logo
  • ঢাকা বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৮৪৯ জন, মোট মৃত্যু ৮১৮৯ জন, আক্রান্ত ৯৪৪১৭ জন: এএফপি। সৌদিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১১০ আক্রান্ত, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৬৩ জন: সৌদি গেজেট। এই প্রথম কাতারে এক বাংলাদেশির মৃত্যু: কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে নতুন আক্রান্ত ২, মোট আক্রান্ত ৫১ জন, সুস্থ ৬ জন: আইইডিসিআর। যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫৬৫, আক্রান্ত ১৯৯৮৮, মোট মৃত্যু ৩০৪০, আক্রান্ত এক লাখ ৬৪২৭৪ জন, এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে নিউইয়র্ক সিটিতে। গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে মৃত্যু ৯১৩, জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ৫২৩১ জন, আক্রান্ত ৭৮৪৬, সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে ১১ হাজার ৫৯১, তারপর স্পেনে ৭৭১৬, ফ্রান্স ৩১৮৬: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি।

শোকে পাথর তাপস পালের স্ত্রী, কাঁদছেন মেয়ে

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:৫৩ | আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:১৪
তাপস পাল, মরদেহ, সোহিনী, নন্দিনী,  শোক
তাপস পালের স্ত্রী নন্দিনী, মেয়ে সোহিনী।

গেল মঙ্গলবার হৃদরোগে আক্রান্ত  হয়ে সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে গেছেন টালিউড অভিনেতা তাপস পাল। অভিনেতা চলে যাবার এই শোক পৌঁছেছে টালিউড, বলিউড এবং ঢালিউডে। যদিও ভক্তদের মনের শোক এখন কিছুটা কমেছে। কিন্তু শান্ত হতে পারেননি তাপস পালের স্ত্রী নন্দিনী। শোকে পাথর হয়েছেন তিনি। অন্যদিকে অঝোরে কেঁদে যাচ্ছেন তাপস পালের মেয়ে সোহিনী।

একাধিক ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, মাত্র ৬১ বয়সে প্রয়াত তাপস পাল। বাবা আর নেই, যেন ভাবতেই পারছেন না মেয়ে৷। মাকে পাশে নিয়েই ডুকরে কেঁদে উঠছেন সোহিনী। স্বামী হারানোর শোক, মেয়ের চোখের জল দেখে অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন তাপস পালের স্ত্রী নন্দিনী। চিরকাল স্বামীকে আগলে রেখেছেন স্ত্রী নন্দিনী। শেষবেলায়ও তিনিই ছিলেন তাপসের সঙ্গে।

তাপসের মৃত্যুর খবর জানার পর গতকাল তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত ছিলেন বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বহু তারকা। বাবার মৃ্ত্যুতে মেয়ে সোহিনীর চোখে ছিল শূন্যতা। মেয়ে সোহিনী আলতো করে নিজের ওড়না দিয়ে বাবার মুখ মুছে দেন।

গতকাল তাপস পালকে শেষবারের মতো দেখতে আসেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, জিৎ। ছলছল করছিল তাদের চোখ।

বুধবার চোখের জলে অভিনেতাকে চির বিদায় দেন তার পরিবার। রবীন্দ্র সদন থেকে কেওড়াতলায় নিয়ে যাওয়া হল তাপস পালের দেহ। দুপুর একটার কিছু পরে অভিনেতার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় কেওড়াতলা মহাশ্মশানে। সেখানে তাকে গান স্যালুট দিয়ে বিদায় দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারতের বান্দ্রার হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তাপস পাল। দীর্ঘদিন ধরে স্নায়ুর রোগে ভুগছিলেন তিনি। কথা বলা ও চলা-ফেরায় সমস্যা ছিল। ভর্তি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল। ৬ ফেব্রুয়ারি ভেন্টিলেশন থেকে বের করা হয়। সোমবার রাতে আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন তাপস পাল। মঙ্গলবার ভোর ৩টা ৩৫ মিনিটে তার মৃত্যু হয়।

জিএ  

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫১ ১৯
বিশ্ব ৮২৩৭৪৯ ১৭৪১১৫ ৪০৭০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিনোদন এর সর্বশেষ
  • বিনোদন এর পাঠক প্রিয়