Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

চরমপন্থা মোকাবিলায় পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

Bangladesh is ahead of Pakistan in tackling extremism
সংগৃহীত

সন্ত্রাস ও ধর্মীয় চরমপন্থা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের কার্যক্রমের প্রশংসা করেছে ইউরোপের শীর্ষ একটি অলাভজনক সংস্থা ইউরোপিয়ান ফাউন্ডেশন ফর সাউথ এশিয়ান স্টাডিজ (ইএফএসএএস)। গভীর বিশ্লেষণের ভিত্তিতে একটি মন্তব্য প্রতিবেদনে বাংলাদেশের প্রশংসা করা হয়।

‘বাংলাদেশ অ্যান্ড পাকিস্তান: অ্যাক্টিং অ্যাগেইনস্ট এক্সট্রিমিজম ভারসাস মেকিং এ শো অব অ্যাক্টিং অ্যাগেইনস্ট এক্সট্রিমিজম’ শিরোনামে এ প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

সেখানে বলা হয়, দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক প্রতিবেশী পাকিস্তান যেখানে ‘চরমপন্থি ও সন্ত্রাসীদের উৎসাহ, আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছে’ সেখানে তাদের দমনে বাংলাদেশের ভূমিকা যথেষ্ট ইতিবাচক।

প্রতিবেদনে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশের কট্টরপন্থী ইসলামী গোষ্ঠী হেফাজতে ইসলাম ও পাকিস্তানের কট্টরপন্থী তেহরিক-ই-লাব্বাইক পাকিস্তানের (টিএলপি) কার্যক্রম তুলে ধরা হয়।

এ প্রসঙ্গে ইএফএসএএস জানিয়েছে, এসব গোষ্ঠী এই দুই দেশে সরকারের জন্য উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। নিজ নিজ দেশের সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে সহিংস ও প্রাণঘাতী বিক্ষোভে জড়িয়েছে গোষ্ঠী দুটি।

ইএফএসএএস বলছে, গত মাসে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে সহিংস বিক্ষোভের পর সরকার হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালায়। এমতাবস্থায় সরকারের ক্ষোভ কমাতে নিজেদের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে হেফাজত।

বিপরীতে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়ে পার্লামেন্টে বিতর্ক করতে তাদের সরকারকে বাধ্য করেছে টিএলপি। ফ্রান্সে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর কার্টুন প্রচারের পর ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবিতে রাস্তায় নেমে আসে টিএলপি।

এ/পি

RTV Drama
RTVPLUS