Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮

বিপুল ভোটে হেরে যা বললেন রুদ্রনীল

রুদ্রনীল ঘোষ

পশ্চিমবঙ্গের একজন জনপ্রিয় অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। তৃণমূলের সঙ্গেই ছিলেন তিনি। তবে এবার বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিতে যোগ দিয়েই প্রার্থী বনে গেলেন তিনি।

নির্বাচনে দাঁড়িয়ে অনেক বড় বড় কথা বলেছিলেন রুদ্রনীল ঘোষ। কিন্তু ভোট গণনা শেষ হতেই ফলাফল বলে দিলো ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে পরাজিত হয়েছেন বিজেপির তারকা প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ। তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা শোভনদেবকে হারাবেন একথা বহুবার বলেছেন। কিন্তু শোভনদেবের কাছে ২৮,৫০৭ ভোটের ব্যবধানে তিনি পরাজিত হয়েছেন। ভোট গণনা শেষে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন রুদ্রনীল।

রুদ্রনীল এই পোস্টে জয়ী দল তৃণমূল কংগ্রেসকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ২১ শের ভোট যুদ্ধ শেষ। মানুষের রায়ে আশাতীত সাফল্যে প্রথম স্থানে তৃণমূল এবং দ্বিতীয় স্থানে বিজেপি। সিপিএম ও কংগ্রেস শূন্য। জয়ী প্রার্থীদের অভিনন্দন। যারা জয়ী হলেন না, তাদের পরিশ্রমকে কুর্নিশ। সব রাজনৈতিক দলের ভোটার, সমর্থক ও কর্মীদের ভালোবাসা জানাই। নির্বাচনে হার জিত থাকেই। ভবানীপুর কেন্দ্র থেকে আমায় হারিয়ে জয়ী হয়েছেন শ্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। ওনাকে অভিনন্দন।

রুদ্রনীলেরই আরও দুই ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবার তৃণমূলের হয়ে লড়েছেন এবং জয়ী হয়েছেন। তাদের সম্পর্কেও অভিনেতা বলছেন, সদ্য রাজনীতিতে পা দিয়েই জয়ী হয়েছেন ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাজ চক্রবর্তী ও কাঞ্চন মল্লিক। দুজনকেই শুভেচ্ছা।

তিনি লিখেছেন, আশা করব প্রথা পাল্টে তৃণমূল এদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেবে এবার। এই নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জী হেরে গেছেন শুভেন্দু অধিকারীর কাছে। যে কোনো কেউ হারুন বা জিতুন, নতুন সরকারে যেন ফের দূর্নীতি না জেতে সেটাই কাম্য। জিতুক বাংলার সাধারণ মানুষের সত্যিকারের উন্নয়ণ, জিতুক বাংলার বেকারদের চাকরি পাওয়ার স্বপ্ন, জিতুক স্বাস্থ্য ব্যাবস্থার পরিকাঠামো ও পুলিশের শিরদাঁড়া। হারুক ক্ষমতার আস্ফালন আর গুন্ডামি। জিতুক বাংলার শরীর ও মন।"

এম

RTV Drama
RTVPLUS