Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

রোহিঙ্গাদের সঙ্গে অনেকের স্বার্থ জড়িত, তাই প্রত্যাবাসন বিলম্বিত! (ভিডিও)

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বড় বাধা প্রভাবশালী কিছু দেশ ও কয়েকটি উন্নয়ন সংস্থা। তাদের আর্থিক লাভের কারণেই প্রত্যাবাসন বিলম্বিত হচ্ছে বলে মনে করেন পর্যবেক্ষকরা। তাই মিয়ানমারের পাশাপাশি প্রভাবশালীদের উপরও চাপ প্রয়োগের পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

শুরুতে বিরোধিতা করলেও রোহিঙ্গাদের ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্পে স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘ। রোহিঙ্গাদের সহায়তায় মানবিক কার্যক্রমও চালাবে তারা। উন্নয়ন সহযোগী বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা রোহিঙ্গাদের এদেশে সুযোগ সুবিধা নিশ্চিতে যতটা আগ্রহী তাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে ততোটা নয়। সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে মুখ খোলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, রিফিউজি থাকলে কয়েকজনের লাভ হয়, এ কারণেই হয়তো তারা প্রত্যাবাসনের দিকটি দেখেন না।

প্রভাবশালী দেশ ও সংস্থা বরাবরই রোহিঙ্গা সঙ্কটের স্থায়ী সমাধানের চেয়ে সহায়তায় বেশি আগ্রহী। এই বিশেষজ্ঞ মনে করেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি বাংলাদেশ বারবার আন্তর্জাতিক ফোরামে তুললেও নিজেদের স্বার্থেই কার্যকর ভূমিকা নেয়নি প্রভাবশালীরা।

সাবেক পররাষ্ট্রসচিব শমসের মুবিন চৌধুরী বলেন, এশিয়ার রাজনীতিতে মিয়ানমারের গুরুত্ব আমাদের চেয়ে বেশি। এ কারণেই চীন, জাপান আর ভারত রীতিমতো প্রতিযোগিতা করেই বিনিয়োগ করছে।

অভিবাসন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোহিঙ্গাদের দ্রুত মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে না পারলে, নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়বে পুরো অঞ্চল।

ব্র্যাকের পরিচালক সাজেদুল হাসান বলছেন, রোহিঙ্গাদের অবস্থান বাংলাদেশে যত দীর্ঘ হবে, ততদিন আমাদের অর্থনীতির উপর চাপ বেড়েই যাবে। তাছাড়া কক্সবাজারে নানান অপকর্ম ও অপরাধের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের জড়িত থাকার কথাও জানা যায়। তাই যত দ্রুত আমরা তাদেরকে ফিরিয়ে দিতে পারি ততই আমাদের মঙ্গল।

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সরকারকে আন্তর্জাতিক মহলের উপর আরও চাপ প্রয়োগের পরামর্শ এই বিশেষজ্ঞর।

ইজে/এসএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS