• ঢাকা রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১
logo
হাসপাতালের লিফটে আটকে রোগীর মৃত্যু
গাজীপুরে গাড়ির ধাক্কায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নিহত
গাজীপুরের বাইমাইল এলাকায় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও একজন।  শুক্রবার (১০ মে) রাত পৌনে ৯টায় গাজীপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়কের বাইমাইল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, ময়মনসিংহের নান্দাইল থানার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের মারফত আলীর ছেলে মনজুর সরকার (৩৮) ও বগুড়ার মোকামতলা এলাকার এহসান হাসান (৪২)।  জানা যায়, নিহত মনজুর গাজীপুরের মহানগরের কোনাবাড়ীর এশরারনগর হাউসিং এলাকায় ও এহসান হাসান হরিণাচালার এলাকায় বসবাস করতেন। আহত আব্দুল হামিদের (৪৫) বাড়ি পাবনায়। তিনি হরিণাচালায় বসবাস করতেন। তারা তিনজনই এলাকায় ঝুট ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। স্থানীয়রা জানান, রাত ৯টার কিছু সময় পর কোনাবাড়ী থেকে মোটরসাইকেলে করে মনজুর সরকার, এহসান হাসান ও আব্দুল হামিদ ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক ধরে গাজীপুরের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় বাইমাইল ব্রিজের ওপর পৌঁছালে পেছন থেকে অজ্ঞাত একটি গাড়ি মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়।  এতে তিন আরোহী মহাসড়কের ওপর পড়ে যান। গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মনজুর সরকার ও এহসান হাসান ঘটনাস্থলেই মারা যান এবং আব্দুল হামিদ গুরুতর আহত হন। আহত অবস্থায় তাকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোনাবাড়ী থানার ওসি কে এম আশরাফ উদ্দিন। তিনি বলেন, দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি কীভাবে ঘটেছে তা নিশ্চিত না। তবে ধারণা করছি কোনো গাড়িচাপায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
গাজীপুরের জেলা প্রশাসকের ফেসবুক আইডি হ্যাক
গাজীপুরে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেল প্রকৌশলীর
গাজীপুরে স্কুলছাত্রকে হত্যার দায়ে ৭ জনের যাবজ্জীবন
মহাসড়কের পাশে পড়ে ছিল হাতির মরদেহ
গাজীপুরের টঙ্গীতে ঝুটের গুদামে আগুন
গাজীপুরের টঙ্গী শিল্পাঞ্চলের পাগার এলাকায় মেহমুদ ইন্ডাস্ট্রিজের পাশে ঝুটের গুদামে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে।   সোমবার (২২ এপ্রিল) বেলা সোয়া ১টায় আগুন লাগার এ ঘটনা ঘটে।  প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বেলা সোয়া ১টার দিকে হঠাৎ করেই মেহমুদ ইন্ডাস্ট্রির পাশে বর্জিত ঝুটের গুদামে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যেই গুদামে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাবাসী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ও উত্তরা ফায়ার সার্ভিসের ১টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে গুদামে রক্ষিত মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়।  ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স ঢাকা জোন-৩ এর উপসহকারী পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, মেহমুদ ইন্ডাস্ট্রির পাশে আগুন লাগার খবর পেয়ে টঙ্গী ও উত্তরা ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিটের কর্মীরা প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। এ বিষয়ে তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।
টঙ্গীতে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ
গাজীপুরের টঙ্গীতে ৫ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।  রোববার (৩১ মার্চ) দুপুরে টঙ্গীর আলেরটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত তরুণ ফাহিমকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে। তিনি ঠাকুরগাঁও জেলার সদর থানার সরকার পাড়া গ্রামের ফিরোজ মিয়ার ছেলে। ফাহিম মিরাশপাড়া এলাকায় কাইয়ুম মোল্লার বাসার ভাড়াটিয়া। অভিযুক্ত ফাহিম টঙ্গীর বিসিক এলাকার একটি ওয়াশিং কারখানায় কাজ করতেন। পুলিশ জানায়, নির্যাতিতা ওই শিশু ও ফাহিম একই মালিকানাধীন পাশাপাশি পৃথক দুটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। রোববার দুপুরে ভাড়া বাসার পাশে খেলাধুলা করছিল শিশুটি। এ সময় ফাহিম চকলেট দেওয়ার কথা বলে চারতলা ভবনের নিজ ফ্লাটে ডেকে নিয়ে যায় শিশুটিকে। এরও এক পর্যায়ে ফ্ল্যাটের একটি কক্ষে ধর্ষণ করেন। এরই মধ্যে কিছু সময় পর শিশুটিকে না দেখতে পেয়ে তার মা খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। পরে শিশুটির মা ওই ভবনের কক্ষে গেলে অভিযুক্ত ফাহিম শিশুটিকে কক্ষে ফেলে দৌড়ে পালিয়ে যায়। রোববার সন্ধ্যায় পুলিশকে বিষয়টি জানালে পুলিশ অভিযুক্ত ফাহিমকে আটক করে। এ ঘটনায় রাত আটটায় শিশুটির বাবা টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।  ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুস্তাফিজুর রহমান।  তিনি বলেন, মামলা দায়েরের পর আটককৃত ফাহিমকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। সোমবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।
গাজীপুরের টঙ্গীর স্টিল মিলের বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারে আগুন
গাজীপুরের টঙ্গীতে মিল গেট এলাকায় একটি কারখানার নিজস্ব বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট ১ ঘণ্টার বেশি সময়ের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।  মঙ্গলবার (১২ মার্চ) ভোরে টঙ্গীর মিল গেট এলাকায় এসএস স্টিল মিলের নিজস্ব ১১ কেভি দুটি বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারে আগুন লাগার এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল-আরেফিন। তিনি বলেন, আজ ভোর ৬টা ৩৫ মিনিটে গাজীপুরের টঙ্গীর মিল গেট এলাকায় এসএস স্টিল মিলের বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ শুরু করে। এক ঘণ্টার বেশি সময়ের চেষ্টায় সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।  তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত সাপেক্ষে পরে জানানো হবে।
