Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

আরটিভি নিউজ

  ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২২:৫৩
আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:৪৫

ধনী পরিবারের মেয়েরাই নাসিরের প্রথম টার্গেট

তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশিদ

ধনী পরিবারের মেয়েদের টার্গেট করে নানান পরিচয়ে প্রতারণা চালিয়ে আসছিলেন নাসির উদ্দিন বুলবুল। একেক বার একেক পরিচয়। কখনো এসএসএফ’র সহকারী পরিচালক আবার কখনো বড় কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। বিভিন্ন জায়গায় এমন পরিচয় দিতেন পাবনার নাসির।

আরও পড়ুন : স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়ে অন্যকে বিয়ে করলে আইনে স্ত্রীর যে শাস্তি হবে

অতঃপর এক মেয়ের বাবার সাথে এসএসএফ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা করতে গিয়ে ধরা পড়লেন নাসির। সাথে তার সহযোগী মনির হোসেনকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে গণভবন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে প্রতারণার অভিযোগে শেরেবাংলা নগর থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : আম্মু কি করতেছে তুমি দেখছো বাবা, বকা দিবা না: তামিমার মেয়ে

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশিদ তার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, নাসির আসলে একজন প্রতারক। তিনি নিজেকে কখনো এসএসএফ’র সহাকারী পরিচালক, আবার কখনো নামি-দামি কোম্পানির কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা করতেন। নিজের বিলাসবহুল জীবন বোঝানোর জন্য একেকদিন একেক পোশাক পড়তেন। আলাদা আলাদা ঘড়ি ব্যবহার করতেন। এমন পোশাক-আশাক ব্যবহার করে উচ্চবিত্ত পরিবারের মেয়েদের ফাঁদে ফেলে তাদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন নাসির।

আরও পড়ুন : ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি

ডিসি হারুনুর রশিদ আরও বলেন, এক মেয়ের বাবার সাথে এসএসএফ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা করার সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আর দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছিলেন নাসির। তাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও কিছু তথ্য জানা যাবে।

জিএম/এফএ

RTV Drama
RTVPLUS