• ঢাকা সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

দীর্ঘ মেয়াদে নারী ফুটবল নিয়ে কাজ করার ইঙ্গিত দিলেন হুরতাদো (ভিডিও)

অরণ্য গফুর, আরটিভি
|  ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ১২:২৮ | আপডেট : ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:০৮
বাংলাদেশের নারী ফুটবলারদের সঙ্গে খেলায় মগ্ন জেসিকা হুরতাদো

বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ মহিলা আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের টুর্নামেন্টের প্রচারণার অংশ হিসেবে সম্প্রতি ঢাকা সফর করে গেলেন কলম্বিয়ার হয়ে নারী বিশ্বকাপ মাতানো ক্যাথরিন ফ্যাবিওয়ালা, সঙ্গে ছিলেন দেশটির সাবেক নারী ফুটবলার ও সংগঠক জেসিকা হুরতাদো। 

যাওয়ার আগে বাংলাদেশের নারী ফুটবলের সঙ্গে কাজ করে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন জেসিকা হুরতাদো। আর ক্যাথেরিন মজেছেন এদেশের অতিথি পরায়ণতায়। পাশাপাশি তিনি মুগ্ধ হয়েছেন নারী ফুটবলের অগ্রগতি দেখে। 

সম্প্রতি আরটিভির সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন কলম্বিয়ান ফুটবল প্রশিক্ষক জেসিকা হুরতাদো ও ফুটবলার ক্যাথেরিন ফ্যাবিওলা ক্যাস্ত্রো মুনোজ। 

টুর্নামেন্টের শুভেচ্ছা দূতের সঙ্গে ক্যাথরিন ও জেসিকা

জেসিকা হুরতাদো কলম্বিয়ান বংশোদ্ভূত ফুটবল প্রশিক্ষক। অলিম্পিকের মতো মঞ্চ মাতিয়েছেন তিনি, খেলেছেন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে। মাঠ মাতিয়েছেন ইউরোপের একাধিক ক্লাবের হয়েও। বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের সুবাদে, এবার ঘুরে গেলেন বাংলাদেশে। 

খুব কাছ থেকে দেখেছেন নারী ফুটবলারদের। বিনিময় করেছেন অভিজ্ঞতা। ছোটখাটো টিপসও দিয়েছেন লাল-সবুজের মেয়েদের। সেখান থেকেই এদেশের নারী ফুটবলকে মূল্যায়ন করতে গিয়ে হুরতাদো বলেন, ফুটবল কলম্বিয়ানদের রক্তে মিশে আছে। আর বাংলাদেশ এক্ষেত্রে নবীন। যদিও অল্প সময়ে বেশ উন্নত করেছে এসব মেয়েরা। তাদের অগ্রযাত্রায় মনে হচ্ছে সঠিক পথেই আছে এদেশের ফুটবল। তবে অন্য লেভেলে যেতে আরও কাজ করতে হবে। 

দুবাইতে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কিংবদন্তী রোনালদিনহোর প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষকের কাজ করছেন জেসিকা। অপর্চিউনিটি থ্রু স্পোর্টস নামে রয়েছে নিজের প্রতিষ্ঠানও।  

বাংলাদেশ নারী ফুটবলারদের সঙ্গে ক্যাথরিন ও জেসিকা

বাংলাদেশের মুগ্ধতায় মৌসুমী-সানজিদাদের নিয়ে সুযোগ পেলে, বড় পরিসরে কাজ করার আকাঙ্ক্ষা ব্যক্ত করে হুরতাদো আরও বলেন, অল্পদিনের এ সফরে যথেষ্ট খোরাক পেয়েছি। ভালো প্রস্তাব পেলে এদেশের মেয়েদের নিয়ে দীর্ঘ মেয়াদে কাজ করতে পারি। 

আর কলম্বিয়ার হয়ে বিশ্বকাপে খেলার অভিজ্ঞতা সমৃদ্ধ, সাতাশ বছর বয়সী ক্যাথেরিন ক্যাস্ত্রো। এখন খেলছেন কলম্বিয়া লিগের বড় দল ন্যাসিওনালে। ইংরেজিতে এখনো অভ্যস্ত হতে না পারলেও, ঢাকায় ফুটবল মিথস্ক্রিয়ায় রোমাঞ্চিত ক্যাথেরিন।

ক্যাথেরিন বলেন, এখানে ক’দিন থেকে কলম্বিয়ার মতোই মনে হয়েছে আমার। খুবই অতিথিপরায়ণ এদেশের মানুষ। আমি খুবই খুশি এমন কাজে সংযুক্ত হতে পেরে। 

পরিশেষে মেসি ভক্ত দুজনই আওড়ালেন সাফল্য প্রাপ্তির জিয়নকাঠি- ইচ্ছা, কঠোর পরিশ্রম ও পৃষ্ঠপোষকতা।

whirpool

এএ/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়