Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮

সর্বাত্মক লকডাউনে কষ্টে বাস শ্রমিকরা (ভিডিও)

সর্বাত্মক লকডাউনে কষ্টে বাস শ্রমিকরা (ভিডিও)

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে চলছে কঠোর লকডাউন। বন্ধ করে দেয়া হয় দূরপাল্লার বাসসহ সকল প্রকার গণপরিবহন।তাতেই বিপাকে পড়ে বাস শ্রমিকরা। কাজ না থাকায় অলস সময় পার করছেন তারা। রোজগার বন্ধ হওয়ায় সংসার চালানোর চিন্তার ভাঁজও পড়েছে কপালে। সরকারি কোনো ত্রাণ মেলেনি। কেউ ত্রাণ নিয়ে এগিয়েও আসেনি। সরকারের ত্রিপল-থ্রি সেবার কথা অনেকে জানলেও সেখানে কল দিয়ে সাহায্যও চাননি।

বাসের চাকাটা ঘুরলেই সংসারের চাকাটা সচল থাকে শ্রমিক-কর্মচারীদের। গত ২২ জুন থেকে বাস চলাচল বন্ধ। তাই সংসারের চাকা সচল রাখা নিয়ে চিন্তিত সবাই। সবকিছু চললেও কেবল বাস বন্ধ রাখায় ক্ষোভ জানান পরিবহন শ্রমিকরা।

তারা বলেন, রিকশা চলে দুজন করে, মাইক্রোবাসে ১০ জন করে যাচ্ছে তাতে কোনো সমস্যা নেই। গণ-পরিবহণ চললেই করোনা মহামারি আকার ধারণ করে। সরকার পরিবহণ শ্রমিকদের ওপর জুলুম করছে বলেও জানান শ্রমিকরা।

বাস টার্মিনালগুলোতে শ্রমিকদের খুব একটা আনাগোনা নেই। কেউ কেউ এসেছেন অলস সময় পার করার জন্য। কাজ নেই, নেই আয়ও, পকেট ফাঁকা। তাই সংসার নিয়ে রয়েছেন দুশ্চিন্তায়। কোনো ত্রাণও কেউ দেয়নি। এমনকি সরকারও না।

এক পরিবহন শ্রমিক জানান, আমাদের প্রত্যেক টার্মিনালে যদি একটা করে ট্রাক পাঠিয়ে দিয়ে ১০ টাকা কেজি দরে চাল দিতো। আমাদের শ্রমিকরা অন্তত-ডাল-ভাত খেয়ে জীবন নির্বাহ করতে পারতো।

ত্রিপল-থ্রিতে কল দিয়ে কেউ সহায়তা চাইলে তা যাচাই-বাছাই শেষে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে পৌঁছে দেয়া হয় খাদ্য। গত ২৫ এপ্রিল থেকে ৬ জুন পর্যন্ত ৩০ লাখ ৯৯ হাজার ৯৪৯ জন খাদ্য সহায়তা চেয়ে ত্রিপল-থ্রিতে কল দিয়েছেন। এর মধ্যে যাচাই-বাছাই করে ১ লাখ ৫৪ হাজার ৪৬০ জনের তালিকা সরবরাহ করা হয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে। এভাবে খাদ্য সহায়তার কথা পরিবহন শ্রমিকদের অনেকেই শুনেছেন। কিন্তু কখনো কল দিয়ে চাননি।

পরিবহণ শ্রমিকরা আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জের একজন ফোন করে খাদ্য সহায়তা চেয়ে অপদস্থ হয়েছে। আমরা গরিব মানুষ সেখানে ফোন দিয়ে আবার কোন বিপদে পরি। না খেয়ে কষ্টে আছি এই বেশ ভালো আছি।

সরকার বেশ কয়েকবার সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা কখনো চোখে দেখেননি বলে জানান তারা। পরিবহন সংশ্লিষ্ট সংগঠনের মাধ্যমে শ্রমিকদের খাদ্য সহায়তা সরবরাহ করার দাবি তাদের।

এসজে/এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS