Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮

৫৮ লাখ টাকা দাম বলার পরও ‘টাইগার’কে বিক্রি করেননি তিনি!

৫৮ লাখ টাকা দাম বলার পরও ‘টাইগার’কে বিক্রি করেননি তিনি
সংগৃহীত

শুনতে অবাক লাগলেও একটি ছাগলের দাম ১ কোটি ১৩ লাখ ৫৭ টাকা হাকিয়েছিলেন একজন বিক্রেতা। ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ভারতের মহারাষ্ট্রে বুলধানা জেলায় একটি ছাগলের এমন দামই উঠেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত একজন ক্রেতা ছাগলটির দাম ৫৭ লাখ ৯২ হাজার টাকা দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও পোষায়নি বিক্রেতার। ছাগল বিক্রি না করে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে গেলেন তিনি। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

কেন এত দাম এই ছাগলের? জানা গেছে, জন্ম থেকেই কিছু চিহ্ন রয়েছে তার শরীরে। আরবি ভাষায় ‘আল্লাহ’ লিখলে যেমন দেখতে লাগে, তেমনই সেই চিহ্নগুলো। সেই কারণেই তার এত দাম। কুরবানির ঈদের আগে আজমের থেকে মহারাষ্ট্রে এসেছিলেন গোপালরাও সোহেল ও তার ছেলে কপিল। সঙ্গে এনেছিলেন টাইগার নামের ছাগলটিকে। ১ কোটি ৭৮৬ রুপিতে টাইগারকে বিক্রি করতে চেয়েছিলেন তারা। কিন্তু দাম ৫৮ লাখ টাকার বেশি উঠল না। তাই অগত্যা ফিরিয়েই নিয়ে গেলেন বিশেষ ছাগলটিকে।

গোপালরাও জানান, প্রথমে তিনি টাইগারের গুরুত্ব বুঝতে পারেননি। পরে এক মাওলানার কাছ থেকে নাকি এর বিশেষত্ব জানতে পারেন। তখনই ঠিক করেছিলেন উপযুক্ত দাম পেলে তবেই টাইগারকে হাতছাড়া করবেন। ঈদের জন্য টাইগার ছাড়া আরও ৩০টি ছাগল বিক্রির জন্য মহারাষ্ট্রে এনেছিলেন তারা। সেগুলো ১৫ হাজার রুপি করে বিক্রি করেছেন। ছাগলদের এতদূর আনতে ও দেখভাল করতে ৫ লাখ রুপি খরচ হয়েছিল। আর ছাগলগুলো বিক্রি করে মোট সাড়ে ছয় লাখ রুপি লাভ হয়েছে।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS