logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

২৫ বছর পর পাকিস্তানে দাউদ ইব্রাহিমের হদিশ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৭ জুলাই ২০১৯, ১৭:৩১
দাউদ ইব্রাহিম
ছবি: সংগৃহীত
১৯৯৩ সালে মুম্বাই সিরিয়াল ব্লাস্টের পর মোস্ট ওয়ান্টেড মাস্টারমাইন্ড দাউদ ইব্রাহিম গত ২৫ বছর ধরে পলাতক। বহুবার শোনা গেছে, তিনি পাকিস্তানে লুকিয়ে আছেন। যদিও পাকিস্তান সরকার একাধিকবার সেই দাবি খারিজও করেছে। তবে ভারতীয় গণমাধ্যম জি নিউজ বলছে, দাউদের একটি ছবি প্রমাণ করে দিয়েছে যে- এতদিন ধরে মিথ্যা কথা বলে আসছে পাকিস্তান। দাউদ আসলে সেখানেই লুকিয়ে রয়েছেন।

জি মিডিয়া দাবি করেছে, তারা এমন একটি ছবি পেয়েছে যা প্রমাণ করে দাউদ এতদিন ধরেই পাকিস্তান আছেন। তারা বলছে, ডি নেটওয়ার্ক-এর ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্ক দেখভাল করা জাবির মোতিবালের সঙ্গে দেখা করার সময় ক্যামেরাবন্দি হয়েছেন দাউদ। সেই ছবি হাতে এসেছে গুপ্তচরদের হাতে হয়ে জি মিডিয়ার কাছে এসেছে।

কয়েকদিন আগে খবর বেরিয়েছিল যে, দাউদ ইব্রাহিম অসুস্থ। কিন্তু এই ছবিতে দাউদকে একেবারে সুস্থ বলেই মনে হচ্ছে। গুপ্তচরদের খবর অনুযায়ী, পাকিস্তানের করাচিতে লুকিয়ে রয়েছেন দাউদ। কয়েকদিন আগে ব্রিটেনে জাবির মোতিবাল গ্রেপ্তার করা হয় । মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই-এর জেরার মুখে জাবির স্বীকার করে যে, দাউদ পাকিস্তানেই রয়েছে। তবে পাকিস্তান এখনও সে দাবি অস্বীকার করে আসছে।

এফবিআই-র দাবি করেছে, দাউদের সবচেয়ে কাছের লোকদের একজন এই জাবির। দাউদ ও তার নেটওয়ার্ক-এর যাবতীয় তথ্য রয়েছে জাবিরের কাছে। ভারতীয় গোয়েন্দা এজেন্সির দাবি, ডি নেটওয়ার্ক-এর সঙ্গে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই-এর গোপন সম্পর্ক রয়েছে।

এদিকে এফবিআই-র তদন্তে এক চমকপ্রদ তথ্য উঠে এসেছে। তারা জানিয়েছে, জাবিরের কাছে ব্রিটেনের ১০ বছরের ভিসা রয়েছে। ওই ভিসার মেয়াদ শেষ হবে ২০২৮ সালে। তবে জাবির গত কয়েক মাস ধরে অ্যান্টিগুয়া ও বারমুডার নাগরিকত্ব নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে এফবিআই। এজন্য দুবাইয়ের একটি এজেন্সিকে দুই লাখ ডলারও দিয়ে রেখেছিল জাবির।

অন্যদিকে লন্ডনে পাকিস্তানি হাইকমিশন জানিয়েছে, জাবির একজন ব্যবসায়ী। দাউদের সঙ্গে তার কোনও যোগাযোগ নেই বলেও জানিয়েছে তারা।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়