logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭

রোমস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন

The historic March 7 celebration at the Bangladesh Embassy in Rome
রোমস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন

ইতালিতে বাংলাদেশ দূতাবাস যথাযোগ্য মর্যাদা ও ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ‘ঐতিহাসিক ৭ মার্চ’উদযাপন করেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৭ মার্চ ১৯৭১-এ প্রদত্ত ঐতিহাসিক ভাষণ স্মরণে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত এই অনুষ্ঠান হয়।

আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জাতির পিতা ও মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন, বাণী পাঠ, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন এবং দেশি ও বিদেশি আলোচকদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা। সকালে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। এরপর দূতাবাসের সভা কক্ষে দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণটি শোনানো হয়। ঐতিহাসিক এই দিনের উপর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্মিত প্রামাণ্যচিত্রও প্রদর্শিত হয়।

ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশি রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ছাড়াও বিদেশি নাগরিকদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলাচকগণ ৭ মার্চের ভাষণকে বাংলাদেশের ইতিহাসের একটি অনন্যসাধারণ ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেন। প্রবাসীদের কল্যাণে দূতাবাস কর্তৃক গৃহীত সাম্প্রতিক কার্যক্রমের জন্যও বক্তারা দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, আলাচনা সভায় ইতালি প্রবাসী ছাড়াও ইউরোপের অন্যান্য দেশে বসবাসকারী এবং বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থানকারী প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশগ্রহণ করেন।

রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান তার বক্তব্যের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের সকল বীর শহীদদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ সম্পর্কে তিনি বলেন, এই ভাষণ শুধু বাঙালি জাতিকেই স্বাধীনতা অর্জনে অনুপ্রাণিত করেননি, সারা বিশ্বের নিপীড়িত নির্যাতিত স্বাধীনতাকামী মানুষকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে এবং ভবিষ্যতেও প্রেরণা যোগাবে।

তিনি আরও বলেন, ২০২১ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’হওয়ায় এ বছরটি বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বছর।

রাষ্ট্রদূত বর্তমান সরকারকে প্রবাসী-বান্ধব সরকার হিসেবে উল্লেখ করে ছুটির দিনেও কন্স্যুলার সেবা প্রদানসহ দূতাবাস কর্তৃক প্রবাসীদের কল্যাণগৃহীত সাম্প্রতিক বিভিন্ন কর্মসূচি সম্পর্কে সকলেক অবহিত করেন।

উল্লেখ্য, কোভিড-১৯ মহামারির কারণে ইতালি সরকার কর্তৃক আরোপিত কঠোর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শুধু দূতাবাসের সদস্যদের উপস্থিতিতে সীমিত পরিসরে দূতাবাস এবং অনলাইন প্লাটফর্ম জুমে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।

পি

RTV Drama
RTVPLUS