logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬

‘পদ্মাবতী’ বিতর্কে যুবকের আত্মহত্যা!

বিনোদন ডেস্ক
|  ২৫ নভেম্বর ২০১৭, ১২:৪৩ | আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০১৭, ১২:৫০
দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত ‘পদ্মাবতী’ সিনেমার মুক্তি নিয়ে ভারতজুড়ে বিক্ষোভে এবার প্রাণহানীর ঘটনা ঘটলো। গতকাল শুক্রবার রাজস্থানের জয়পুরে একটি মৃতদেহ পাওয়া গেছে। মরদেহের পাশের পাথরে কালি দিয়ে লেখা রয়েছে ‘পদ্মাবতীর বিরোধিতা’। মৃত ব্যক্তির নাম চেতন সাইনি। তার বয়স ২৩ বছর।

এটি আত্মহত্যা নাকি হত্যা? এই বিষয়ে ভারতীয় পুলিশ এখনো কিছু জানায়নি। সঞ্জয় লীলা বানশালি পরিচালিত এই চলচ্চিত্রের মুক্তি নিয়ে সৃষ্ট বিতর্কে উত্তাপ ছড়িয়েছে ভারতে। ছবিটিতে ভুল ইতিহাস তুলে ধরা হয়েছে এমন অভিযোগে দেশটির বিভিন্ন ধর্মীয়-রাজনৈতিক গোষ্ঠী হুমকি দিয়েছে।

ছবিটিতে মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপিকা। ইতোমধ্যে অভিনেত্রী দীপিকা ও পরিচালক বানশালির মাথার জন্যে ১০ কোটি রুপি পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি দলের হরিয়ানা রাজ্য শাখার এক নেতা।

এবার প্রাণহানীর মতো ঘটনার আলোচনায় যুক্ত হলো পদ্মাবতী। তবে এই মৃত্যুটি অনেক রহস্য তৈরি করেছে। পদ্মাবতীর রেশ শেষ পর্যন্ত যে কোথায় গিয়ে ঠেকবে, এ মুহূর্তে তা অজানা।

১৯০ কোটি টাকায় তৈরি পদ্মাবতী এখনো ভারতীয় সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পায়নি। ‘পদ্ধতিগত ত্রুটি’র কারণে সেন্সর বোর্ড ছবিটি প্রযোজকের ঘরে ফেরত পাঠিয়েছে। অথচ গত বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ বোর্ড অব ফিল্ম ক্লাসিফিকেশন পদ্মাবতীকে বিনা প্রশ্নে ‘আনকাট’ ছাড়পত্র দিয়েছে।

বিতর্ক ও বিরোধের ফলে ছবির মুক্তি ইতোমধ্যে পিছিনো হয়েছে। আগামী পয়লা ডিসেম্বর মুক্তি পাবার কথা ছবিটি। কিন্তু নানা জটিলতায় এখন জানুয়ারিতে ছবিটি মুক্তির কথা জানিয়েছেন নির্মাতা সঞ্জয়লীলা বানশালি।

পিআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়