logo
  • ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

রুহানিকে বহনকারী বিমান কোম্পানির ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একটি এয়ারলাইন কোম্পানির বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। ওই পরিবহন সংস্থাটি রুটিনমাফিক ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিকে বহন করে থাকে। খবর আল-জাজিরার।

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ বিভাগ বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে জানায়, ২০০১ সালের প্রেসিডেন্ট নির্দেশ অনুযায়ী ‘সন্ত্রাসীদের অর্থায়নের কারণে’ ডেনা এয়ারওয়েজের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হচ্ছে।

ওই বিবৃতিতে বলা হয়, ইরানের সরকারি ফ্লাইটগুলো পরিচালনা করে ডেনা এয়ারওয়েজ। গেলো বছরের নভেম্বরে আগে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মধ্যে থাকা মেরাজ এয়ার তাদের ‘ভিআইপি ফ্লাইট অপারেশনস’ ডেনা এয়ারওয়েজের কাছে হস্তান্তর করে।

--------------------------------------------------------

আরও পড়ুন : সাইক্লোনে মেকুনুর আঘাতে ওমানে ছয়জনের মৃত্যু

--------------------------------------------------------

তবে ন্যাশনাল ইরানিয়ান আমেরিকান কাউন্সিল (এনআইএসি)-র নির্বাহী পরিচালক ত্রিটা পার্সি বলছেন, ডেনা এয়ারওয়েজ কেবল একটি বিমান পরিচালনা করে, যেটি প্রেসিডেন্ট রুহানি ব্যবহার করেন।

পার্সি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেন, তাহলে ট্রাম্পের লক্ষ্য কী? ইরানের মধ্যপন্থীদের অপদস্থ করা এবং কট্টরপন্থীদের শক্তিশালী করা।

এয়ারফ্লিটস ওয়েবসাইট জানিয়েছে, ডেনা এয়ারওয়েজ কেবল একটি বিমান পরিচালনা করে, এটি ১৯ বছরের পুরনো এয়ারবাস এ৩৪০-৩০০।

তবে নতুন এই নিষেধাজ্ঞার কারণে অফিসিয়াল ভ্রমণের জন্য ডেনা এয়ারওয়েজের বিমান বাধার মুখে পড়তে পারে। আসলে ডেনা এয়ারওয়েজের বিমান অনেকটা মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বহনকারী এয়ার ফোর্স ওয়ানের ইরানি ভার্সন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের এই নতুন নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে ইরান সরকার তাৎক্ষণিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া দেখায়নি।

এছাড়া ডেনা এয়ারওয়েজের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত দুই ইরানি এবং একজন তুরস্কের ব্যবসায়ীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টেভেন মুচিন বলছেন, এই ব্যক্তিরা এখন ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী’ হিসেবে বিবেচিত হবে।

আরও পড়ুন :

এ/এমকে

RTV Drama
RTVPLUS