Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

বিতর্কিতদের মনোনয়ন নিয়ে যা ভাবছে আওয়ামী লীগ

ফাইল ছবি

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনীত কয়েকজন প্রার্থীর মনোনয়ন নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে। সমালোচিত প্রার্থীদের অভিযোগ খতিয়ে দেখে মনোনয়নগুলো সংশোধন করতে পারে সংগঠনটি।

দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। এই তালিকায় ছাত্রশিবিরের নেতা, আসামি, স্বাধীনতাবিরোধী নেতার মেয়ে এবং বিএনপি নেতারাও রয়েছে বলে অভিযোগ উঠে এসেছে।

ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী ঘোষণার পরদিনই দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ-সমাবেশের মধ্য দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। দলের কাছে লিখিত অভিযোগ করে মনোনয়ন পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতারা।

বিতর্কিত মনোনয়নগুলো সংশোধন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী কয়েকজন নেতা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন দেওয়ার পর যে ধরনের বিতর্ক তৈরি হয়েছে সেই বিষয়ে খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে। অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে সঙ্গে সঙ্গে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের এক সদস্য জানান, এতদিন তৃণমূলের প্রস্তাব ও সাংগঠনিকসহ বিভিন্ন সংস্থার জরিপ রিপোর্টের ভিত্তিতে ইউপিতে একক চেয়ারম্যান প্রার্থী চূড়ান্ত করত আওয়ামী লীগ। তৃণমূলের প্রস্তাবে কিছুটা সমস্যা থাকলে সাংগঠনিকসহ বিভিন্ন সংস্থার জরিপ রিপোর্ট দেখে মনোনয়ন দেয়া হতো। কিন্তু এবার সাংগঠনিকসহ বিভিন্ন সংস্থার জরিপ রিপোর্টেও বিতর্কিতদের নাম রয়েছে।

এদিকে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি অফিসে বেশকিছু অভিযোগ জমা হয়েছে। সেখানে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা মনোনীত প্রার্থী রাজাকার পরিবারের সন্তান রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বিতর্কিতদের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্ল্যাহ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়ার পর যাদের বিরুদ্ধে বিতর্ক রয়েছে তাদের অভিযোগ সংশোধনের জন্য বিবেচনায় রাখা হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মনোনয়ন নিয়ে যেসব অভিযোগ সেগুলো যাচাই করা হচ্ছে। অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ হলে প্রয়োজনে সংশোধন করা হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন পেয়েছেন হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজন। এরা সবাই অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারাও সমালোচনা করছেন।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান বলেন, অভিযোগ এখনও প্রমাণিত হয়নি। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত কাউকে দোষী বলা যায় না।

এফএ/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS