logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭

ত্বকী হত্যার কারণ এখনও জানা গেলো না কেন? (ভিডিও)

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

|  ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:২০ | আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:৩২
railway, counter,
তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী
বাবা রফিউর রাব্বীর প্রতিবাদী চরিত্রের কারণেই খুন করা হয় নারায়ণগঞ্জের মেধাবী শিক্ষার্থী তানভীর মুহাম্মদ ত্বকীকে। চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠা, রেলওয়ের জমি দখল ঠোকানো, বাস ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদ আর ২০১১ সালে নারায়ণগঞ্জের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জনতার পক্ষে অবস্থান নেয়ায় তার উপর ক্ষিপ্ত ছিল প্রভাবশালী মহল। ক্ষোভের বশে রফিউর রাব্বীকে শিক্ষা দিতেই নির্মমভাবে হত্যা করা হয় ছেলে ত্বকীকে। এমনটিই মনে করে নারায়ণগঞ্জের সাধারণ মানুষ।

ত্বকীর জন্ম ১৯৯৫ সালের ৫ই অক্টোবর। প্রকৌশলী হয়ে পৃথিবীকে আলোকিত করার স্বপ্ন ছিল তার। হাঁটছিল সঠিক পথেই। এ লেভেল প্রথম পর্বের পরীক্ষায় সারা পৃথিবীর মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বর পায় সে।

মেধাবী এ শিক্ষার্থী ছবি আঁকা, কবিতা লেখা আর বই পড়া নিয়ে ব্যস্ত থাকত। কারও সাথে কখনও ঝগড়া তো দূরের কথা দ্বন্দ্বও হয়নি। রাজনীতি না করেও অপরাজনীতির বলি হতে হয়। ২০১৩ সালের ৬ ই মার্চ নির্মমভাবে খুন করা হয় দেশের এক উজ্জ্বল ভবিষ্যতকে।

নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেন, সুপরিকল্পিতভাবে রফিউর রাব্বীর কণ্ঠকে নিস্তব্দ করার জন্য এই হত্যাকাণ্ড করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক শাহীন মাহমুদ বলেন, নারায়ণগঞ্জের উন্নয়ন করার জন্য একজন যোগ্য জনপ্রতিনিধির পাশে দাঁড়ান রফিউর রাব্বী। তখনই তার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ পরায়ণ হয়ে ছেলে ত্বকীরকে হত্যা করা হয়।

বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বী। এসব কারণে তার উপর ক্ষুব্ধ ছিল একটি প্রভাবশালী মহল।

নিহত ত্বকীরের বাবা রফিউর রাব্বী বলেন, রেলওয়ের যে জমি, সেই জমি দখল করে নাসিম উসমান একটি বহুতল ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নেন। সেই উদ্যোগের বিরুদ্ধে আমরা নারায়ণগঞ্জে একটা আন্দোলন গড়ে তুলি এবং সেই আন্দোলনের কারণে মার্কেট নির্মাণের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। এই কারণে তারা ত্বকী হত্যা করা হয় বলে তিনি জানান।

২০১৩ সালের ৬ই মার্চ নিখোঁজ হয় ত্বকী। ৮ই মার্চ শীতলক্ষ্যা নদীতে লাশ ভেসে ওঠে। মরদেহে নির্যাতনের চিহ্ন দেখে স্তব্ধ হয়ে যায় মানুষ। ৮ মাসের মাথায় ওই বছরের ১২ই নভেম্বর আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে ত্বকী হত্যা মামলার আসামি সুলতান শওকত জানান, আজমেরী ওসমানের নেতৃত্বে ত্বকীকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়েছে। তবে সাত বছরের মাথায়ও এ খুনের বিচার কাজ শুরু হয়নি।

এসএ/ এমকে

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৩৬০৫৫৫ ২৭২০৭৩ ৫১৯৩
বিশ্ব ৩,৩৩,৪২,৯৬৫ ২,৪৬,৫৬,১৫৩ ১০,০২,৯৮৫
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর পাঠক প্রিয়