Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮

বিয়েবাড়িতে ঢুকে পুরোহিতকে লাঠিপেটা, বর-কনেসহ আমন্ত্রিতদের গ্রেপ্তার

police entering the wedding beating the priest with sticks and arresting the bride and groom
সংগৃহীত

এখানে কী হচ্ছে? কী নাম আপনার? ওনাকে গ্রেপ্তার করুন। উঠুন উঠুন আর খেতে হবে না। কেন এসেছেন? যান যান বেরিয়ে যান। একজন কাতর অনুরোধ জানাতে এলে তার কলার ধরে বের করে দেন নীল জামা পরা এক ব্যক্তি। এভাবেই যাকে পারছেন গ্রেপ্তার করছে পুলিশ।

পুরোহিতের মাথায় থাপ্পড় মেরে তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়। বাদ পড়েন না বরও। কনের বড় ভাইকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে তোলা হয় গাড়িতে। কেন এই শাসন? জানা গেছে, তারা নাইট কারফিউয়ের আইন ভঙ্গ করেছেন। করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা দেশে। অথচ নিয়ম ভেঙেই চলছে বিয়ের অনুষ্ঠান।

আরও পড়ুন... করোনাভাইরাস: ভারতে আক্রান্ত-মৃত্যুর নতুন রেকর্ড

বিয়ের অনুষ্ঠান প্রায় শেষের পথে ছিল। চলছিল শেষ ব্যাচের খাওয়া-দাওয়া। এজন্য নাকি আলাদা করে অনুমতিও নেয়া ছিল। কিন্তু কোথায় কিসের অনুমতি! লিখিত অনুমতিপত্র দেখানোর আগেই পন্ড করে দেয়া হয় অনুষ্ঠান। বাড়ির কর্ত্রী চিঠিটি বের করে দেখান। কিন্তু সেটি ছিড়ে কুটি কুটি করে মুখের উপর ছুঁড়ে দেন জেলা প্রশাসক শৈলেশ যাদব।

আরও পড়ুন... মৃত্যুর আগে বড় বোনকে যা বলেছিল মোসারাত

এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে। সেখানে রাত ১০টার পর নাইট কারফিউ জারি করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক শৈলেশ খবর পান যে রাত ১০টা বেজে গেলেও মাণিক্য কোর্ট এবং গোলাপবাগান নামে দুটি ভবনে বিয়ে অনুষ্ঠান চলছে। প্রচুর জনসমাগমও হয়েছে। এরপরই এসব জায়গায় হানা দেন তিনি।

এ/পি

RTV Drama
RTVPLUS