Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৬:৪৩
আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৭:১৫
discover

বাংলাদেশ-পাকিস্তান টেস্ট

ঢাকা টেস্টে পরিবর্তনের ইঙ্গিত মুমিনুলের

চট্টগ্রাম টেস্টে জয়ের সম্ভাবনা ছিল বাংলাদেশ দলের। পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় বারের মতো লিড নিয়েও শেষ পর্যন্ত হারতে হয়েছে ৮ উইকেটের ব্যবধানে। এমন হারে দায় কম নেই ব্যাটারদের। বিশেষ করে টপ-অর্ডারের ব্যাটারদের।

এছাড়া দলে ছিলেন না অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রাও। তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, তাসকিন আহমেদের মতো খেলোয়াড়দের না থাকাটা বেশ ভুগিয়েছে অধিনায়ক মুমিনুল হককে।

ব্যাটারদের ওপর দোষ চাপালেও টাইগার অধিনায়ক সন্তুষ্ট বোলারদের ওপর। বিশেষ করে তাইজুল ইসলাম ক্ষণে ক্ষণে ঘুরিয়ে দেন ম্যাচের মোড়।

তাইজুলকে নিয়ে মুমিনুল বলেছেন, “এই টেস্টে দুই-তিনটা প্রাপ্তির মধ্যে একটা প্রাপ্তি হচ্ছে সবচেয়ে বেস্ট, তাইজুলের ৭ উইকেট। কারণ এই উইকেটে ৭ উইকেট পাওয়া সহজ ছিল না। গত এক দেড় বছরে যেভাবে উন্নতি করার চেষ্টা করছে সেভাবে এটা খুব ভাল।”

তবে পাকিস্তানি পেসাররা যেভাবে উইকেট নিয়েছে সেভাবে পারেনি স্বাগতিক পেসাররা। এ নিয়ে মুমিনুল বলেছেন, “আমার কাছে মনে হয় ফ্লাট উইকেটে কীভাবে বল করতে হয় জানাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিদেশে বল করা একরকম, দেশে আরেক রকম। আমার মনে হয় বেশি বেশি চার দিনের ম্যাচ খেলা উচিত। আপনি ইন্ডিয়াতে দেখবেন তারা প্রচুর ম্যাচ খেলে। আমাদের পেসারদেরও সুযোগ পেলে চারদিনের ম্যাচ খেলা উচিত। এবং ফ্লাট উইকেটে বল করাটা শিখতে হবে।”

তবে সব ছাপিয়ে টপ অর্ডারের ব্যর্থতা নজরে পড়েছে সবার। চট্টগ্রাম টেস্টে দারুণভাবে ব্যর্থ হয়েছেন বাংলাদেশ দলের টপ-অর্ডারের ব্যাটাররা। প্রথম ইনিংসে ৪৯ রানে পড়েছিল ৪ উইকেট, পরের ইনিংসে মাত্র ২৫ রানেই।

সাদমান ইসলাম ১৪ ও ১, সাইফ হাসান ১৪ ও ১৮, নাজমুল হোসেন শান্ত ১৪ও ০ এবং মুমিনুল হক দুই ইনিংসে করেছেন ৬ এবং ০ রান। এই চার টপ-অর্ডারে মুমিনুল ছাড়া বাকি তিন জনের অভিজ্ঞতা খুব বেশি নয়।

এমন দুরবস্থায় ঢাকা টেস্টের একাদশে যে পরিবর্তন আসছে সেটার ইংগিত দিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক।

“আপনার অফিসে যদি কোনো জুনিয়র কাজ করতে না পারে তাহলে ডেফিনেটলি আপনার তো মানুষ পরিবর্তন করতে হবে। যদি ওদের দিয়ে কাজ করাতে না পারেন তাহলে অভিজ্ঞদের দিয়ে কাজ করাতে হবে। আপনি যা বলছেন তার সঙ্গে একমত। কাজ না করলে অভিজ্ঞদের দিয়ে কাজ করাতে হবে। আমার কাছে মনে হয় ওভাবে চিন্তা করা উচিত।”

আগামী ৪ ডিসেম্বর মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হবে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

এমআর/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS