Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯

‘১০ হাজার টাকা দিলাম, আমাকে অ্যারেস্ট করুক’

‘১০ হাজার টাকা দিলাম, আমাকে অ্যারেস্ট করুক’

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল বলেছেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে মানবিক সহায়তা দেওয়ায় সাবেক পাঁচ শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। আমি বঙ্গবন্ধুর ওপর একটি আর্টিকেল লিখে ১০ হাজার টাকা পেয়েছি। টাকাটা আমি তোমাদের (আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী) হাতে তুলে দিলাম, আমাকে অ্যারেস্ট করুক। আমি দেখতে চাই আমাকে এখন কে অ্যারেস্ট করে।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) ভোর ৪টার কিছুক্ষণ আগে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) ক্যাম্পাসে পৌঁছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দেখা করে এসব কথা বলেন সাবেক অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল। শিক্ষার্থীরা উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের পদত্যাগের দাবিতে টানা আন্দোলন করছেন।

তিনি বলেন, তোমাদের সাহায্য করলে যদি অ্যারেস্ট হতে হয়, হোক। পুলিশের আইজিপির সঙ্গে আমার পরিচয় আছে। আমি মিডিয়ার মাধ্যমে উনাকে বলতে চাই, শিক্ষার্থীদের অহেতুক পেটাবেন না। তাদের মামলা দিয়ে হয়রানি করবেন না। যা করেছেন তা করে অনেক বড় সর্বনাশ করেছেন।

শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে গুলির অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, এখন টেকনোলজির যুগ। সিসিটিভি লাগে না, সবার হাতে এখন মোবাইল ফোন। সেই মোবাইল ফোনের একটা ফুটেজ অন্তত দেখানো হোক। যেখানে আমার শিক্ষার্থীরা গুলি ছুড়েছে। তাই বলছি হয়রানি বন্ধ করেন।

তিনি শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙতে বললে তারা বলেন, সবাই মিলে একসঙ্গে অনশন ভাঙবেন। সে অনুযায়ী আজ বুধবার সকাল ৮টায় তারা অনশন ভাঙবেন। তবে শিক্ষার্থীরা একদিনও ভিসি ফরিদ উদ্দিনকে দেখতে চান না বলে দাবি তোলেন। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে হওয়া মামলা এবং আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মানবিক সহায়তা দিয়ে আটক সাবেক পাঁচ শিক্ষার্থীর মুক্তি চান তারা।

এর জবাবে অধ্যাপক জাফর ইকবাল ও ইয়াসমিন হক বলেন, আমাদের ওপর মহল থেকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে এসব মামলা তুলে নেওয়া হবে। পাশাপাশি শাবিপ্রবির সাবেক পাঁচ শিক্ষার্থীকেও আজ বুধবার জামিন দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ঢাকা থেকে রওনা দিয়ে মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) রাত ৩টা ৫৫ মিনিটের দিকে ক্যাম্পাসে পৌঁছান বিশ্ববিদ্যালয়টির সাবেক এই দুই অধ্যাপক।

জিএম/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS