এসব রোহিঙ্গাদের সেবা দিতে এগিয়ে এসেছে প্রায় দেড় শতাধিক এনজিও। বেশিরভাগ এনজিওতে ১৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা বেতনে চাকরি করছে প্রায় ৩০ হাজার রোহিঙ্গা। 

এছাড়া, আশ্রিত রোহিঙ্গাদের আবাসন, খাদ্য, শিক্ষা, চিকিৎসা ও বিনোদনসহ যাবতীয় সেবা বিনে পয়সায় দেয়া হচ্ছে। নগদ অর্থের লোভ আর আয়েশি জীবনে অভ্যস্ত রোহিঙ্গারা দেশের ফেরার নামও শুনতে চাইছে না।

---------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : গায়েব হয়ে গেছে কুড়িল উড়াল সড়কের অধিকাংশ বাতি (ভিডিও)
---------------------------------------------------------------------

স্থানীয়দের অভিযোগ রহস্যজনক কারণে বাঙালিদের বাদ দিয়ে রোহিঙ্গাদের চাকরি দিচ্ছে এনজিওগুলো।

এদিকে, প্রশাসনের গত বাধা উত্তর বিষয়টি মনিটরিং করছেন তারা।

গেল ১৫ নভেম্বর ও ২২ আগস্ট প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ভেস্তে যাওয়ার পর টেকনাফে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা এনজিওগুলোর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে দেশব্যাপী। সরকার অবিলম্বে এসব এনজিওগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে দাবী স্থানীয়দের।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর পাঠক প্রিয়