logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

আইপিএল থেকে নিষিদ্ধ হচ্ছে পাঞ্জাব!

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০২ মে ২০১৯, ১৩:৫৪ | আপডেট : ০২ মে ২০১৯, ১৪:০৫
কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের যৌথ মালিক নেস ওয়াদিয়া ও প্রীতি জিনতা

আইপিএলের আগামী মৌসুমে বিখ্যাত শিল্পপতি নেস ওয়াদিয়া ও বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিনতার যৌথ মালিকানাধীন দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে নাও দেখা যেতে পারে। 

এমনটি হলে বাদ পড়ার তালিকায় চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়েলসের পর তৃতীয় দল হতে যাচ্ছে পাঞ্জাব। এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম।

এর আগে স্পট ফিক্সিং ও বেটিং কাণ্ডে জড়িয়ে আইপিএল থেকে দুই বছরের জন্য নির্বাসিত হয়েছিল চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রায়্যালস। তবে দলের ক্রিকেটারদের দুর্নীতিতে যুক্ত থাকার জন্য নয় বরং টিম মালিকদের অপরাধের শাস্তি পেতে হয়েছিল তাদের।

সম্প্রতি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালিক নেস ওয়াদিয়াকে মাদক সঙ্গে রাখার অপরাধে গ্রেফতার করে দুই বছরের সাজা দিয়েছে জাপানের আদালত। আর তার এমন গর্হিত কাজের জন্য আইপিএলের সুনাম নষ্ট হয়েছে। যে কারণে আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের থাকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, পাঞ্জাবের ফ্রাঞ্চাইজি মালিকের কারণে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) ও আইপিএলের সুনাম নষ্ট হয়েছে। যে কারণে বোর্ডের কর্তাব্যক্তিরা পাঞ্জাবকে নির্বাসনে পাঠানোর চিন্তাভাবনা করছেন।

আইপিএলের ফ্রাঞ্চাইজি দলগুলোর জন্য যে গঠনতন্ত্র রয়েছে, সে অনুযায়ী কোনও ফ্রাঞ্চাইজি মালিকের আচরণে যদি মাঠে বা মাঠের বাইরে আইপিএলের সুনাম নষ্ট হয় তাহলে সেই ফ্রাঞ্চাইজিকে নির্বাসনে পাঠাতে পারবে আয়োজকরা।

আপাতত বিষয়টি অনুসন্ধানের জন্য কমিশন গঠন করতে পারে বোর্ড। কমিশনের রিপোর্ট বোর্ডের ওমবাডসম্যানের কাছে পাঠানো হবে। ওমবাডসম্যান বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত রায় দিলে শাস্তি ঘোষণা করতে পারে বিসিসিআই।

প্রসঙ্গত গত মার্চ মাসে ২৫ গ্রাম ক্যানাবিস রেসিনসহ ধরা পড়েন নেস ওয়াদিয়া। তার পরেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। জাপানি পুলিশের কাছে ওয়াদিয়া অপরাধ স্বীকার করে জানিয়েছেন নিজের ব্যবহারের জন্য ওই ড্রাগ পকেটে রেখেছিলেন তিনি।

এএ/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়