logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

এবার বাংলার হারকিউলিস হয়ে আসছেন ডিপজল

এবার বাংলার হারকিউলিস হয়ে আসছেন ডিপজল
ফাইল ছবি

চলচ্চিত্রের মুভিলর্ড খ্যাত মনোয়ার হোসেন ডিপজল একসঙ্গে অর্ধ ডজনেরও বেশি সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন। তার ঘোষণা মত ইতোমধ্যে এসব সিনেমার নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। সম্প্রতি তার গল্পে মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘অমানুষ হলো মানুষ’ সিনেমার শুটিং এবং ডাবিং শেষ হয়েছে। এ সিনেমার কাজ শেষ করেই নতুন সিনেমার কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন ডিপজল। শিগগিরই নতুন সিনেমা ‘বাংলার হারকিউলিস’-এর শুটিং শুরু হচ্ছে।

নতুন এ সিনেমায় বাংলার হারকিউলিস হিসেবে আসছেন ডিপজল। এ সিনেমাটিও পরিচালনা করছেন মনতাজুর রহমান আকবর। এর গল্পও ডিপজলের। গল্পটি পুলিশি-থ্রিলার ধাঁচের। গল্পে বিভিন্ন ধরনের টুইস্ট থাকবে। এতে নায়িকা হিসেবে থাকবেন মৌ খান। এছাড়া তরুণ নায়ক হিসেবে থাকবে নাদিম।

ডিপজল জানান, নতুন সিনেমাটির শুটিং ‘অমানুষ হলো মানুষ’ এর মতোই একটানা শেষ করা হবে। আমি আমার ঘোষণা মতোই একের পর এক সিনেমার কাজ শুরু করেছি। প্রথমে সাতটি সিনেমার ঘোষণা দিলেও এখন এ সংখ্যাটি আরও বাড়বে। এসব সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে সিনেমার যে সংকট চলছে, নতুন সিনেমার অভাবে হল বন্ধ হয়ে আছে, এ সংকট কিছুটা হলেও দূর হবে।

তিনি বলেন, আমি সিনেমা বানাই দর্শকের চাহিদা ও মনমত। বর্তমান প্রযুক্তির যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে সিনেমা নির্মাণ করছি। একটা সময় অশ্লীল সিনেমার কারণে যখন চলচ্চিত্র অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় চলে গিয়েছিল, তখন ২০০৬ সালে আমি একের পর এক সামাজিক ও পারিবারিক গল্পের সিনেমা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিলাম। কোটি টাকার কাবিন, চাচ্চু, মায়ের হাতে বেহেস্তের চাবিসহ পরপর সাত-আটটি সিনেমা নির্মাণ করেছিলাম। এসব সিনেমা দর্শক বিপুলভাবে গ্রহণ করে অশ্লীল সিনেমা যুগের অবসান ঘটিয়েছিল। অন্য নির্মাতারাও উৎসাহিত হয়ে সে ধারায় সিনেমা নির্মাণ শুরু করেন।

তিনি আরও বলেন, সিনেমাগুলো পরপর মুক্তি পাওয়া শুরু করলে সিনেমার বাজার আবার চাঙ্গা হয়ে উঠবে। আমি ব্যবসার জন্য সিনেমা বানাই না। ভালোবেসে এবং দর্শকের চাহিদা পূরণ করার জন্য সিনেমা বানাই। সিনেমা আমার রক্তের সঙ্গে মিশে আছে। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সিনেমা বানিয়ে যাব।

এসআর/এসএস

RTV Drama
RTVPLUS