গাজীপুরে কাস্টমস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে কাস্টমসের উপকমিশনার বিল্লাল হোসেন ও তার স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা করেছে দুদক। সোমবার (৪ মার্চ) দুদকের গাজীপুর জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপপরিচালক বায়েজিদুর রহমান খান বাদী হয়ে মামলা দুটি করেন। বিল্লাল হোসেন বর্তমানে রংপুর কাস্টমস হাউজে ও তার স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস মহাখালী ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউটে কর্মরত। মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, বিল্লাল হোসেন ও তার স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসের সম্পদের তথ্য চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন থেকে সম্পদ বিবরণী জারি করা হয়। পরে তিনি ২০২০ সালে ২৭ ডিসেম্বর সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। তার দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণী যাচাইকালে উপকমিশনার বিল্লাল হোসেনের নামে ৫১ লাখ ৩৮ হাজার ৮১৬ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের প্রাথমিক প্রমাণ পান। আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও দখলে রাখার অপরাধে বিল্লাল হোসেনের নামে দুর্নীতি দমন কমিশন মামলা করে। এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়, সম্পদ বিবরণী যাচাইকালে বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী চিকিৎসক জান্নাতুল ফেরদৌসের নামে ৫৫ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনসহ এক কোটি ১৩ লাখ এক হাজার ৮৩ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের প্রাথমিক প্রমাণ পেয়েছেন অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা। ওই সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয় বহির্ভূত অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসের নামেও আরেকটি মামলা করা হয়।
টঙ্গীতে ৭ তলা ভবনে আগুন, দগ্ধ ৬
গাজীপুরের টঙ্গীতে একটি ৭ তলা ভবনে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৬ জন দগ্ধ হয়েছেন। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ভোরে মরিয়ম ম্যানশন নামের ওই ভবনে আগুন লাগার এ ঘটনা ঘটে। পরে টঙ্গী ও উত্তরা ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিটের সদস্যরা সকাল ৭টা ১০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।  স্থানীয়রা জানান, টঙ্গী বাজার এলাকার ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় এনআরবিসি ব্যাংকের শাখা রয়েছে। ভবনের বাকি অংশ স্থানীয় ব্যবসায়ীরা গুদাম হিসেবে ব্যবহার করেন। জানা যায়, ভোরবেলা চতুর্থ তলায় আগুন দেখতে পেয়ে ভবনের লোকজন ও এলাকাবাসী তা নেভানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু আগুন দ্রুত নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় এবং পঞ্চম ও ষষ্ঠ তলায় ছড়িয়ে পড়ে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা আবু মোহাম্মদ সাজেদুল কবির জোয়ার্দার। তিনি বলেন, শুরুতে তাদের তিনটি ইউনিট আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। কিন্তু আগুনের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় উত্তরা ফায়ার স্টেশনের আরও তিন তিনটি ইউনিট তাদের সঙ্গে যোগ দেয়। পরে ৭টা ১০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।  এ দিকে ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা জোন-৩ এর উপ-সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেন, আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত সাপেক্ষে জানা যাবে। ওই ভবনে থাকা ব্যবসায়ী লিখন হোসেন জানান, তিনিসহ ছয়জন আগুনে সামান্য দ্বগ্ধ হয়েছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন লিটন, রাকিব, সাগর, রোমান ও মনোয়ারুল। তাদের কারো হাত, মাথার চুল ও পা আগুনে ঝলসে গেছে। তারা স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন।
ফের সিটি করপোরেশনের গাড়িচাপায় পথচারী নিহত
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ময়লা ফেলার গাড়ির চাপায় এবার মহানগরের কুনিয়া তারগাছ এলাকায় এক নারী পথচারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনার জেরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে গাড়ি ভাঙচুর করেছে উত্তেজিত জনতা। এ সময় ময়লা ফেলার গাড়ির সামনের অংশে আগুন ধরিয়ে দেন তারা। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল পৌনে ৮টার মহাসড়ক পার হওয়ার এ দুর্ঘটনা ঘটে।  তাৎক্ষণিক নিহত ওই পথচারী নারী পরিচয় জানা যায়নি। তার বয়স আনুমানিক ৩০ বছর।  জানা যায়, ওই নিহত নারী স্থানীয় একটি কারখানার পোশাক শ্রমিকের কাজ করতেন। এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গাজীপুরের গাছা থানার ওসি মো. শাহ আলম।  তিনি বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা চলছে। সকাল সাড়ে ৯টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ দিকে টঙ্গী ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবু মুহাম্মদ সাজেদুল কবীর জোয়ারদার বলেন, এ এলাকার উত্তেজিত পোশাকশ্রমিকরা মহাসড়কে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গাড়ি ভাঙচুর করার কারণে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি নিয়ে ঘটনাস্থলে আগুন নেভাতে যাওয়া সম্ভব হয়নি।