Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৫১
আপডেট : ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১৪:২৩

ভারতকে পাশ কাটিয়ে পাকিস্তানকে কাছে টানছে রাশিয়া

Putin offers ‘blank cheque’ to Pakistan, RTV
রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ভারত সবসময় মিত্র হিসেবেই পাশে পেয়েছে রাশিয়াকে। রাশিয়া থেকে অস্ত্র কেনা থেকে শুরু করে নানান ক্ষেত্রে সহযোগিতা পায় দেশটি। তবে পাশার দান এবার উল্টে যাচ্ছে। কেননা পাকিস্তানের সঙ্গে দহরম মহরম সম্পর্ক গড়ে তুলছে রাশিয়া।

পাকিস্তানের একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, ৯ বছর পরে গত সপ্তাহে ইসলামাবাদ সফর করেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। এ সময় তিনি পাকিস্তানি নেতৃত্বকে একটি গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিয়েছেন। বার্তাটি ছিল রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পক্ষ থেকে।

ওই সফরে ল্যাভরভ বলেন, আমি আমার প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে একটি বার্তা নিয়ে এসেছি। সেই বার্তায় বলা হয়েছে, সহযোগিতাসহ পাকিস্তানের যা কিছু প্রয়োজন তা দিতে উন্মুক্ত রাশিয়া। পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে এমন বক্তব্য রেখেছেন ল্যাভরভ।

বৈঠকে উপস্থিত পাকিস্তানের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা জানান, অন্যভাবে বলা যায় পাকিস্তানকে ব্লাংক চেক প্রস্তাব করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট।

ব্লাংক চেক বলতে কি বোঝানো হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মকর্তা জানান, পুতিন তার শীর্ষ কূটনীতিকের মাধ্যমে পাকিস্তানের কাছে এই বার্তা দিয়েছেন যে, যেকোন ইস্যুতে ইসলামাবাদকে সহায়তা করবে মস্কো। গ্যাস পাইপলাইন, করিডোর, প্রতিরক্ষা বা অন্য কোনো রকম সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত রাশিয়া।

এরই মধ্যে নর্থ-সাউথ গ্যাস পাইপলাইন প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে পাকিস্তান ও রাশিয়া। এছাড়া পাকিস্তান স্টিল মিলসকে পুনরুজ্জীবিত করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া, যা প্রকৃতপক্ষে রাশিয়ারই নির্মিত। পাকিস্তানের পানিবিদ্যুত প্রকল্পেও আগ্রহ প্রকাশ করেছে মস্কো। এমনকি পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রকল্পে ৮০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া।

এদিকে সের্গেই ল্যাভরভ পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জানান, সন্ত্রাস দমনে পাকিস্তানকে বিশেষ সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহ করতে প্রস্তুত মস্কো।

২০১১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক যখন তলানিতে যেতে শুরু করে তখন পাকিস্তান ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পর্ক নতুন মাত্রা পেতে থাকে। এরপর ২০১৬ সালে ভারতের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলে ইতিহাসে প্রথম যৌথ মহড়ার জন্য পাকিস্তানে সেনা পাঠায় রাশিয়া। ভারত বাগড়া দেয়ার চেষ্টা করলেও পাত্তা দেয়নি রাশিয়া।

এক সময় ভারত ছিল রাশিয়ার অকাট্য বন্ধু। কিন্তু ভারতের সঙ্গে রাশিয়ার সেই সম্পর্ক এখন বিপরীতমুখে ধাবিত হচ্ছে। কট্টরপন্থী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই এর প্রধান কারণ। আবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ভারতের ঝুঁকে পড়া রাশিয়া ভালো চোখে দেখছে না। ল্যাভরভ পরোক্ষভাবে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার নতুন করে গ্রুপিংয়ের বিরোধিতাও করেছেন। সবমিলে মনে হচ্ছে ভারতকে পাশ কাটিয়ে চীন আর পাকিস্তানকে নিয়ে একত্রিত হচ্ছে মস্কো। সূত্র : দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

টিএস/পি

RTV Drama
RTVPLUS