• ঢাকা বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬

শীতে শাল

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ২২:১১ | আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ২২:৪৩
শাল এক ধরনের বস্ত্রবিশেষ, অনেকটা চাদরের মতো যা শরীরের উর্ধ্বাংশ এবং প্রয়োজন বিশেষে মাথা আবরণের কাজে ব্যবহৃত হয়। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে শাল পরতে পারেন। শাল সাধারণত আয়তকার বা বর্গাকার হয়, তবে ত্রিকোণাকৃতির শালও দেখতে পাওয়া যায়। শাল প্রধানত শীতকালে গরম কাপড় হিসেবে পরিধান করা হয়, তবে সাজসজ্জার পরিপূরক হিসেবেও এর ব্যবহার রয়েছে।

whirpool
বর্তমানে শাল কেবল উষ্ণতাই প্রদান করে না, বরং এটি ফ্যাশনেরও অংশ। পৃথিবীজুড়ে বিভিন্ন নামে এবং বিভিন্ন ধরনের শালের প্রচলন রয়েছে। তাই শীতে ফ্যাশন আর শাল দু’টো একসঙ্গে রাখতে ট্রাই করুন অন্য কিছু। একঘেয়ে ধাঁচে শাল না জড়িয়ে জামাকাপড় অনুযায়ী বদলে ফেলুন স্টাইল। শীতের দিনের শুক্রবার। আপনি ছুটির মুডে। টুকটাক ঘুরে আসার জন্য চাইছেন ক্যাজুয়াল লুক। জিনসের সঙ্গে আলগা করে জড়িয়ে নিন নিউড রঙের পশমিনা শাল।

ঘাড়ের উপর ছড়িয়ে রাখুন গোটা শালটা। তারপর এক প্রান্ত নিয়ে সেটা পাকিয়ে এক কাঁধের ওপর রাখুন। যে লম্বা প্রান্ত নিচে ঝুলছে তা নেকলাইনের ওপর দিয়ে জড়িয়ে নিন। এতে আপনার শাল স্টাইলিশ দেখাবে। শাল ব্যবহার করতে পারেন শ্রাগের মতো করে। এর জন্য লাগবে শুধু একটা ইলাস্টিক ব্যান্ড।

পিঠের উপর ছড়িয়ে রাখুন শাল। শেষের দুই প্রান্ত এক জায়গায় এনে ওই ইলাস্টিক ব্যান্ডের ভিতর দিয়ে টেনে নিন। শালের পিছনে ব্যান্ডটা এমনভাবে ঢেকে ফেলুন যাতে শালের পিছনের অংশ দূর থেকে দেখে মনে হয় হুডের মতো। এইভাবে শাল জড়ালে তা শ্রাগের মতো দেখাবে। শাল প্রথমে অর্ধেক করে ভাঁজ করুন। এবার কোনাকুনি দুটো শেষপ্রান্ত ধরুন। গলায় আলগা করে জড়িয়ে একপাশে বেঁধে নিন।

শাল ঠাণ্ডায় আপনার গলা ঢাকবে। আবার ফ্যাশনেবলও দেখাবে। শাল গায়ে এমন ভাবে জড়ান যাতে তা গলার মধ্যে টাইট না হয়ে যায়। এরপর শালের দু’ প্রান্ত এক কাঁধের কাছে জড়ো করে কোনও ফ্যাশনেবল ব্রোচ দিয়ে আটকে নিন। যে কোনও ফর্মাল অনুষ্ঠানে এভাবে শাল জড়াতে পারেন। এছাড়া সবথেকে কুল লুক হলো শোল্ডার টুইস্ট। নেকলাইন দিয়ে স্টোলের মতো পাকিয়ে নিন শাল। দু’দিকে ঝুলে থাকবে শালের দু’প্রান্ত। একটু নিচের দিকে প্রান্ত দুটিকে টেনে নিন। এতে আপনাকে স্টাইলিশ দেখাবে।

জেএম/জেএইচ

 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়