• ঢাকা শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৬

ফ্রান্সে পুলিশ-বিক্ষোভকারী সংঘর্ষ, আহত ১১০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০২ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:০৩ | আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৫

আবারও রণক্ষেত্র প্যারিসের আর্ক দ্য ট্রাম্ফ। কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা আন্দোলনে গতকালও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়েছে বিক্ষোভকারীদের। ‘হলুদ জ্যাকেট’ পরিহিত এসব আন্দোলনকারী ফরাসি সরকারে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছে। খবর বিবিসির।

পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওপর কাঁদানে গ্যাস, স্টান গ্রেনেড এবং জল কামান ব্যবহার করেছে, পাল্টা জবাবে আন্দোলনকারীরা পুলিশের দিকে প্রোজেক্টাইল ছুঁড়েছে এবং ভবনে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এই সংঘর্ষের ঘটনায় নিরাপত্তা বাহিনীর ১৭ জনসহ অন্তত ১১০ জন আহত হয়েছেন। এসময় ২৭০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা।

খবরে বলা হয়েছে, ল্যুভর জাদুঘরের সামনে একটি লোহার দরজা টেনে নামানোর চেষ্টাকালে সেটি কয়েকজনের ওপরে পড়ে গেলে তারা আহত হন। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

পুলিশের সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, পুলিশের গাড়ি থেকে একটি অ্যাসল্ট রাইফেল চুরি হয়ে গেছে; যদিও ওই বন্দুকে গুলি ভরা ছিল কিনা তা স্পষ্ট নয়।

মূলত জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে জীবনযাত্রার মান বেড়ে যাওয়ায় ফ্রান্সের সাধারণ মানুষজন বিক্ষোভ করছে।

এর আগে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির পেছনে যুক্তি দেখাতে গিয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেছিলেন, বৈশ্বিক উষ্ণতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য তার সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে বিক্ষোভকারীদের বিষয়ে খানিকটা নমনীয় ভাব দেখিয়েছিলেন ম্যাক্রোঁ। যদিও নিজের সিদ্ধান্তেই অবিচল থাকার ব্যাপারে সতর্ক করে দেন তিনি।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সে গত ১২ মাসে ডিজেলের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। দেশটির অনেক গাড়িতে জ্বালানি হিসেবে এখনও ডিজেল ব্যবহার করা হয়। তাই সরকারের এমন সিদ্ধান্তে ফ্রান্সজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন  :

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়