Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

পাঞ্জাবিতে নিজস্ব রুচির ছাপ দিতে ভিড় বাড়ছে দর্জিপাড়ায়

পবিত্র ঈদুল ফিতরে পুরুষদের কাছে পাঞ্জাবিরই কদর বেশি। পাঞ্জাবি পরে সবাই ঈদের নামাজে অংশ নেবে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। সেদিক চিন্তাভাবনা করে ফ্যাশন হাউসগুলোও নিয়ে এসেছে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন ডিজাইনের পাঞ্জাবি। এদিকে, সেলাইয়ের মূল্যবৃদ্ধির পরও পাঞ্জাবির ফ্যাশনে নিজস্ব রুচির ছাপ দিতে ভিড় বাড়ছে দর্জির দোকানগুলোতে।

ঈদে পুরুষদের পাঞ্জাবি না কিনলে যেন মনে হয় ঈদটাই অপূর্ণ থেকে যায়। এ জন্য ঈদকে কেন্দ্র করে রাজধানীর দোকানগুলোতে ইতোমধ্যে চলে এসেছে নতুন ডিজাইনের পাঞ্জাবি। এ ছাড়া দেশের নামি-দামি ব্র্যান্ডের দোকানগুলোতে এসেছে নতুন কালেকশন।

শোরুমের পাশাপাশি মার্কেটের দোকানে পাঞ্জাবির দাম তুলনামূলক কম, যা মধ্যবিত্তদের হাতের নাগালেই। বিক্রেতেরা বলছেন, ক্রেতাদের চাহিদা প্রিন্ট ও সুতির পাঞ্জাবি। করোনার ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে এবার দেশি-বিদেশি বিভন্ন ডিজাইন পাঞ্জাবি রেখেছেন তারা।

এক বিক্রেতা বলেন, গত বছরের চেয়ে আপডেট কালেকশন। বেশির ভাগই ভারতীয়-সুলতান, ফাইজান ও মান্যবর।

কাপড়ের মান ও দাম নিয়ে ক্রেতাদের মধ্যে ছিল মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

এক ক্রেতা বলেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় কালেকশন অনেক সুন্দর। কিন্তু দামটা একটু বেশি।

আরেক ক্রেতা বলেন, কোয়ালিটি ও ডিজাইন সুন্দর। কিন্তু দামটা অনেক বেশি।

অপর ক্রেতা বলেন, পাঞ্জাবি সহনীয় দামেই পাচ্ছি।

এদিকে পাঞ্জাবিতে নিজস্ব রুচির ছাপ দিতে অনেকে ছুটছেন দর্জি বাড়ির দরজায়। উচ্চ, মধ্য ও নিম্ন-মধ্যবিত্ত কেউ যেন পিছিয়ে নেই।

এক দর্জি বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, খুব ভালো চলছে। ঈদ আসলে একটু বাড়ে, এটাই স্বাভাবিক। আমাদের কারিগরের বেতন নেই। তাদেরকে বাড়িয়ে দেই কিছু।

সকল আধুনিক কাটছাঁটের পাঞ্জাবির দাম নির্ভর করছে এর কারুকাজের ওপর।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS