logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

সূচ কাণ্ডে ফেরত পাঠানো হলো দুই ভারতীয়কে

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:৪৪ | আপডেট : ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:৫৮
অস্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে ক্রীড়াবিদেরা দারুণ করছেন। এখনো পর্যন্ত নিজেদের ঝুলিতে পুরেছে ১৬টি স্বর্ণপদক। কিন্তু এর মাঝে এবার কলঙ্ক ছড়িয়েছে সূচ বিতর্ক। এই কাণ্ডে দুই ভারতীয় অ্যাথলেটকে বহিষ্কার করেছে কমনওয়েলথ গেমস কর্তৃপক্ষ। 

সূচ কেলেঙ্কারি হুল হয়ে বিঁধেছে দেশটির ক্রীড়াঙ্গনে। এর আগে গোল্ডকোস্টে গেমস ভিলেজে ভারতীয় বক্সারদের কামরার বাইরে ডাস্টবিন থেকে প্লাস্টিকের বোতলের মধ্যে ইনজেকশনের সিরিঞ্জ খুঁজে পাওয়ায় বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। তাই টুর্নামেন্ট কমিটির কড়া নজরদারিতে ছিলেন দেশটির অ্যাথলেটরা। এবার সুচ পাওয়া গেছে অ্যাথলেট রাকেশ বাবু ও ইরফান কোলথুম থোডির কামরায়। গেমস ভিলেজে তাদের কামরায় একটি কাপের মধ্যে সুচ আবিষ্কার করা হয়। কমনওয়েলথ গেমস ফেডারেশন (সিজিএফ) আজ খবরটি নিশ্চিত করেছে।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : গোল্ডকোস্টে কুস্তির সেমিতে বাংলাদেশের শিরিন
--------------------------------------------------------

নির্ধারিত কক্ষে কোন প্রকার সূচ ব্যবহার করতে পারবেন না অ্যাথলেটরা। কমনওয়েলথ গেমসে এমন আইন থাকা সত্ত্বেও বাবু ও ইরফানের কক্ষে একটি কাপে পাওয়া গেছে সূচ। আইন অনুযায়ী কক্ষে সূচ ব্যবহার করতে হলে চিকিৎসকের অনুমতি প্রয়োজন।

সিজিএফ সভাপতি লুইস মার্টিনের শুনানিতে এ দুই অ্যাথলেটের ও ভারতীয় বহরের আরও তিন অফিশিয়াল হাজির হন। শুনানি শেষে মার্টিন বলেন, অ্যাথলেটদের ভাষ্য বিশ্বাসযোগ্য নয় এবং চাতুর্যপূর্ণ। রাকেশ বাবু ও ইরফান কোলথুম থোডি ‘নো নিডল’ আইন ভেঙেছেন। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া হিসেবে তাদের গেমসে অংশ নেয়া থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং গেমস ভিলেজ থেকেও বের করে দেয়া হয়েছে। আমরা ভারতের কমনওয়েলথ গেমস কর্তৃপক্ষকে বলেছি অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রথম ফ্লাইটেই তাদের ফেরত পাঠাতে।

ট্রিপল জাম্পার বাবু নিজের ইভেন্টে হয়েছেন ১২তম। আর ২০ কিলোমিটার হাঁটা প্রতিযোগিতায় ১৩তম হন ইরফান। 

আরও পড়ুন : 

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়