logo
  • ঢাকা বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

মোদির পাঁচ বছর ছিল ‘সুপার ইমারজেন্সি’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৬ জুন ২০১৯, ০৩:০২ | আপডেট : ২৬ জুন ২০১৯, ০৮:১১
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শাসনামলে ভারতজুড়ে ‘সুপার ইমারজেন্সি’ বা অতিরিক্ত জরুরি অবস্থা জারি ছিল বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়া ভারতের গণতন্ত্র রক্ষায় দেশের জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

১৯৭৫ সালের ২৫ জুন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর জারি করা জরুরি অবস্থার  ৪৪ বছর পূর্তিতে মঙ্গলবার (২৫ জুন) এক টুইট করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  সেখানে তিনি লেখেন, ১৯৭৫ সালে আজকের দিনেই জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছিল। গত ৫ বছর দেশে ‘সুপার ইমারজেন্সি’ চলেছে। ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের উচিত দেশের গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করার জন্য লড়াই করা।

১৯৭৫ সালে জারি করা জরুরি অবস্থা টানা ২১ মাস বিদ্যমান ছিল। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিজেপি-তৃণমূল দ্বন্দ্ব ক্রমেই প্রকট হয়ে দেখা দিয়েছে। এরই ধারবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শপথও বর্জন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি মোদীর কট্টর সমালোচক হিসেবে সুপরিচিত। লোকসভা নির্বাচনের পর মমতা বরাবরই ইভিএমে দুর্নীতির অভিযোগ এনেছেন বিজেপির বিরুদ্ধে।

অন্যদিকে, ক্ষমতাসীন বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে। রাজ্যের অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা দমনে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে সম্প্রতি বিজেপি নেতা মুকুল রায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের লিখিত অনুরোধ জানিয়েছেন। কঠোর ব্যবস্থার মাধ্যমে শৃঙ্খলা ফেরানোর অনুরোধ করেছেন।

জিএ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়