logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭

করোনা টিকার স্বেচ্ছাসেবী হবেন ওবামা, বুশ ও ক্লিনটন

Obama, Bush and Clinton volunteer to get coronavirus vaccine
সংগৃহীত
কোভিড-১৯ টিকা নিরাপদ ও কার্যকর মানুষজনকে এমন আস্থা দিতে স্বেচ্ছসেবী হবেন সাবেক তিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, জর্জ ডব্লিউ বুশ ও বিল ক্লিনটন। যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) কোনও একটি টিকার অনুমোদন দিলেই ক্যামেরার সামনে টিকা নেবেন এই তিন সাবেক প্রেসিডেন্ট। খবর সিএনএনের।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা করোনার টিকা গ্রহণ করতে মানুষজনকে বোঝানোর চেষ্টা করছে। এমতাবস্থায় করোনা টিকা নিরাপদ ও এর কার্যকারিতা নিয়ে সাবেক এই তিন মার্কিন প্রেসিডেন্টের সচেতনতামূলক প্রচারণা জনগণকে শক্তিশালী একটি বার্তা দেবে বলে মনে করা হচ্ছে।

বুশের চিফ অব স্টাফ ফ্রেডি ফোর্ড বলেছেন, টিকার ব্যাপারে উৎসাহ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ মহামারি বিশেষজ্ঞ ও ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের পরিচালক ডা. অ্যান্থনি ফাউচি এবং হোয়াইট হাউজের করোনাভাইরাস রেসপন্স কোঅর্ডিনেটর ডা. ডেবরাহ বার্ক্সের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন ৪৩তম এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, কয়েক সপ্তাহ আগে ডা. ফাউচি ও ডা. বার্ক্সের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা বলেছিলেন প্রেসিডেন্ট বুশ। মানুষজনকে টিকা দেওয়ার ব্যাপারে উৎসাহ দিতে নিজের সাধ্যমতো চেষ্টা করার আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি। প্রথমে টিকা নিরাপদ এটা প্রমাণিত হতে হবে এবং অগ্রাধিকার পাওয়া জনগোষ্ঠীকে দিতে হবে। এরপর প্রেসিডেন্ট বুশ এই টিকা নেবেন এবং সেটা ক্যামেরার সামনেই।

বুধবার ক্লিনটনের প্রেস সচিব অ্যাঞ্জেল ইউরেনা বলেছেন, সাবেক এই প্রেসিডেন্টও টিকাদানে মানুষজনকে উৎসাহ দিতে ক্যামেরার সামনে টিকা নেবেন। অগ্রাধিকার পাওয়া ব্যক্তিরা যখনই টিকা নেওয়ার সময় আসবে তখনই টিকা নেবেন প্রেসিডেন্ট ক্লিনটন। আর যদি এটা মানুষজনকে টিকা গ্রহণে উৎসাহী করে সেক্ষেত্রে তিনি এটা ক্যামেরার সামনেই নেবেন।

এদিকে সিরিয়াসএক্সএম’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওবামা বলেছেন, যদি ফাউচি বলেন করোনার একটি টিকা নিরাপদ, তাহলে আমি তাকে বিশ্বাস করি। বৃহস্পতিবার ওই সাক্ষাৎকারটি সম্প্রচারিত হওয়ার কথা রয়েছে।

ওবামা বলেন, অ্যান্থনি ফাউচির মতো মানুষ, যাদের আমি চিনি ও কাজ করেছি, আমি পুরোপুরি বিশ্বাস করি। তাই যদি অ্যান্থনি ফাউচি বলেন এই টিকা নিরাপদ এবং নেওয়া যেতে পারে যা কোভিড থেকে প্রতিরোধ তৈরি করবে, নিশ্চিতভাবেই আমি সেটি গ্রহণ করবো।

তিনি বলেন, যখন কম ঝুঁকিতে থাকা মানুষদের টিকা দেওয়া শুরু হবে তখন আমি এটা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। আমার টিকা নেওয়ার দৃশ্য টিভি বা ক্যামেরায় ধারণ করা হতে পারে, যাতে মানুষ বুঝতে পারে যে আমি এই বিজ্ঞানকে বিশ্বাস করি এবং আমি কোভিডে আক্রান্ত হওয়ায় বিশ্বাস করি না।

অন্যদিকে এক বিবৃতিতে টিকা দেওয়ার প্রচেষ্টার প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছে সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টারের ফাউন্ডেশন। কার্টার সেন্টার বুধবার টুইটারে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার ও তার স্ত্রী রোজালিন বলেছেন, তারা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রচেষ্টার পুরোপুরি সমর্থন এবং তাদের কমিউনিটিতে টিকা দেওয়া শুরু হলে সবাইকে এটার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করেন।

এ/পি

RTV Drama
RTVPLUS