logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরো ৩ জন, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ জনে, নতুন আক্রান্ত ৫৪ জন, এর মধ্যে ঢাকায় ৩৯ জন আর পুরুষ ৩৩ জন, নারী ২১ জন, মোট আক্রান্ত ২১৮: আইইডিসিআর। বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৩৮০ জনের মৃত্যু, মোট মৃত্যু ৮২ হাজারের বেশি। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে ১৯৭০ জন। মোট মৃত্যু ১২৮৫৪, আক্রান্তের দিক দিয়েও সবার ওপরে যুক্তরাষ্ট্র। এরপরেই ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৪১৭ জনের। মোট মৃত্যু ১০৩২৮ জনের। মোট আক্রান্ত এক লাখ নয় হাজারের বেশি মানুষ। তবে মৃত্যুতে বিশ্বে এখনও শীর্ষ ইতালি, এরপরই স্পেন। ব্রিটেনে হঠাৎ করে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এক লাফে ৭৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মারা গেছেন ৫ জন, শনাক্ত ৪১ জন, ঢাকায় ২০ জন ও নারায়ণগঞ্জে ১৫ জন এবং এর মধ্যে পুরুষ ২৮, নারী ১৩, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৩১ জন: আইইডিসিআর।

সতীর্থদের ঝাড়ি দিতে শিখেছেন মুমিনুল

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:১৯ | আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:২৭
Zimbabwe tour of Bangladesh
ছবি- সংগৃহীত
মাঠে মুমিনুল হককে সব সময়ই দেখা যায় গম্ভীর। অর্ধশতক কিংবা শতক হাঁকালেও খুব সময়ই হাসতে দেখা গেছে বর্তমান টাইগার দলপতিকে। খুব বেশি দেরি হয়নি অধিনায়কত্বের ভার নিয়েছে। দায়িত্ব পাবার পর টানা তিন ম্যাচেই হেরেছেন। যদিও প্রতিপক্ষ ছিল ভারত, পাকিস্তানের মতো দুই শক্তিশালী দল।

হারের পর মন খুলে কথা না বলতে পারাটাই স্বাভাবিক। টানা হারের পর জয় ধরা দিলো টাইগার শিবিরে। জিম্বাবুয়েকে ১০৬ রান ও ইনিংস ব্যবধানে হারিয়েছে মুমিনুল হকের দল।  

মঙ্গলবার ম্যাচ শেষে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেছেন গণমাধ্যমের সঙ্গে।

উঠে এসেছে অনেক কথাই। দলে তামিম ইকবাল মুশফিকুর রহিমের মতো অভিজ্ঞরা যেমন রয়েছেন, তেমনই সাইফ হাসান, নাঈম হাসানদের মতো তরুণ খেলোয়াড়রাও আছেন।

কিন্তু মুমিনুল এখন ছোট-বড় সবারই অধিনায়ক। সমান ভাবে দেখতে হয় দলের সবাইকে। সবকিছু মিলিয়ে তার স্বস্তি কতটা অধিনায়কত্ব নিয়ে?

‘আসলে স্বস্তি না ঠিক। দল যেভাবে কাজ করবে, যেমনটা হওয়া উচিত সেভাবে। মানে খেলোয়াড়রা দল হিসেবে কিভাবে কাজ করবে কিভাবে খেলবে সেই জিনিসটা আমি সবসময় দেখতে চাইছিলাম। এটা আমি ফিল করতে চেয়েছিলাম।’

মাঠে অধিনায়কত্ব করতে গেলে সবাইকে সমান ভাবে দেখতে হয় অধিনায়ক মুমিনুলকে। তাই কঠোর হবারও চেষ্টা করছেন, ঝাড়িও দিতে হয় সতীর্থদের।

‘আমার অধিনায়কত্ব শুরু হয়েছিল বিসিএল, এনসিএল দিয়ে। ওই জায়গায় প্রথম প্রথম এরকমই ছিলাম পরে দেখলাম যে না, জিনিসটা পরিবর্তন করতে হবে। যারা মাঠে থাকে তারা জানে। একটু এগ্রেসিভ, কঠোর থাকতে হয়। রুড না ঠিক, এগ্রেসিভ থাকতে হয় আরকি। সবাইকেই ঝাড়ি মারি।’ হেসে উত্তর দিলেন সাদা পোশাকে বাংলাদেশের অধিনায়ক।

ওয়াই

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ২১৮ ৩৩ ২০
বিশ্ব ১৪৪৭৪৬৬ ৩০৮২১৫ ৮৩৪৭১
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজ ২০২০ এর সর্বশেষ
  • বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজ ২০২০ এর পাঠক প্রিয়