Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

৪ হাসপাতাল ঘুরেও বাঁচানো গেল না স্বপ্নীলকে

৪ হাসপাতাল ঘুরেও বাঁচানো গেলো না স্বপ্নীলকে
ছবি: সংগৃহীত

গুণী গীতিকার ও সুরকার এফ এইচ সরকার স্বপ্নীল মারা গেছেন। গতকাল শনিবার (১৫ জানুয়ারি) রাত ১১টার দিকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। স্বপ্নীলের ভাগ্নে রাজীব গণমাধ্যমকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর।

রাজীব জানান, গত এক মাস ধরে যাত্রাবাড়ীতে বোনের বাসায় ছিলেন স্বপ্নীল। গতকাল সন্ধ্যায় হঠাৎ তিনি অসুস্থবোধ করেন। প্রথমে তাকে ইসলামিয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে হলি ফ্যামিলি এবং জাতীয় হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল ঘুরে নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে বাঁচানোর জন্য স্যালাইন ও ইনজেকশন দেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই রাত ১১টায় তিনি মারা যান।

বাপ্পা মজুমদার, সন্দীপন, হৈমন্তী রক্ষিত মান, নদীসহ আরও অনেক শিল্পীর জন্যই গান লিখেছেন ও সুর করেছেন স্বপ্নীল। তিনি নিজেও গাইতেন। ২০০৬ সালে প্রকাশিত সন্দীপন দাসের একক অ্যালবাম ‘আয় প্রাণের উৎসবে’র সবগুলো গানের কথা ও সুর করে আলোচনায় এসেছিলেন সদ্যপ্রয়াত স্বপ্নীল; যার সংগীতায়োজন করেছিলেন বাপ্পা মজুমদার।

স্বপ্নীলের মৃত্যুতে শোকাহত সন্দীপন বলেন, ‘স্বপ্নীলের সঙ্গে আমার বন্ধুর সম্পর্ক ছিল। তার বেড়ে ওঠা চট্টগ্রামের কাপ্তাইতে। সেখানে আমরা ওস্তাদ মেহের কান্তি লালের কাছে গান শিখতাম। ঢাকায় এসেও দুজন একসঙ্গে কাজ করেছি। আমাদের অনেক অনেক স্মৃতি। খুব খারাপ লাগছে তার মৃত্যুর কথা শুনে।’

প্রসঙ্গত, স্বপ্নীলের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়। তবে বেড়ে উঠেছেন চট্টগ্রামে। সেখান থেকে গানের টানেই ১৯৮৮-৮৯ সালের দিকে ঢাকায় চলে আসেন তিনি। সবশেষ স্বপ্নীলের কথায় প্রশংসিত হয় বাপ্পা মজুমদার ও নদীর গাওয়া ‘জলছায়া’ গানটি।

এনএস/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS