Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮

মিডিয়ার কাউকে বিয়ে করবো না: মৌমিতা

মিডিয়ার কাউকে বিয়ে করবো না: মৌমিতা

ঢাকাই সিনেমার নায়িকা মৌমিতা মৌ। বর্তমানে বড় পর্দা থেকে কিছুটা দূরে থাকলেও নাটক ও বিজ্ঞাপনে তার সরব উপস্থিতি। ২০১৩ সালে সিনেমার নায়িকা হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করা মৌমিতা তোমারই আছি তোমারই থাকবো, তুই শুধু আমার, মাস্তানি, মাটির পরী, অন্ধকার জগৎ-এর মতো মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এছাড়াও মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার অভিনীত বেশ কিছু সিনেমা। তবে মালেক আফসারীর ‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমার জন্য তিনি সবচেয়ে বেশি আলোচিত হয়েছেন। আরটিভি নিউজের সঙ্গে আলাপে সিনেমায় অভিনয় ও নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন এই অভিনেত্রী।

আপনার বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

মৌমিতা: নিয়মিত নাটক করছি। এখন সেভাবে সিনেমার কাজ করছি না।

কিন্তু কেন?

মৌমিতা: আমি সিনেমার মানুষ, সিনেমা অবশ্যই করবো। যেহেতু নাটকে রেগুলার হয়ে গেছি তাই এখন থেকে বেছে বেছে সিনেমার কাজ করবো। ঈদের পর আমার একটি সিনেমা আসবে, তবে এখনো কোন ডেট ফিক্সড হয়নি।

সিনেমার কাজ না থাকার কারণে কী নাটকে অভিনয় করছেন?

মৌমিতা: না না... অনেকে ভাবে সিনেমার কাজ না থাকার কারণে আমি নাটকে এসেছি। কিন্তু এই ধারণাটি ভুল। ‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমার পর আমি আর কোনো সিনেমা করিনি। আসলে মিডিয়াতে থাকতে চাচ্ছিলাম না, তাই একটু দূরে সরে গিয়েছিলাম।

সিনেমা ছেড়ে দিলে কোন পেশায় যাবেন?

মৌমিতা: আমার ইচ্ছা আছে ব্যবসা করার। কিন্তু কী ব্যবসা করবো সেটা এখনো জানি না। মানুষের সব স্বপ্ন সবসময় পূরণ হয় না। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে স্বপ্ন পূরণ করাটা খুবই কঠিন। তবে সিনেমা ছেড়ে যদি অন্য কোনো পেশায় যেতে হয় তাহলে ব্যবসায় মনোযোগী হবো।

মিডিয়ায় পথচলার শুরুটা কিভাবে?

মৌমিতা: আমার সিনেমায় আসাটা হঠাৎ করেই। কখনো ভাবিনি এভাবে সিনেমার সাথে যুক্ত হয়ে যাবো। পরিবারকে না জানিয়েই আমার প্রথম সিনেমা করা। আমার পরিবার সিনেমাকে একেবারেই পছন্দ করে না। এক জায়গায় একবার যুক্ত হয়ে গেলে বের হওয়াটা খুব কঠিন। কিন্তু সিনেমায় এত বেশি পলিটিক্স, মানুষের কথার সাথে কাজের কোনো মিল থাকে না- সব মিলিয়ে আমি বেশ বিরক্ত হয়ে গেছি। এজন্যই সিনেমা থেকে খানিকটা দূরে সরে এসেছি।

আপনার মতে সিনেমার মানুষজন কেমন?

মৌমিতা: অবশ্যই ভালো। আসলে ভালোটা নিজের মধ্যে। আমি নিজে যদি ভালো থাকি, অন্যকে ভালো ভাবতে পারি তাহলে আমিও ভালো থাকবো।

পর্দার সম্পর্কগুলো বাস্তবে কতটুকু টিকে?

মৌমিতা: আমাদের সবার মধ্যে পেশাগত সম্পর্ক বেশ ভালো। দেখা হলে সবার সাথে কুশল বিনিময় হয়। তবে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার ক্ষেত্রে অপর মানুষটির ইচ্ছা থাকাটা জরুরি। একটা মানুষের সাথে ব্যক্তিগত সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে সেক্রিফাইজ করতে হয়। আর যদি কোনো সম্পর্কে স্বার্থ থাকে তাহলে সেটি কখনোই টিকবে না।

প্রেম, বিয়ে নিয়ে জানতে চাই...

মৌমিতা: প্রত্যেকটা মানুষের বিয়ে করতে হবে। মনে হচ্ছে, এখন আমার বিয়ে করা উচিত। বিয়েটা সময়মতো করা ভালো। মিডিয়ার কারো সঙ্গে আমার প্রেম-ভালোবাসার সম্পর্ক নেই, কখনো হয়নি। বিয়ে করলে অবশ্যই মিডিয়ার বাইরে করবো।

নিজের শারীরিক গঠন পরিবর্তনে বিশেষ কোনো কারণ আছে?

মৌমিতা: আমি ছোটবেলা থেকেই একটু স্বাস্থ্যবান। আমাদের পরিবারের সবাই জীনগতভাবেই স্বাস্থ্যবান। আসলে সিনেমায় আসাটা হঠাৎ করেই। কখনো ভাবিনি এই পেশাতেই থাকতে হবে। যখন আমি নিয়মিত সিনেমার কাজ করেছি তখন কখনোই নিজের ওজন কমানোর কথা ভাবিনি। কিন্তু যখন সিনেমা থেকে দূরে সরে আসলাম তখন আমি নিজের ওজন কমানোর পরিকল্পনা করি। আর এটা সিনেমার জন্য করিনি, ভালো লাগা থেকে নিজের জন্যই করেছি।

আট বছরের ক্যারিয়ারে প্রাপ্তি কতটুকু?

মৌমিতা: এখনো আমি কিছুই পাইনি। ভালো লাগা থেকে সিনেমায় অভিনয় করেছি। নিয়মিত কাজের ব্যপারে সিরিয়াস ছিলাম না বলে নিজের জায়গাটা সেভাবে বুঝতে পারিনি। অনেক ভুল ছিলো আমার। না বুঝে মিডিয়াতে আসার কারণেই এমনটা হয়েছে। যদি সবকিছু বুঝেশুনে মিডিয়ায় আসতাম তাহলে এমনটা হতো না। এখন আমি বুঝি, তাই যেকোন কাজের আগে ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিতে পারি। স্টার হতে হবে এমন কোনো ভাবনা আমার নেই। আমি শুধু দর্শকের মনে জায়গা করে নিতে চাই।

পর্দার প্রতিবাদী মৌমিতা বাস্তবে কতটা প্রতিবাদী?

মৌমিতা: আমি খুবই শান্ত-শিষ্ট, সহজ-সরল, মিশুক প্রকৃতির একজন মানুষ। সবার সাথে মিলেমিশে থাকার চেষ্টা করি। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে তো প্রতিবাদ করতেই হয়। সেটা আমার অধিকার।

পরিবারের মেয়ে হিসেবে মৌমিতা কেমন?

মৌমিতা: আমি সবার খুব আদরের। আমার কোন বোন নেই, এজন্য আমার পরিবার ও আশেপাশের মানুষদের কাছে খুবই প্রিয় আমি। আমি পরিবারকে সময় দেয়ার চেষ্টা করি। ছুটির দিনে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাই।

এনএস

RTV Drama
RTVPLUS