• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

রাশিয়ায় খেলার অনুমতি পেলেন পেরু অধিনায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ০১ জুন ২০১৮, ১৪:৪৪ | আপডেট : ০১ জুন ২০১৮, ১৬:৩৮
৩৬ বছর পর বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলবে পেরু। আর এখানে থাকবেন না দেশকে বিশ্বকাপে সুযোগ পাইয়ে দেয়ার মূল কারিগর এটা কি হয়? ড্রাগ টেস্টে ব্যর্থ হওয়ায় রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন পেরুর নিয়মিত অধিনায়ক পাওলো গুয়েরেরো। অবশেষে সুইজারল্যান্ডের একটি আদালত সেই নিষেধাজ্ঞা সাময়িকভাবে তুলে নেয়ায় বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন গুয়েরেরো। 

যদিও গুয়েরেরোর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার জন্য বিশ্বকাপে ‘সি’ গ্রুপে পেরুর তিন প্রতিপক্ষ ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া ও ফ্রান্সের অধিনায়করাও ফিফাকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন।

গত ৫ অক্টোবর বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে আর্জেন্টিনার সঙ্গে ম্যাচের পর গুয়েরেরোর ডোপ পরীক্ষা করা হয়। তার শরীরে নিষিদ্ধ কোকেনের উপস্থিতি পাওয়ায় প্রাথমিকভাবে তাকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল ফিফা। তার এমন অপরাধ ইচ্ছাকৃত না হলেও আইন ভঙ্গ করায় কঠোর সিদ্ধান্ত নেয় ফিফা। পরবর্তীতে গুয়েরেরোর আবেদনের প্রেক্ষিতে নিষেধাজ্ঞা ছয় মাসে নামিয়ে আনে ফিফার আপিল কমিটি। 
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ২২ বছরের আক্ষেপ ঘুচাতে পারবে পাকিস্তান?
--------------------------------------------------------

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার দশ দিনের মাথায় তাকে অধিনায়ক করে রাশিয়া বিশ্বকাপগামী পেরুর জাতীয় দল ঘোষণা করেন পেরুর ফুটবল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু দল ঘোষণার একদিন পর ক্রীড়ার সর্বোচ্চ আদালত কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসে (সিএএস) এই রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন করে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা)। পরে সিএএস নিষেধাজ্ঞা ছয় মাস কমানোর রায় বাতিল করে ১৪ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করে ৩৪ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডকে।

সিএএস এর আবেদনের প্রেক্ষিতে পুনরায় আপিল করেন পেরুর অধিনায়ক। শেষ পর্যন্ত সুইস ট্রাইব্যুনালের রায়ে সিএএসের নিষেধাজ্ঞা বাড়ানোকে অযৌক্তিক উল্লেখ করে তা বাতিল করা হয়েছে। রায়ে আরো কিছু যুক্তি তুলে ধরেন আদালত। বিচারক ক্রিস্টিনা কিস বলেন, আবেদনকারীরর সব বিষয়কে মাথায় নিয়ে ভেবে দেখেছে তার বয়স ৩৪। ফুটবলার হিসেবে ক্যারিয়ারের এই মুহূর্তে এটাই হয়তো তার শেষ বিশ্বকাপ। তাকে খেলতে দেয়া না হলে হয়তো তাকে আরও ভুগতে হবে। তাতে করে পেরুর হয়ে সবচেয়ে বেশি গোল করা এই ফরোয়ার্ডের রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলতে আর বাধা রইলো না। 

আদালত এও বিবেচনায় নিয়েছে যে ডোপ সেবনের ঘটনাটি ইচ্ছাকৃত ছিল না। এমন সিদ্ধান্তে পেরুর আইনজীবী বলেছেন, সুবিচার নিশ্চিত হয়েছে তবে সেটা আংশিক। তবে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবেন তারা। 

নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার সিদ্ধান্ত এমন এক সময়ে এলো যখন ২৩ জনের ফাইনাল স্কোয়াড ঘোষণার জন্য আর মাত্র ৪ দিন সময় আছে। ফলে পেরুর অধিনায়ক হিসেবেই আবার দলে ফিরতে চলেছেন সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ তারকা গুয়েরেরো।

ব্রাজিলিয়ান ক্লাব ফ্লামেঙ্গোর খেলোয়াড় গুয়েরেরো জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ৮৪টি ম্যাচ খেলে ৩৩টি গোল করেছেন। ১৯৮২ সালের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয়া পেরুর প্রথম ম্যাচ ১৬ জুন ডেনমার্কের বিপক্ষে।

আরও পড়ুন : 

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়