Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

চলতি শিক্ষাবর্ষে সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী পড়তে গিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে

চলতি শিক্ষাবর্ষে সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী পড়তে গিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে
ছবি: সংগৃহীত

উচ্চ শিক্ষার জন্য ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে বাংলাদেশ থেকে সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী পড়তে গিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। আগের বছরের তুলনায় এর হার ৭.১% বেশি। এর পরিমাণ ২০০৯ সালের চেয়ে তিন গুণ বেশি।

চলতি বছর মোট ৮ হাজার ৮৩৮ জন শিক্ষার্থী উচ্চ শিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছেন। তবে ২০১৯ সালে ৮ হাজার ২৪৯ জন পড়তে গিয়েছিল।

বাংলাদেশে থাকা মার্কিন দূতাবাস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান, ২০২০ ওপেন ডোরস রিপোর্ট অন ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশনাল এক্সচেঞ্জ নামে মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগের শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক ব্যুরো এবং অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন-আইআইএ'র যৌথভাবে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

সেখানে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে যাওয়া শিক্ষার্থী ক্ষেত্রে বিশ্বের শীর্ষ ২০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৭তম। অন্যদিকে শিক্ষার্থী পাঠানো বৃদ্ধির হারের দিক থেকে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে সবার থেকে এগিয়ে আছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে যাওয়া বাংলাদেশর শিক্ষার্থী স্নাতক পর্যায়ে ৫ হাজার ৭৮৭ জন শিক্ষার্থী রয়েছেন। যার সংখ্যা ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের তুলনায় ৯.৬% বেশি। স্নাতক পর্যায়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশ ৯ম থেকে ৮ম অবস্থানে উঠে এসেছে।

বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যেসব শিক্ষার্থী পড়তে গিয়েছেন তাদের মধ্যে ৫% শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, প্রকৌশল এবং গণিত বিষয়ে পড়াশুনা করছেন। অন্যদিকে ব্যবসা ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পড়ছেন ৭ ভাগের বেশি শিক্ষার্থী এবং ৬ ভাগ শিক্ষার্থী সামাজিক বিজ্ঞান বিভাগে পড়াশুনা করছেন। এছাড়াও ১৩০০ শিক্ষার্থী পড়াশুনার অংশ হিসেবে কর্ম-প্রশিক্ষণ বা অপশনাল প্র্যাকটিক্যাল ট্রেনিং-য়ে অংশ নিয়েছেন যা মোট বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর ১৪ ভাগ।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কাছে পড়াশুনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র হচ্ছে পছন্দের তালিকায় প্রথম। ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে দেশটিতে ১০ লাখের বেশি বিদেশি শিক্ষার্থী পড়াশুনা করতে গিয়েছেন।

চলতি শিক্ষাবর্ষে আগের চেয়ে বিদেশী শিক্ষার্থীদের হার ১.৮% কমলেও দেশটির মোট শিক্ষার্থীর ৫.৫% বিদেশী শিক্ষার্থী। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

জিএম/এসএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS