logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৭

মেথি চা মানেই হজম ক্ষমতা বেড়ে যাওয়া

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৮:৪৬
মেথি চা মানেই হজম ক্ষমতা বেড়ে যাওয়া
মেথি চা

সকালে এককাপ চা না হলে কি চলে? সারাদিনের কাজের জন্য শরীরকে তৈরি করবে এককাপ চা। বিভিন্ন ধরনের চা খেয়ে থাকি আমরা। তবে শরীরের জন্য সবচেয়ে উপকারী হচ্ছে মেথি চা। এই চা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।
সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে মেথি চা দারুণ উপকারী। যারা ডায়াবেটিসে ভুগছেন, তাদের সুস্থ থাকতে মেথি চা পান করতে পারেন নিয়মিত। সুগার ছাড়াও বিভিন্ন রোগ দূর করে মেথি চা।

তাই সকালে নাস্তায় খেতে পারেন মেথি চা। আসুন জেনে নিই মেথি চায়ের উপকারিতা-

সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে
সকালে নাস্তায় খেতে পারেন মেথি চা। ডায়াবেটিস থেকে বাঁচতে আগাম সাবধানতার জন্য এখন থেকেই শুরু করতে পারেন মেথ চা-পান করা।

ওবেসিটি কমায়
সকালে খালি পেটে এক কাপ মেথি চা মানেই হজম ক্ষমতা বেড়ে যাওয়া। এ ছাড়া অতিরিক্ত চর্বি কমবে।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে
মেথিতে চা হজম ও আলসারের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়া মেথির মধ্যে থাকা ফাইবার পেট পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। এতে দ্রুত হজম হয়।

হৃদরোগের সম্ভাবনা কমায়
রোজ সকালে মেথি চা মানেই কোলেস্টেরল কম। আর তাতে ধমনী, শিরার চর্বি থাকতে পারে না। এতে রক্ত চলাচল ভালো হয়। ভালো থাকে হার্ট।

কিডনি ভালো রাখে 
প্রতিদিন মেথি চা পান করলে পরিষ্কার থাকে কিডনিও। মেথির প্রভাবে ইউরিন পরিস্কার থাকে। কিডনিতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

কীভাবে মেথি চা তৈরি করবেন?
এক চা-চামচ মেথি গুঁড়ো করে নিন। এক কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে ওই গুঁড়ো মিশিয়ে দিন। এক চা-চামচ মধু মেশাতে পারেন। চাইলে চা পাতা বা তুলসী পাতাও মেশানো যেতে পারে এতে। সব উপকরণ দিয়ে মিনিট তিনেক ভিজিয়ে রাখুন। ছেঁকে নিয়ে গরমাগরম চুমুক দিন।

এদিকে, অনেকেই সকালে খালিপেটে চা পান করেন।  কিন্তু অ্যানিমিয়া আক্রান্ত রোগীদের একদম উচিত না।  সকালে খালিপেটে খাওয়া চা আমাদের শরীরের লৌহপদার্থের সাথে প্রতিক্রিয়া করে থাকে। তাই যদি শরীরে লোহা পদার্থ কম থাকে তাহলে তাদের সকালে খালি পেটে চা খাওয়া একদমই উচিত না। 

অতএব, সকালে উঠে কিছু ভারী খাওয়ার পরেই চা খাওয়া উচিত নাহলে প্রায়ই বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। আর সেই সব সমস্যা দেখা দিলে কিন্তু অবশ্যই ডাক্তার দেখানো খুবই জরুরী। তাই নিজের শরীর সম্পর্কে সচেতন থাকুন আর শরীরে এমন কোনো উপসর্গ দেখলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। 

এস/ এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • লাইফস্টাইল এর সর্বশেষ
  • লাইফস্টাইল এর পাঠক প্রিয়