logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

  ০৮ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৫৯
আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০২০, ১১:২৩

টি-টোয়েন্টি বাদ দিয়ে শুধু টেস্ট খেলতে চায় পাকিস্তান

টি-টোয়েন্টি বাদ দিয়ে শুধু টেস্ট খেলতে চায় পাকিস্তান
ফাইল ছবি
পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশ যাবে কী যাবে না সেটার সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে বুধবার। চারিদিকে এমনটাই গুঞ্জন ছিল। এই ক’দিন বিসিবি-পিসিবির পাল্টাপাল্টি কথার খেলায় মেতে থাকলেও পাওয়া যায়নি কোনও ফলাফল। ঝুলে আছে টেস্ট সিরিজের ভাগ্য।

বাংলাদেশ চায় টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেই দেশে ফিরতে, পাকিস্তান চায় গোটা দুই ফরম্যাটের সবগুলো ম্যাচ খেলেই দেশে ফিরুক বাংলাদেশ।

বুধবার সকালে পাকিস্তানের জাতীয় দৈনিক ‘দ্য ডন’ জানায়, আজকের ভেতরই সিদ্ধান্ত জানাবে বিসিবি।

সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের উপস্থিতিতে পরিচালকদের সঙ্গে মিটিং চলে দুই ঘণ্টা যাবত। যেখানে ডাকা হয় বাংলাদেশ দলের দুই সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। ডাকা হয় তরুণ অল-রাউন্ডার সাইফউদ্দিনকেও।

সভা শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন বিসিবি প্রধান। জানান, কি নিয়ে আলাপ হয়েছে, কী সিদ্ধান্ত হয়েছে।

পাপন যা বললেন, তাতে নির্দিষ্ট করে কিছুই বলেননি বলা যায়। তবে এটুকু নিশ্চিত করেছেন, পাকিস্তান সফর করবে বাংলাদেশ তবে সেটা টেস্ট খেলতে নাকি টি-টোয়েন্টি খেলতে যাবে তা জানা যাবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার।

‘আমরা এজেন্সি থেকে যা যা রিপোর্ট পাওয়ার পেয়ে গেছি, তারপরও আলাপ-আলোচনা বাকি আছে। আশা করি কালকের মধ্যে একটা সিদ্ধান্তে আসতে পারব।’

ক্রিকেটাররা যেতে আগ্রহী কী না এই ব্যপারে পাপন জানান, মুশফিক প্রথম থেকেই আগ্রহ দেখায়নি এই সিরিজ নিয়ে। আর বাকিরা বলেছে, সফরটা ছোট হলে ভালো হয়।

শুধু খেলোয়াড়রাই নয়, এই সিরিজে যেতে চায় না কোচরাও। তবে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য যেতে রাজি হয়েছে হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

‘আমাদের প্রধান সমস্যা যেটা আমরা খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলে বুঝেছি, কোচিং স্টাফের ম্যাক্সিমামই যাবে না। মানে অনেকেই যাবে না। আবার হেড কোচ বলেছে যাবে তবে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য। খেলোয়াড় যতো জনের সঙ্গে কথা বলেছ, সবাই ছোট সফর করতে চায়। আমরা এসবই তাদের জানিয়েছি। কিন্তু তারা টেস্ট খেলতে চায়। টি-টোয়েন্টিতো খেলতেই হবে তেমনটা না। ’

খেলোয়াড়রা কেন যেতে চায় না, এ নিয়ে যুক্তি দেখিয়েছে পাকিস্তান। সেদেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগে খেলার জন্য ২৩ জন ক্রিকেটার নাম লিখিয়েছিল ড্রাফটে। দলও পেয়েছে বেশ কয়েকজন। তখন যদি খেলতে না পারে, এখন কেনো নয়?

এ নিয়ে পাপন বলেন, নাম জমা দিলেই যে দল পাবে তা তো না। দল পেলেও যে আমরা খেলতে এনওসি দিব সেটাও তো পরিস্কার না।

এদিকে পাকিস্তান আজ বুধবার বিসিবিকে জানায়, টি-টোয়েন্টি সিরিজ না খেলে শুধু টেস্ট সিরিজ খেলতে। আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এই তিন ম্যাচে খেলা যাবে বলেও জানায় পিসিবি।

‘আমাদের ছিল টি-টোয়েন্টি, ওরা আজকে প্রপোজাল দিয়েছে যে, টেস্টটা খেলে যাও। যেহেতু এটা টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আওতায় তাই এটা গুরুত্বপূর্ণ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ম্যাচগুলো খেললেই হবে। কিন্তু আমরা এখনও সিদ্ধান্তটা নিতে পারিনি। আশা করি আগামীকালকের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলব।’

এমআর/এমকে

RTVPLUS