logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬

ফিলিপিন্সের বিতর্কিত মেয়রকে গুলি করে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০২ জুলাই ২০১৮, ১৪:৩৩ | আপডেট : ০২ জুলাই ২০১৮, ১৫:৩৩

ফিলিপিন্সের একজন বিতর্কিত মেয়রকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার সকালে টানাউয়ান সিটি হলে পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানের সময় স্নাইপারের গুলিতে তিনি নিহত হয়েছেন। খবর সিএনএনের।

পুলিশ সুপার রেনাটো মেরকাডো বলেছেন, টানাউয়ান শহরের মেয়র অ্যান্তোনিও হালিলি’র বুকে একটি গুলি লাগলে তিনি নিহত হন। ওই ঘটনার এক ভিডিওতে দেখা গেছে, গুলির পর ঘটনাস্থলে থাকা ব্যক্তিদের মধ্যে আতঙ্কে ছড়িয়ে পড়ে এবং তারা নিরাপদ স্থানে যাওয়ার জন্য দৌড়াদৌড়ি করতে থাকে।

ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, পতাকা উত্তোলনের অনুষ্ঠানে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে রয়েছেন হালিলি। এসময় জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হচ্ছিল। ক্যামেরা অন্যদিকে সরানো হলে একটি গুলির শব্দ পাওয়া যায়। এরপর চিৎকার শোনা যায় এবং এক নারী ইংরেজিতে ‘ওহ মাই গড’ বলে ওঠেন। তবে গুলি করার পর হালিলিকে আর ক্যামেরায় দেখা যায়নি।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  :মেক্সিকোর নতুন প্রেসিডেন্ট বামপন্থী ওবরাদোর
--------------------------------------------------------

দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম ফিলিপিন্স নিউজ এজেন্সি (পিএনএ) জানিয়েছে, ওই গুলির পর পাল্টা গুলি চালায় মেয়রের নিরাপত্তাকর্মীরা।

সরকারি কর্মকর্তা গ্যারি লারেসমা ওই ভিডিও করেছেন। তবে কোথা থেকে গুলি করা হয়েছে সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তিনি বলেন, অপরাধ বিরোধী কঠোর অবস্থানের কারণে হালিলি জীবননাশের হুমকি পেয়েছিলেন।

প্রাদেশিক চিফ সুপারিন্টেনডেন্ট অ্যাডওয়ার্ড ই কারানজা বলেছেন, বেশ দূর থেকেই ওই গুলি চালানো হয়। মনে হচ্ছে ৫.৫৬ বা ৭.৬২ ক্যালিবারের শক্তিশালী রাইফেল থেকে ওই গুলি চালানো হয়েছে।

রেয়েস মেমোরিয়াল হাসপাতালের চিকিৎসক আলেকজান্ডার কারানডাং বলেছেন, হামলার এক ঘণ্টার কম সময়ের মধ্যে তিনি মারা গেছেন।

ফিলিপিন্স ন্যাশনাল পুলিশের প্রধান মহাপরিচালক অস্কার আলবায়ালদে বলেছেন, আঞ্চলিক স্পেশাল টাস্ক গ্রুপকে এই হত্যাকাণ্ড তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

এদিকে প্রেসিডেন্সিয়াল মুখপাত্র হ্যারি রক এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়ে বলেন, হালিলি প্রেসিডেন্ট দুতের্তের একজন ঘনিষ্ঠ ছিলেন এবং এর বিচার হবে।

আরও পড়ুন  : 

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়