logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭

আরটিভিতে  সংবাদ প্রচারের  পর বদলে গেলো  রিতার জীবন (ভিডিও)

রিতার বাড়িতে প্রশাসন ও ইন্সপিরেশন ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সদস্যরা
আরটিভিতে সংবাদ প্রচারের পর অনেকটা বদলে গেলো শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার আলাউদ্দিন দেওয়ানের মেয়ে রিতা’র জীবন। তার চিকিৎসাসহ সার্বিক সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছে উপজেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা। পাশে আছে ইন্সপিরেশন ওয়েলফেয়ার সোসাইটি সার্বিক সহায়তার হাত। সবার সহযোগিতায় হয়তো দ্রুতই রিতা আবার ফিরে পাবে তার আগের জীবন।

২০১২ সালে এসএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিল নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক গ্রামের আলাউদ্দিন দেওয়ানের চতুর্থ কন্যা রিতা আক্তার। পরীক্ষার আগেই হঠাৎ জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন। প্রায় ১০ বছর ধরে শিকল-বন্দি হয়ে দিন কাটছিলো তার।

রিতাকে নিয়ে গেলো পহেলা ডিসেম্বর আরটিভিতে সংবাদ প্রচার হলে নড়িয়া উপজেলা প্রশাসনের তত্বাবধানে শুরু হয় চিকিৎসা। বৃহস্পতিবার রিতার খোঁজ নিতে ছুটে যান ইন্সপিরেশন ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সদস্যরা। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মুনিরা ইসলাম রিতার চিকিৎসাসহ সার্বিক খোঁজখবর নেন। এছাড়াও নগদ টাকা আর শীতবস্ত্র ও রিতার মা বাবাকে কাপড় তুলে দেন। 

রিতার মা বলেন, আমার মেয়েটা যাতে ভালো হয়। আল্লাহর কাছে এটাই চাই। স্থানীয়রা বলেন, মেয়েটি যাতে সুন্দর একটি চিকিৎসা সেবা পায় তাই কামনা করি।

ইন্সপিরেশন ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মুনিরা ইসলাম বলেন, সুযোগ সুবিধা পাওয়ার পর রিতা কেমন আছে। আর পরবর্তীতে কেমন সুযোগ সুবিধা প্রয়োজন তা নিশ্চিত করতেই আমরা এসেছি। 

এ সময় রিতার হাতে প্রতিবন্ধী ভাতা কার্ড তুলে দেয়া হয়। চলতি সপ্তাহে একটি ঘর নির্মাণ এবং ঢাকায় নিয়ে চিকিৎসা করানোর আশ্বাস দেয় উপজেলা প্রশাসন।

 শরীয়তপুর এর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন,  মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে একটি ঘর করে দেয়া হবে। যাতে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা যায়। সেই ধরণের সকল সহযোগিতা আমরা করবো।

সবার আন্তরিক সহায়তা পেলে রিতার মতো প্রতিবন্ধীরা সুস্থ জীবনে ফিরে আসবে-এমন প্রত্যাশা পরিবারে।

জিএম/ এমকে  

RTV Drama
RTVPLUS